Home /News /life-style /
World Heart Day: হৃদরোগে আক্রান্ত হলে মহিলাদের বুকে ব্যথা নয়, দেখা যায় অন্য রকম উপসর্গ!

World Heart Day: হৃদরোগে আক্রান্ত হলে মহিলাদের বুকে ব্যথা নয়, দেখা যায় অন্য রকম উপসর্গ!

Representational Image

Representational Image

Prominent heart disease symptoms in women: মহিলাদের ক্ষেত্রে কার্ডিওভাসকুলার রোগ (CVD)-এর মূল উপসর্গ কী, আর পুরুষদের তুলনায় সেটা কতটাই বা আলাদা?

  • Share this:

#কলকাতা: প্রতি বছর গোটা দুনিয়ায় প্রায় ১৮.৬ মিলিয়ন মানুষ মারা যান হৃদযন্ত্রের নানাবিধ অসুখে (Heart Disease)। এমনটাই দাবি করেছে ওয়ার্ল্ড হার্ট ফেডারেশন (World Heart Federation)। হৃদযন্ত্রের মারণ অসুখের মধ্যে উল্লেখযোগ্য- হার্ট অ্যাটাক, কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট, হাইপারটেনশন, অ্যারিদমিয়া প্রভৃতি। আর হৃদযন্ত্রের অসুখের উপসর্গ নিয়ে একটা প্রচলিত ধারণা রয়ে গিয়েছে মানুষের মধ্যে। আসলে অনেকেই ভাবেন যে, হাত এবং বুকে ব্যথা মানেই নির্ঘাত হৃদযন্ত্রের সমস্যা দেখা দিয়েছে।

তবে আজ এই বিশ্ব হৃদযন্ত্র দিবসে (World Heart Day) এই প্রচলিত ধারণাগুলি ভাঙতে হবে। তাই এই বিষয়ে সবার প্রথম যেটা বলতে হয়, সেটা হল- মহিলাদের ক্ষেত্রে হৃদরোগের উপসর্গগুলি কিন্তু পুরুষদের তুলনায় আলাদা। তাই জেনে নেব, মহিলাদের ক্ষেত্রে কার্ডিওভাসকুলার রোগ (CVD)-এর মূল উপসর্গ কী, আর পুরুষদের তুলনায় সেটা কতটাই বা আলাদা!

আরও পড়ুন- সকলের চোখের সামনেই যাত্রীদের নিয়ে জলে ডুবল বাস ! মৃত ১, দেখুন ভাইরাল ভিডিও

মহিলারা কি অন্য ভাবে হৃদরোগের আভাস পান?

সাধারণত পুরুষেরা যে ভাবে হৃদরোগের আভাস পান, মহিলারা কিন্তু সে ভাবে হৃদরোগের আভাস পান না। যদিও চিকিৎসা পদ্ধতি পুরুষ-মহিলা উভয়ের ক্ষেত্রে একই হয়। তাই উপসর্গের পার্থক্য এবং রিস্ক ফ্যাক্টর যত ভালো ভাবে বোঝা যায়, চিকিৎসার ক্ষেত্রেও তত বেশি সুবিধা হয়। কারণ সময়ে চিকিৎসা শুরু হয়ে গেলে ক্ষতি অথবা মৃত্যুর ঝুঁকি অনেকাংশে কমে যায়।

মহিলাদের হৃদরোগের ক্ষেত্রে উপসর্গ:

হৃদরোগ একটা কোনও নির্দিষ্ট রোগ নয়। আমরা আসলে হৃদযন্ত্রের নানা রকম অসুখকে এক কথায় হৃদরোগ বলে থাকি। ফলে, করোনারি আর্টারির রোগ, হাইপারটেনশন, হার্ট ফেলিওর - এ সবই হৃদরোগের তালিকায় পড়ে। রক্তবাহী ধমনীতে যদি কোলেস্টেরল জমা হয়, তখন সেই অবস্থাকে অ্যাথেরোস্ক্লেরোসিস বলা হয়। যার কারণে রক্ত চলাচলে ব্যাঘাত ঘটে। এই রোগ হলে একটা সময় হৃদযন্ত্রে পর্যাপ্ত অক্সিজেন পৌঁছয় না। সেই সঙ্গে হৃদযন্ত্র নিউট্রিয়েন্টস সমৃদ্ধ রক্তও পায় না, ফলে হৃদযন্ত্রের কর্মক্ষমতা কমতে শুরু করে। এই অবস্থাকে ইস্কিমিয়া বলা হয়ে থাকে। আর এর ফলে রোগী বুকে ব্যথা অনুভব করেন।

আরও পড়ুন- এই খাবারেই কমবে কোলেস্টেরল সমস্যা, দূরে থাকবে হৃদরোগ

যদিও হৃদরোগে বুকে ব্যথার মতো উপসর্গ পুরুষদের ক্ষেত্রেই দেখা যায়। তবে মহিলাদের ক্ষেত্রে উপসর্গ অন্য রকম হয়। আর একটা বিষয়, সেটা হল- মহিলাদের হৃদরোগ হলে তাঁরা পুরুষদের তুলনায় পরে এই উপসর্গ টের পান।

মহিলাদের হৃদরোগের উপসর্গগুলির মধ্যে অন্যতম হল-

হাতের উপরের দিকে এবং পিঠে ব্যথা

বমি বমি ভাব

অবসন্ন লাগা অথবা ক্লান্তি অনুভব করা

অল্পেতেই হাঁপিয়ে ওঠা অথবা শ্বাস-প্রশ্বাসে অসুবিধা

মাথা ঘোরা

দ্রুত গতিতে হৃদস্পন্দন

বুক ধড়ফড় করা

চোয়াল এবং ঘাড়ে ব্যথা

হাত-পা ঠান্ডা হয়ে ঘাম বেরোনো

অনিয়মিত হৃদস্পন্দন

অস্বাভাবিক রকম ক্লান্তিবোধ হওয়া

ফলে, শরীরে যদি এই ধরনের উপসর্গ প্রকট হয়ে ওঠে, দেরি না-করে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করাতে হবে। তবেই কমানো যাবে হৃদরোগের ঝুঁকি ৷

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: World Heart Day

পরবর্তী খবর