• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Ladakh Village Viral: হিমাঙ্কের নীচে থাকা গ্রামে পথের পাশে অমূল্য সম্পদ! ঠাকুমা-নাতনির আনন্দ ছুঁয়ে গেল নেটিজেনদেরও

Ladakh Village Viral: হিমাঙ্কের নীচে থাকা গ্রামে পথের পাশে অমূল্য সম্পদ! ঠাকুমা-নাতনির আনন্দ ছুঁয়ে গেল নেটিজেনদেরও

Viral:হাতের কাছে জলের ধারা পেয়ে ঠাকুমা-নাতনি দু’জনের মুখেই স্বর্গীয় আনন্দ

Viral:হাতের কাছে জলের ধারা পেয়ে ঠাকুমা-নাতনি দু’জনের মুখেই স্বর্গীয় আনন্দ

লেহ-র যে উমলা গ্রামে (Umla village of Leh) তাঁদের বাড়ি, সেখানে তাপমাত্রা শূন্যের নীচে থাকাই দস্তুর

  • Share this:

    লেহ: রাস্তার পাশে ট্যাপের মুখ থেকে পড়া পরিস্রুত পানীয় জল৷ একরত্তি খুদে এবং তার ঠাকুমার কাছে সেটাই অমূল্য৷ কারণ লেহ-র যে উমলা গ্রামে (Umla village of Leh) তাঁদের বাড়ি, সেখানে তাপমাত্রা শূন্যের নীচে থাকাই দস্তুর৷ তাই হাতের কাছে জলের ধারা পেয়ে ঠাকুমা-নাতনি দু’জনের মুখেই স্বর্গীয় আনন্দ৷

    দীর্ঘ দূরত্ব পাড়ি দিয়ে পরিস্রুত পানীয় জল বয়ে আনাতেই অভ্যস্ত ছিলেন উমলা গ্রামের বাসিন্দারা৷ এখন, লাদাখের (Ladakh) ৬০ টি গ্রামের মধ্যে যে ১২ টিতে হিমাঙ্কের নীচেও ট্যাপ থেকে পানীয় জল পাওয়া যাচ্ছে তার মধ্যে উমলা অন্যতম৷

    আরও পড়ুন : ঝলমলে চুল ও ঝকঝকে ত্বক পেতে ডায়েটে থাকুক এই উপাদান

    সম্প্রতি উমলা গ্রামের এই দুই বাসিন্দার ছবি ট্যুইট করেছেন ‘জল জীবন মিশন’-এর ডিরেক্টর ভরত লাল৷ ছবির সঙ্গে তিনি লিখেছেন, ‘‘জল জীবন মিশন (Jal Jeevan Mission) জীবনকে পরিবর্তন করছে৷ লাদাখের লেহ জেলার ১২ টি গ্রামের মধ্যে উমলা একটি, যেখানে হিমাঙ্কের নীচে তাপমাত্রাতেও ট্যাপ ওয়াটারের যোগান নিশ্চিত করা গিয়েছে৷ এই ছোট্ট মেয়ে এবং তার ঠাকুমার মুখের হাসিই প্রকৃত তৃপ্তি৷’’

    আরও পড়ুন : ক্যাভিটিমুক্ত দাঁত থেকে মজবুত হাড়, চিজের সুফল নিন চিনে

    লে-র প্রত্যন্ত গ্রাম উমলার সঙ্গে সড়কপথে যোগাযোগ ব্যবস্থাও ঠিকমতো নেই৷ জল জীবন মিশনের অফিশিয়াল অ্যাকাউন্ট থেকে ট্যুইটবার্তায় জানা গিয়েছে, স্থানীয় প্রশাসন আকাশপথে লেহ-র বিভিন্ন অংশে নির্মাণ-উপকরণ পাঠিয়েছে, যাতে ট্যাপ ওয়াটারে যোগান নিশ্চিত করা যায়৷

    আরও পড়ুন : নিয়ন্ত্রণ করে উচ্চরক্তচাপ ও মধুমেহ, শীতের ডায়েটে রাখতেই হবে রসুন

    গত মাসে এই জল জীবন মিশনকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আখ্যা দিয়েছেন গ্রাম ও নারী চালিত উদ্যোগ হিসেবে৷ গ্রাম পঞ্চায়েত এবং পানি সমিতির প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলার সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘এটা গ্রামাঞ্চল চালিত এবং মহিলা চালিত উদ্যোগ৷ গণ উদ্যোগ এবং জনসাধারণের অংশগ্রহণই এর মূল ভিত্তি৷’’

    উমলা গ্রামের ঠাকুমা ও নাতনির স্বতঃস্ফূর্ত অনাবিল আনন্দের ছবিতে উচ্ছ্বসিত নেটিজেনরা৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: