Valentines Day 2020: ভেঙে যাক ভুল, খুল্লামখুল্লা হোক প্রেম নিয়ে আলোচনা !

Valentines Day 2020: ভেঙে যাক ভুল, খুল্লামখুল্লা হোক প্রেম নিয়ে আলোচনা !

বয়ঃসন্ধির শুরুতে প্রত্যেকেই কিছু শারীরিক এবং মানসিক পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যায়। সেই সময় মানুষ বিপরীত লিঙ্গের মানুষের সংস্পর্শ পেতে চায়। যা সে পেতে পারে তার বন্ধু এবং পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে।

  • RedWomb
  • Last Updated: February 12, 2020, 3:46 PM IST
  • Share this:

ভুল কোই হামসে না হো জায়ে

বয়ঃসন্ধির শুরুতে প্রত্যেকেই কিছু শারীরিক এবং মানসিক পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যায়। সেই সময় মানুষ বিপরীত লিঙ্গের মানুষের সংস্পর্শ পেতে চায়। যা সে পেতে পারে তার বন্ধু এবং পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে।

যৌনতা নিয়ে বাড়িতে আলোচনা হয় না। বিশেষত শিশু বা কিশোর বা যুবক-যুবতীদের সামনে তো নৈব নৈব চ। সুতরাং তা নিয়ে সকলের মধ্যে চূড়ান্ত কৌতুহল থাকে। ফলে ইন্টারনেট থেকে মূলত পর্ন এবং অনভিজ্ঞ বন্ধুদের থেকে কিশোর-কিশোরী এবং যুবক-যুবতীদের  কাছে নানা তথ্য নিয়ে একটা ধোঁয়াশা তৈরি হয় তাদের মধ্যে। ফলে সব নিয়েই তৈরি হয় চূড়ান্ত কৌতুহল।

উনসে মিলি নজর কে মেরে হোশ উড গয়ে

নিজের পরিবারের কাউকে নিয়ে ফ্যান্টাসাইজ করা নতুন কিছু নয়। এই প্রথা বহুকাল থেকে চলে আসছে।  প্রাচীন মিশরীয়রা রাজপরিবারের সদস্যরা নিজেদের পরিবারের ঐতিহ্য বজায় রাখতে নিজেদের পরিবারের মধ্যে বিয়ের প্রচলন করেছিলেন। তবে সমাজ ব্যবস্থা উন্নত হয়ে যাওয়ায় পরিবারের মধ্যে থাকা সদস্যদের নিয়ে কল্পনা করতে থাকে। তা আর পরিণতি পায় না।

"আমার বোন দিল্লিতে কাজ করত।  প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার কোচিংয়ের জন্য সেই সময় আমি তার কাছে গিয়ে থাকতে শুরু করি।  ব্রেকআপের দু:খ ভুলতে সে একদিন মদ্যপান করছিল। সেই সময় সে আমাকে শারিরীক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয়। সেদিন রাতে আমরা ঘনিষ্ঠ হয়েছিলাম। তারপরও বহুবার আমরা শারিরীক সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছি। যদিও পরে তার বিয়ে হয়ে যায়। বর্তমানে সে বিদেশে থাকে। যদিও আমি আর এগিয়ে যেতে পারিনি।" আমন (নাম পরিবর্তিত), ২৫, সমাজকর্মী, লখনউ

হিন্দুদের মধ্যে সম্পর্কের বিভিন্ন স্তরে বিবাহ নিষিদ্ধ। মায়ের পরিবারের পঞ্চম এবং বাবার পরিবারের সপ্তম প্রজন্ম পর্যন্ত বিবাহ নিষিদ্ধ। যদিও মুসলিম এবং দক্ষিণ ভারতীয়দের মধ্যে সেই বিবাহ অনুমোদিত। একইসঙ্গে উপজাতীয় অঞ্চলে বেশ কয়েকটি সম্প্রদায়ের প্রথম প্রজন্মের মধ্যে বিবাহ বৈধ। তবে বিবাহ নিষিদ্ধ করার পিছনে বৈজ্ঞানিক যুক্তি রয়েছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায়, জিনগত সম্পর্কের ফলে জন্ম নেওয়া শিশুদের জিনগত ব্যাধি, অক্ষমতা হতে পারে। জন্মগতভাবে পারিবারিক কাঠামোর পবিত্রতা বাঁচাতে সামাজিক ও নৈতিকভাবেও বিবাহিত দম্পতিদের মধ্যে পরিবার ছাড়াও পরিবারের মধ্যে যৌন সম্পর্ক নিষিদ্ধ।

দিল হ্যায় কি মানতা নেহি

"উচ্চশিক্ষার জন্য বড় শহরে চলে যাই। সেই সময় বাবার খুরতুতো ভাই, যিনি সম্পর্কে আমার কাকা সেখানেই কাজ করতেন। তিনি ছিলেন আমার থেকে ১০ বছরের বড়। বড় শহরে তিনি ছিলেন আমার আস্থার জায়গা।  তিনি বিবাহিত। তবুও আমরা দুজনেই একে অপরের কাছে অপরিহার্য হয়ে পড়েছিলাম। পাঁচ বছর কেটে গিয়েছে, আমরা এখনও সম্পর্কের মধ্যে রয়েছি। আমি বিয়েও করতে পারিনি।" আরাধনা (নাম পরিবর্তিত), ২৩, যোগা ট্রেনার, ফরিদাবাদ

সমাজে এমন একটি বিশাল সংখ্যক লোক রয়েছে যারা মা-বাবার সম্পর্কেও নানা কল্পনা করে। নাম প্রকাশ না করার প্রতিশ্রুতি দেওয়া সত্ত্বেও বেশিরভাগই একথা প্রকাশ্যে বলতে চান না ভয় এবং লোকলজ্জার জন্য।

ভাবি জী ঘর পে হ্যায়

যে কোনও পর্নোগ্রাফি সাইট ঘাঁটলেই সামনে আসবে "ভাবি"। আর এই ভাবি প্রচুর পুরুষের আকর্ষণের কেন্দ্রে। ভারতের সর্বাধিক জনপ্রিয় দুটি যৌন-কমিক বইয়ের শিরোনাম সাবিতা ভাবি এবং ভেলামমা। এই দু'জনেই বিবাহিত মহিলা। পুরুষেরা তাদের নিয়ে কল্পনায় মেতে ওঠেন। প্রেমমূলক গল্প এবং ভিডিওগুলিতে এ জাতীয় থিম থাকে। সুতরাং আপনি কীভাবে জানবেন যে আপনি কোনও পরিবারের সদস্য সম্পর্কে কিছুটা অন্য ধরনের চিন্তা করছেন না!

 
First published: February 6, 2020, 8:15 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर