সাবধান! ডেটে যাওয়ার আগে এই কাজগুলো করলে পালাবে পছন্দের মানুষও!

হয় তো চরিত্রের বিশেষ কিছু নেগেটিভিটি অথবা ডেসপারেট স্বভাবের জন্য আমাদের এখনও সিঙ্গলের তক্‌মা বয়ে বেড়াতে হচ্ছে।

হয় তো চরিত্রের বিশেষ কিছু নেগেটিভিটি অথবা ডেসপারেট স্বভাবের জন্য আমাদের এখনও সিঙ্গলের তক্‌মা বয়ে বেড়াতে হচ্ছে।

  • Share this:

ভালোবাসা নিয়ে একটু-আধটু স্বপ্ন আমাদের সকলেরই থাকে। কিন্তু পছন্দের সেই ‘বিশেষ’ মানুষটির জন্য অনেকগুলো বছর প্রতীক্ষায় কেটে যায়। আবার হয় তো চরিত্রের বিশেষ কিছু নেগেটিভিটি অথবা ডেসপারেট স্বভাবের জন্য আমাদের এখনওসিঙ্গলের তক্‌মা বয়ে বেড়াতে হচ্ছে। আসুন জেনে নিই সম্পর্ক আগলে রাখতে কোন কোন বিষয়গুলো এড়িয়ে চলা খুবই দরকার!

বার বার প্ল্যান চেক করা

নিঃসন্দেহে নতুন সম্পর্ক নিয়ে আমরা একটু আত্মবিশ্বাসী হতে চাই। অথবা সম্পর্কে সিরিয়াস হওয়ার আগে পছন্দের মানুষটির মনের কথা জানতে চাই। নতুন সম্পর্ক, কাছাকাছি আসার সুযোগ এই সব কিছু মিলিয়ে ক্রমাগত আমাদের উত্তেজনার পারদ চড়তে থাকে। এখানেই বিপদ ঘটে যাওয়ার সম্ভাবনা ষোল আনা। অতিরিক্ত এক্সাইটমেন্ট কিন্তু উল্টোদিকের মানুষটির কাছে আমাদের ডেসপারেট করে তোলে।

প্রয়োজনের অতিরিক্ত কন্ট্যাক্ট করা

পছন্দের মানুষের সঙ্গে কথা বলার আনন্দই আলাদা। কিন্তু ভেবে দেখতে আমাদের ভালোলাগা যেন অন্যের কাছে বিরক্তিকর হয়ে না দাঁড়ায়।

সম্পর্কে অতিরিক্ত গুরুত্ব দেওয়া

যে কোনও সম্পর্কে প্রথম পদক্ষেপ নিতে পারার মধ্যে একটা গর্বের ব্যাপার তো থাকেই। তবে সব সময় নিজে থেকে যোগাযোগের দায়িত্ব নিতে গিয়ে উল্টোদিকের মানুষটির কাছে আমরা মূল্যহীন হয়ে যেতে পারি।

রিপ্লাই পাওয়ার ধৈর্য না রাখা

এটা নিয়ে আমাদের বেশ চিন্তা-ভাবনা করা দরকার। কেন না এই রকম অভ্যেস আশেপাশের অনেকেরই রয়েছে। হয় তো সরাসরি ডেট করার কথা জিজ্ঞেস না করলেও পুরনো মেসেজের সূত্র ধরে বারে বারে একই জায়গায় আটকে থাকলে আখেরে আমাদেরই ইমেজ নষ্ট হবে।

সমস্ত পোস্ট লাইক বা রিপোস্ট করা

সারাক্ষণ পার্টনারের নতুন বা পুরনো সব পোস্ট লাইক অথবা রিপোস্ট করা সত্যিই খানিকটা বিরক্তিকর। এক্ষেত্রে অন্যদিকের মানুষটির ভুল বোঝার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তখন পছন্দ করা তো দূরের কথা, আমাদের কপালে বরং স্টকারের তক্‌মা জুটে যেতে পারে।

অনুমতি ছাড়াই ডেট করার সিদ্ধান্ত নেওয়া

সাধারণত প্রথম ডেটে অসম্ভব ভালো কিছু মুহূর্ত কাটানোর পর দ্বিতীয় ডেটের প্ল্যান করা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে অন্যদিকের মানুষটির অনুমতি নেওয়া বা তার সঙ্গে পরামর্শ নিয়ে কাজ করাই ভালো। কিন্তু অনেক সময় অতিরিক্ত উৎসাহে নিজে থেকে নেক্সট ডেট প্ল্যান করলে পছন্দের মানুষটি কিন্তু নাক সিঁটকোতে পারে।

প্রথম সাক্ষাতেই নিজেকে উজাড় করে দেওয়া

ধরা প্রথম ডেটিং-এর দিন, আর আমরা কথার মাঝখানে ক্রমাগত নিজেদের বিষয়ে যাবতীয় ইনফরমেশন দিয়ে যাচ্ছি। ফলে উল্টোদিকের মানুষটির বিরক্তি আসা কিন্তু স্বাভাবিক। সব চেয়ে বড়ো কথা, এতে করে অনেক অপ্রয়োজনীয় মানুষের কাছে আমরা স্রেফ নিজেদের ইমেজ নষ্ট করি।

Published by:Simli Raha
First published: