• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • বাড়িতে তৈরি এই তেলের গুণ-ই আলাদা; মসৃণ মেঘবরণ চুলের সৌন্দর্য থাকবে হাতের মুঠোয়

বাড়িতে তৈরি এই তেলের গুণ-ই আলাদা; মসৃণ মেঘবরণ চুলের সৌন্দর্য থাকবে হাতের মুঠোয়

Simple Hair Oil to Get Long Hair: নিয়মিত একটু যত্ন আর বাড়িতে তৈরি তেল চুলে লাগালেই হবে শতেক মুশকিল আসান।

Simple Hair Oil to Get Long Hair: নিয়মিত একটু যত্ন আর বাড়িতে তৈরি তেল চুলে লাগালেই হবে শতেক মুশকিল আসান।

Simple Hair Oil to Get Long Hair: নিয়মিত একটু যত্ন আর বাড়িতে তৈরি তেল চুলে লাগালেই হবে শতেক মুশকিল আসান।

  • Share this:

#কলকাতা: কুঁচবরণ কন্যা, তার মেঘবরণ চুল! ভুরু কুঁচকে আপনি বলবেন যে ওসব গাল ভরা কথা শুধুমাত্র রূপকথাতেই শোনা যায়। আর সেই রূপকথা যদি আপনার জীবনে সত্যি হয় তাহলে কেমন হয়? আসলে সুন্দর উজ্জ্বল চুলের জন্য একগাদা পয়সা খরচ করার দরকার নেই। নিয়মিত একটু যত্ন আর বাড়িতে তৈরি তেল চুলে লাগালেই হবে শতেক মুশকিল আসান।

বাজারচলতি অসংখ্য তেল আছে যা দাবি করে আপনার চুল সুন্দর, নরম আর উজ্জ্বল করে দেওয়ার। তবে এই সব তেলে মেশানো থাকে কৃত্রিম সুগন্ধ ও রঙ, মেশানো থাকে ক্ষতিকর রাসায়নিক। অর্থাৎ এরা একদিকে চুল সুন্দর করে, অপর দিকে ধীরে ধীরে আপনার চুল নষ্ট করে দেয়। যখন বোঝা যায়, তখন অনেকটাই দেরি হয়ে গিয়েছে। অতএব বাজারচলতি তেলের ঝাঁ চকচকে বিজ্ঞাপনে না ভুলে বাড়িতেই সহজলভ্য উপাদান দিয়ে তেল তৈরি করে নিতে পারেন।

আরও পড়ুন-নোরাকে বিলাসবহুল গাড়ি উপহার দিয়েছিলেন আর্থিক তছরূপ মামলায় মূল অভিযুক্ত সুকেশ ! সন্দেহ ইডি-র

কী ভাবে তৈরি করতে হবে এই তেল?

প্রথমে নিতে হবে ২০০ এমএল নারকেল তেল। কারণ চুলের যত্নে নারকেল তেলের চেয়ে ভালো আর কিছু হতে পারে না। এবার নিতে হবে ১০০ এমএল অলিভ অয়েল। পরের উপাদান হল ৫০ এমএল আমন্ড অয়েল। এবার ৩০ এমএল ক্যাস্টর অয়েল নিতে হবে। এর মধ্যে দিতে হবে পাঁচখানা জবা গাছের পাতা। জবা গাছের পাতা চুল পড়া ও খুসকি রোধ করে। এছাড়া সময়ের আগে চুল পেকে যাওয়াও বন্ধ করে এই পাতা। আমলকী বা আমলার রস মেশাতে হবে ৩০এমএল মতো। ২০ খানা নিমপাতা এর মধ্যে দিতে হবে। নিমপাতা অবশ্যই কাজ করবে অ্যান্টিসেপটিক হিসাবে। তাছাড়া এই পাতা উকুন ও খুসকিও রোধ করে।

মডেল- সুস্মিতা সেনগুপ্ত ঘোষ মডেল- সুস্মিতা সেনগুপ্ত ঘোষ

তৈরি করার পদ্ধতি

সব রকমের তেল একসঙ্গে মিশিয়ে একটি পাত্রে নিয়ে দশ মিনিট মতো ফুটিয়ে নিতে হবে। এই তেলের মধ্যে অবশ্যই অন্যান্য উপাদান যেমন নিমপাতা, জবাপাতা ও আমলা রস থাকবে। দশ মিনিট ফুটিয়ে আঁচ বন্ধ করে তেল ঠাণ্ডা হতে দিতে হবে। ঠাণ্ডা হলে ছেঁকে নিতে হবে এই তেল। তার পর কাচের বোতলে করে রেখে দিতে হবে। এই তেল নিয়মিত চুলে লাগাতে হবে, তফাত বোঝা যাবে কিছু দিনের মধ্যেই!

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: