• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Remedies for Hang Over : এই ঘরোয়া টোটকাতেই পার্টির পর দিন সকালে দূর হবে হ্যাং ওভারের আচ্ছন্নভাব

Remedies for Hang Over : এই ঘরোয়া টোটকাতেই পার্টির পর দিন সকালে দূর হবে হ্যাং ওভারের আচ্ছন্নভাব

হ্যাংওভারের কারণে বিরক্ত লাগলেও পরের দিন সকালে সময়মতো প্রাতরাশ সারতে হবে

হ্যাংওভারের কারণে বিরক্ত লাগলেও পরের দিন সকালে সময়মতো প্রাতরাশ সারতে হবে

Remedies for Hang Over : পার্টিতে হুল্লোড় করলেও সমস্যা দেখা দেয় পরের দিন ঘুম ভেঙে উঠে কাজে যোগ দিতে (party hangover)৷রইল বেশ কিছু ঘরোয়া টোটকা, যেগুলির সাহায্যে আপনি হ্যাংওভারের ঘোর থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন৷

  • Share this:

    পার্বণে পার্টি (party n festive season ) এখন বঙ্গজীবনের অঙ্গ৷ শুধু শীতের বড়দিন নয়৷ এখন সারা বছরই পার্টি হয় নানা উপলক্ষে৷ পার্টিতে হুল্লোড় করলেও সমস্যা দেখা দেয় পরের দিন ঘুম ভেঙে উঠে কাজে যোগ দিতে (party hangover)৷ কারণ দীর্ঘ ক্ষণ ঘিরে থাকে হ্যাং ওভারের আচ্ছন্নভাব (drowsiness)৷ সঙ্গী হয় ডিহাইড্রেশন, ক্লান্তি, বমি বমি ভাব এবং পেশিতে যন্ত্রণা৷ রইল বেশ কিছু ঘরোয়া টোটকা, যেগুলির সাহায্যে আপনি হ্যাংওভারের ঘোর থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন৷

    আরও পড়ুন : হাজারো সমস্যার সমাধান করে আপনার চুল ও ত্বকের সৌন্দর্যের গোপনরহস্য লুকিয়ে জবাফুলেই

    হ্যাংওভার কাটনোর প্রথম ও প্রাথমিক শর্ত হল প্রচুর জলপান করা৷ তা হলে শরীর সতেজ থাকবে৷ মদ্যপান করার সময়েও জলপান করতে ভুলবেন না৷ কারণ অ্যালকোহলের প্রভাবে শরীর শুকিয়ে গিয়ে ডিহাইড্রেশন হয়৷ মদ্যপানের জেরে বেড়ে যায় মূত্রত্যাগে পরিমাণও৷ ফলে শরীর ফ্লুইডশূন্য হয়ে যেতে পারে৷ তাই মদ্যপান করলে বেশি জল খেতে ভুলবেন না৷

    হ্যাংওভারের কারণে বিরক্ত লাগলেও পরের দিন সকালে সময়মতো প্রাতরাশ সারতে হবে৷ তা হলে শরীরে শর্করার মাত্রা ঠিক থাকবে৷ পাশাপাশি প্রোটিন, স্নেহজাতীয় পদার্থ এবং ভিটামিনের যোগানও বজায় থাকে৷

    আরও পড়ুন : আবেদন অফুরান; দীপাবলি হোক বা ভাইফোঁটা, ঝলমলে সাজের জন্য বেছে নিতে পারেন এই পাঁচ বুনন

    হ্যাংওভার কাটতে পর দিন সকালে পান করতে পারেন জিঞ্জার টি বা আদা চা৷ কারণ অ্যালকোহলের প্রভাবে পেটের গণ্ডগোল দেখা দিতে পারে৷ সেক্ষেত্রে আদা চা উপশমকারী৷ আদার সঙ্গে চায়ে দিতে পারেন মধুও৷ তাহলে আপনার শরীরে থাকা অ্যালকোহল দূর করতে সাহায্য করবে এই উপাদান৷ যদি আদা চা খাওয়া না হয়, আপনি মুখে রাখতে পারেন এক খণ্ড আদাও৷

    আরও পড়ুন : দীপাবলির ভুরিভোজে বদহজমের ভয়? সঙ্গী হোক এই ঘরোয়া টোটকা

    জলের সঙ্গে শরীরে যাতে নুন ও চিনির ভারসাম্য ঠিক থাকে, খেয়াল রাখতে হবে সেদিকেও৷ তার জন্য পান করুন এক পেয়ালা নারকেলের জল৷ বলা হয়, বেশিরভাগ স্পোর্টস ড্রিঙ্কের তুলনায় নারকেলের জলে ইলেকট্রোলাইটস বেশি৷ ফলে পেটের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন দ্রুত৷

    অ্যালকোহল পানের ফলে শরীর থেকে বেশ কিছুটা খনিজ এবং ইলেকট্রোলাইট বেরিয়ে যায়৷ তাই হ্যাংওভার দূর করতে এবং সেই খনিজ ও ইলেকট্রোলাইটসের অভাব মেটাতে কলা খেয়ে নিন৷ তা হলে ব্যাহত হবে না পটাশিয়ামের মাত্রাও৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: