Home /News /life-style /
Coffee : বেশি খেলে ক্ষতি তো হবেই, বরং এনার্জির জন্য কফি ছাড়া আর কী কী খাওয়া যায়?

Coffee : বেশি খেলে ক্ষতি তো হবেই, বরং এনার্জির জন্য কফি ছাড়া আর কী কী খাওয়া যায়?

coffee

coffee

Coffee : বেশি পরিমাণে চিনি ও ক্যাফিন শরীরের ক্ষতি করতে পারে। তাহলে কফি ছাড়া আর কী খাওয়া যায়?

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সারাদিন কাজ করার পর প্রচণ্ড ক্লান্তি লাগছে, এদিকে এখনও অফিসের বেশ কিছু মেইল পাঠাতেই হবে। এই ক্লান্তি ভাব কাটাতে অনেকেই হাতে তুলে নেয় কফির কাপ। এই করতে করতে দিনে প্রায় ৩ ৪ কাপ তো হয়েই যায়। তাতে সারাদিনের এনার্জি তো পাওয়াই যায় এছাড়াও ঘুম আসে না, শরীরের অস্বস্তিগুলোও কেটে যায়। কিন্তু এত বেশি পরিমাণে চিনি ও ক্যাফিন শরীরের ক্ষতি করতে পারে। তাহলে কফি ছাড়া আর কী খাওয়া যায়?

অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার

অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার হল এমন একটি জিনিস যা শুধু শরীরকে সতেজই রাখে না, ওজনও কমায়। নিমেষে দূর করে সারাদিনের ক্লান্তি। যারা ডায়বেটিক পেশেন্ট অর্থাৎ যাদের সুগার আছে তাদের জন্য অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার খুবই ভালো। কারণ এটি সুগার লেভেল কমাতে সাহায্য করে। জলের মধ্যে এক চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার দিনে যতবার ইচ্ছে খেলেও তা শরীরে কোন ক্ষতি করবে না।

মাচা টি

মাচা টি বিষয়টি এসেছে আসলে জাপান থেকে। এখন এখানেও মাচা টি পাওয়া যায়। এতেও ক্যাফিন থাকে তবে চা-কফির মতো এত বেশি পরিমাণে নয়। তাই এটি রোজ খাওয়া যেতে পারে। সবুজ রঙের এই চা-টি শরীরের জন্য ভালো। একটু উষ্ণ গরম জলে এক বা দুই চামচ মিশিয়ে খাওয়া যেতে পারে।

আরও পড়ুন- সুস্বাদু নিশ্চয়ই, কিন্তু বেশি পালং শাক খেয়ে শরীরের বিপদ ডেকে আনছেন না তো?

হট কফি

এই শীতকালে অলস সকাল থেকে নিজেকে জাগিয়ে তোলার জন্য দরকার কফি। তবে এমনি কফি না খেয়ে খাওয়া যেতে পারে হট কফি। সরাসরি কফি খাওয়ার থেকেও ছুটকারা পাওয়া যায়।

স্মুদি

কফির যায়গায় ব্যাবহার করা যায় ফল। বিভিন্ন ফল মিশিয়ে তৈরি করা যায় স্মুদি। ফল সবসময়েই পুষ্টিকর খাবার। তার সঙ্গে দুধ, কলা বা বাদামও মেশানো যেতে পারে।

আরও পড়ুন- PCOS-এ আক্রান্ত হলে ওজন বাড়তে থাকে মহিলাদের! কী খাবেন, কী খাবেন না? জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা

দুধ হলুদ

দুধ হলুদ খুবই পুষ্টিকর একটি খাবার। এতে থাকে আন্টিঅক্সিডেন্ট, যা শরীরের এনার্জি বাড়ায় এবং কাজ করার শক্তি দেয়। এতে মেশানো যেতে পারে আদা, গোলমরিচ ইত্যাদিও। তাতে স্বাদ বাড়ে।

রোজ বেশি পরিমাণে কফি খেলে তা অনেকসময় কোষ্ঠকাঠিন্য সৃষ্টি করতে পারে। এছাড়াও অনেক সময় শরীর শুকিয়ে যায়, ফলে নাক থেকে রক্তও পড়ে অনেকের। তাই কফি খেলেও পরিমাণ বুঝে খাওয়া উচিত।

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

Tags: Coffee

পরবর্তী খবর