• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Tapsee Pannu | Weight loss : তাপসী পান্নুর রহস্যময় সানসেট ড্রিঙ্কে না কি তরতর করে ওজন কমে! কেমন সেই পানীয়?

Tapsee Pannu | Weight loss : তাপসী পান্নুর রহস্যময় সানসেট ড্রিঙ্কে না কি তরতর করে ওজন কমে! কেমন সেই পানীয়?

Photo - Instagram

Photo - Instagram

Tapsee Pannu | Weight loss : এই পানীয়ের কল্যাণেই না কি তাঁর বাড়তি চর্বি আর মেদ সব ঝরে গিয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: অভিনয়ের দুনিয়ায় তাপসী পান্নু (Taapsee Pannu) একটি উজ্জ্বল নাম। কোনও ফিল্ম পরিবার থেকে না এসেও তিনি শুধুমাত্র নিজের প্রতিভা দিয়ে বলিউডে সাফল্য অর্জন করেছেন। শুধুমাত্র তথাকথিত বাণিজ্যিক ছবি নয়, অন্য ধারার ছবিতেও উজ্জ্বল তিনি। বার বার ওজন কমিয়ে বা বাড়িয়ে নিতে দক্ষ তাপসী সম্প্রতি তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন এক সিক্রেট ড্রিঙ্কের খবর। যাকে তিনি সানসেট ড্রিঙ্ক (Sunset Drink) বলে চিহ্নিত করেছেন। এই পানীয়ের কল্যাণেই না কি তাঁর বাড়তি চর্বি আর মেদ সব ঝরে গিয়েছে। অবশ্য, পানীয়র ব্যাপারে কোনও রহস্য জিইয়ে রাখেননি নায়িকা, সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন তার উপাদানের বিষয়ে। বলেছেন যে এই ড্রিঙ্ক তৈরি হয়েছে কাঁচা ও অপরিশোধিত অ্যাপল সাইডার ভিনিগার (Apple Cider Vinegar), মেথি (Fenugreek), হলুদ (Turmeric) এবং আদা (Ginger) দিয়ে।

তাপসী জানিয়েছেন যে হলুদ ও আদা প্রদাহ রোধ করে। রশ্মি রকেট (Rashmi Rocket) ছবির শুটিংয়ে কঠিন প্রশিক্ষণের সময় তাঁর পেশিতে খুব ব্যথা হত। এই ড্রিঙ্ক সেই ব্যথা কম করেছে।

এই পানীয়ের উপকারিতা কী কী?

অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার

আপেল সাইডার ভিনিগারের রয়েছে বিভিন্ন স্বাস্থ্য উপকারিতা। এটি কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্য রক্ষা করে এবং দীর্ঘ সময়ের জন্য পেট ভর্তি রাখতে সাহায্য করে। ফলে যখন তখন উল্টোপাল্টা খাওয়া হয় না। তাই ওজন এমনিতেই কমে যায়। যদি প্রথমবার অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার ট্রাই করা হয়, তাহলে একটু সচেতন থাকতে হবে। কারণ প্রথমবার অম্বল ও হজমের সমস্যা হতে পারে। এটি সরাসরি পান না করে জল মিশিয়ে পান করতে হবে।

আরও পড়ুন- মাথা গরমে নিজেকে ঠিক রাখতে পারেন না! এই ৬ খাবারে রাগ নিয়ন্ত্রণ করুন

মেথি

মেথি বীজ স্বাস্থ্য রক্ষায় যুগ যুগ ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। মানুষের স্বাস্থ্যে একেকজনের ক্ষেত্রে কম-বেশি তারতম্য হতে পারে, কিন্তু কিছু গবেষণা বলছে যে মেথির বীজ খিদে কমায়, তৃপ্তি বাড়ায় এবং ক্যালোরি গ্রহণ কমিয়ে ওজন কমাতে সাহায্য করে।

আদা

২০১৭ সালের পর্যালোচনা অনুসারে, আদার মধ্যে রয়েছে জিঞ্জেরোন এবং শোগাওল নামক যৌগ যা ওজন কমাতে সাহায্য করে। অন্য একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে স্থূলতায় আক্রান্ত মহিলারা যাঁরা ১২ সপ্তাহ ধরে প্রতি দিন ১ গ্রাম আদা খেয়েছেন, তাঁদের খিদে ও ওজন কমে গিয়েছে।

আরও পড়ুন- শীতে গর্ভবতী হলে প্রয়োজন অতিরিক্ত সতর্কতা! সুস্থ থাকতে এই ৬টি বিষয় মেনে চলুন

হলুদ

গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে হলুদ ওজন কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। হলুদে কারকিউমিন থাকে যা প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে এবং স্থূলতার ক্ষেত্রে, বিশেষ করে ওজন কমাতে বড় ভূমিকা পালন করে।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: