• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Keeping hands and feet warm in winter: দোরগোড়ায় শীত, হাত ও পায়ের পাতা উষ্ণ রাখতে কিছু সহজ নিয়ম

Keeping hands and feet warm in winter: দোরগোড়ায় শীত, হাত ও পায়ের পাতা উষ্ণ রাখতে কিছু সহজ নিয়ম

Steps to keep hands and feet warm: একাধিক উপায় আছে, যাতে হাত ও পায়ের তাপমাত্রা ধরে রাখা যায়

Steps to keep hands and feet warm: একাধিক উপায় আছে, যাতে হাত ও পায়ের তাপমাত্রা ধরে রাখা যায়

একাধিক উপায় আছে, যাতে হাত ও পায়ের তাপমাত্রা ধরে রাখা যায়(How to keep hands and feet warm in winter )

  • Share this:

    আমাদের মধ্যে অনেকেরই শীতকালে যেন কাঁপুনি (winter trembling) থামতেই চায় না৷ সব সময়ই তাঁদের ঠান্ডা লাগছে৷ এছাড়া হাত এবং পায়ের চেটো তো ঠান্ডা হয়েই থাকে৷ শরীরের অন্য অংশের তুলনায় হাত এবং পা শীতে বেশি ঠান্ডা হয়ে থাকে৷ কারণ এই দুই অংশে রক্ত সঞ্চালন (blood circulation) কমতে থাকে৷ এতে ভয় পাওয়ার কিছু নেই৷ একাধিক উপায় আছে, যাতে হাত ও পায়ের তাপমাত্রা ধরে রাখা যায়(How to keep hands and feet warm in winter )৷

    হাত ও পা যদি বেশি ঠান্ডা হয়ে থাকে, তাহলে শীতে সব সময় ফুলহাতা জামা ও ফুলপ্যান্ট পরুন৷ বাইরে বার হলে প্রয়োজনীয় গরম জামা এবং মোজা পরতে হবে৷ উলের পোশাকের প্রভাবে শরীরের তাপমাত্রা ধরা থাকে৷ হাত ও পায়ের পাতাও গরম থাকে৷

    আরও পড়ুন : অনিয়মিত ঋতুস্রাব এবং প্রতি মাসের যন্ত্রণা নিয়ন্ত্রণে নিয়মিত খান এই খাবারগুলি

    শীতকাল বলে শরীরচর্চায় বিরতি দেবেন না৷ বরং, শীতেই শরীরচর্চা বেশিক্ষণ করা যায়৷ উপযুক্ত গরম জামা পড়ে সকালে হাঁটতেও যান৷ নিয়মিত হাঁটার ফলে দেহে রক্ত সঞ্চালন ঠিক থাকে৷

    যদি গরম পোশাকে কাজ না হয়, ব্যবহার করুন হিটিং প্যাড৷ সবথেকে ভাল হয় যদি বৈদ্যুতিন হিটিং প্যাড কাজে লাগান৷ বাজারে অনেক ধরনের হিটিং প্যাড পাওয়া যায়৷ ফিরে যেতে পারেন হাতে ও পায়ে গরম তেল মালিশ করার পুরনো রীতিতেও৷ আপনার ত্বকে সহ্য হয় এরকম তেল ঈষদুষ্ণ করে মালিশ করুন হাতের ও পায়ের পাতায়৷ আঙুলের ফাঁকেও ভাল করে তেলের প্রলেপ দিতে ভুলবেন না৷ এর ফলে অক্সিজেনের যোগান ঠিক থাকে৷ হাত ও পায়ের ত্বকের সংক্রমণ এবং আড়ষ্টতা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়৷

    আরও পড়ুন : মধুমেহ-সহ আর কোন অসুখে সাদা চালের বদলে ব্রাউন রাইস খাওয়া উপকারী?

    শরীরের তাপমাত্রা ধরে রাখার ক্ষেত্রে সৈন্ধব লবণও খুব কার্যকর৷ গরম জলে সৈন্ধব লবণ ফেলে তাতে দু’ পা ডুবিয়ে রাখুন৷ ভাল করে মালিশ করে নিয়ে শুকনো তোয়ালে দিয়ে পা মুছে ক্রিম মেখে নিন৷ এতে পা ভালও থাকবে৷ আবার ঠান্ডা হয়ে যাওয়ার সমস্যাও থআকবে না৷ রাতে ঘুমনোর আগে এভাবে পায়ের যত্ন নেওয়ার পর সুতির মোজা পরে ঘুমোতে যান৷ এতে পা ফাটবেও না ৷ আবার শীতল অনুভূতিও থাকবে না৷ তবে নাইলনের মোজা নৈব নৈব চ৷

    আরও পড়ুন : নামমাত্র খরচে অন্দরসজ্জা ও দূষণমুক্তি, ঘরে রাখুন অ্যারালিয়া

    শীতকালে অনেকেরই জলপানের পরিমাণ কমে যায়৷ এ সময়ে জলপান কমাবেন না৷ জলপানের ফলে দেহে ব্লাড সার্কুলেশন ঠিক থাকে৷ ধরা থাকে প্রয়োজনীয় তাপমাত্রাও৷ ফলে ঠান্ডার অনুভূতি কম হয়৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: