Home /News /life-style /

Study from Home : সন্তানের অনলাইন ক্লাসে এই নিয়মগুলি মানছেন তো? নয়তো ক্ষতি অপূরণীয়

Study from Home : সন্তানের অনলাইন ক্লাসে এই নিয়মগুলি মানছেন তো? নয়তো ক্ষতি অপূরণীয়

পড়ায় মনঃসংযোগ ব্যাহত করার সুযোগ বাড়িতে প্রচুর

পড়ায় মনঃসংযোগ ব্যাহত করার সুযোগ বাড়িতে প্রচুর

আপনার শিশু এতদিনে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছে, নিউ নর্মালে (new normal), তাও দেখে নিন ওর বাড়ি থেকে স্কুল করার সুবিধে-অসুবিধে

  • Share this:

    প্রায় দু বছর হতে চলল অষ্টম শ্রেণী অবধি পড়ুয়ারা স্কুল করছে বাড়ি থেকে (school from home) ৷ নিরাপত্তা ও সুস্থতার স্বার্থে তারা বিসর্জন দিয়েছে স্কুলজীবনের অনেক আনন্দ৷ করোনা ভাইরাসের নিত্যনতুন ভ্যারিয়্যান্টের আগমনে সর্বস্তরে অফলাইন স্কুল (offline class) এখনও অনিশ্চিত৷ যদিও আপনার শিশু এতদিনে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছে, নিউ নর্মালে (new normal), তাও দেখে নিন ওর বাড়ি থেকে স্কুল করার সুবিধে-অসুবিধে৷

    পড়ায় মনঃসংযোগ ব্যাহত করার সুযোগ বাড়িতে প্রচুর৷ স্কুলের মতো চেয়ারে সোজা হয়ে বসতেই হয়তো চাইছে না অনেক বাচ্চা৷ ড্রয়িং রুম বা বেডরুম থেকে ক্লাস করার সময় মাঝে মাঝেই বালিশে হেলান দিয়ে শুয়ে পড়ছে৷ এতে কিন্তু পড়া থেকে মন চলে যাওয়ার আশঙ্কা থেকেই যায়৷ তাই বাড়ির নির্দিষ্ট একটা কোণে ওর জন্য অনলাইন ক্লাসের জায়গা তৈরি করে দিন৷ বসার ব্যবস্থা করুন চেয়ার টেবিলে৷ দেখুন সেখানে যেন পর্যাপ্ত আলো থাকে৷ ইন্টারনেট সংযোগও যেন নিরবচ্ছিন্ন হয়৷ বাচ্চাকেই শেখান নিজের ‘স্টাডি জোন’-এর যত্ন নিতে৷

    আরও পড়ুন : স্বাদ ও উপকারিতায় জুড়িহীন, শীতে ভাল থাকতে খেতেই হবে এই পাঁচটি খাবার

    এখন শিক্ষাব্যবস্থায় প্রবলভাবে এসে গিয়েছে ‘স্মার্ট স্কুলিং’৷ পাওয়ার পয়েন্ট, ভিডিও, অডিও মাধ্যমে শেখানো হচ্ছে৷ বাচ্চা একটু বড় হয়ে গেলেও শুধু নোটস না দিয়ে ওকে এই মাধ্যমে পড়াশোনা করান৷ পড়াও হবে, আবার একঘেয়েমিও কাটবে৷

    আরও পড়ুন : শীতে সুস্থ থাকতে নিয়মিত বেশি করে খান মাছের তেল

    স্কুলে যাওয়া বন্ধ মানে সারা দিন কোনও রুটিনও নেই-এই ধারণা যেন বাচ্চার মনে তৈরি না হয়ে যায়৷ বাড়িতেও রুটিন তৈরি করুন ওর জন্য৷ দিনের কোন সময় কোন কাজ করবে, সে সব নির্দিষ্ট করে দিন৷

    আরও পড়ুন : সামনেই বিয়ে? দাম্পত্য মসৃণ রাখতে মনে রাখুন এই কথাগুলি

    পড়াশোনার পদ্ধতি নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করতেই পারেন৷ কিন্তু সাহায্য করার নামে ক্ষতি করবেন না৷ আড়াল থেকে উত্তর বলে দেওয়া, পরীক্ষা দেওয়ার সময় সাহায্য করা বা কোনও অনৈতিক উপায়ে পরীক্ষা দিতে দেবেন না৷ এক বার এই ফাঁকির প্রলোভনের ফাঁদে পা দিলে কিন্তু অপূরণীয় ক্ষতি হবে৷ পরে অফলাইন ক্লাস শুরু হলে সেই লোকসান সামলে ওঠা যাবে না৷

    অনলাইন ক্লাস হয়ে গেলে শিক্ষক বা শিক্ষিকা যখন লগ আউট করতে বলছেন, তার পর বাচ্চাকে আর মোবাইল বা ইন্টারনেটের কোনও মাধ্যমের সামনে রাখবেন না৷ মনে রাখুন, লগ আউট মানে সত্যি ইন্টারনেট থেকে কিছু ক্ষণের জন্য লগ আউট৷ সে সময় চোখ এবং মস্তিষ্ককে বিশ্রাম দিন৷ পরে আবার বাচ্চাকে পড়াতে বসান৷ সন্ধ্যায় হোমওয়ার্ক, রিভিশন সবই করান৷ স্কুলে না গেলেও পুরনো অভ্যাস থেকে সম্পূর্ণ যেন বিস্মৃত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখুন৷ প্রয়োজন ছাড়া ফোন-সহ অন্য ডিভাইসের সঙ্গে বাচ্চাকে বেশি সময় কাটাতে দেবেন না৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Online class

    পরবর্তী খবর