• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • ব্রেক-আপের কত দিনের মাথায় আবার নতুন সম্পর্কে যাওয়া উচিৎ? কী বলছেন বিশেষজ্ঞ

ব্রেক-আপের কত দিনের মাথায় আবার নতুন সম্পর্কে যাওয়া উচিৎ? কী বলছেন বিশেষজ্ঞ

কিন্তু যে কোনও সম্পর্কে শুরু এবং শেষ থাকবেই, এই কথাটা যত তাড়াতাড়ি আমরা মেনে নিতে পারব তত দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে পা রাখা সম্ভব। ব্রেক আপের এই কয়েকটি স্তরে খুব সচেতন ভাবে নিজেকে সামলে রাখতে হয়। আসুন জেনে নিই এই পাঁচটি স্তর কী কী!

কিন্তু যে কোনও সম্পর্কে শুরু এবং শেষ থাকবেই, এই কথাটা যত তাড়াতাড়ি আমরা মেনে নিতে পারব তত দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে পা রাখা সম্ভব। ব্রেক আপের এই কয়েকটি স্তরে খুব সচেতন ভাবে নিজেকে সামলে রাখতে হয়। আসুন জেনে নিই এই পাঁচটি স্তর কী কী!

সম্পর্ক যখন আর থাকে না, তখন সেই এফর্ট, সেই সময়গুলোরও আর কোনও মূল্য থাকে না। সেই ব্যাপারটাই আমাদের কষ্ট দেয় সব চেয়ে বেশি।

  • Share this:

কোনও সম্পর্ক ভাঙলে আমাদের খারাপ লাগে কেন?

এর কারণটা অনুমান করে নিতে খুব একটা বেশি অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। আমরা অনেকেই ব্যক্তিগত সম্পর্ক গড়ে তোলার সময়ে অনেকটা এফর্ট দিয়ে থাকি। সেটা ভুল কিছু নয়। কিন্তু সেই সম্পর্ক যখন আর থাকে না, তখন সেই এফর্ট, সেই সময়গুলোরও আর কোনও মূল্য থাকে না। সেই ব্যাপারটাই আমাদের কষ্ট দেয় সব চেয়ে বেশি। আর তার জেরে অনেকে আবার নতুন কোনও সম্পর্কে যাওয়া নিয়ে সন্দিহান হয়ে পড়েন।

এই পর্বে বিশেষজ্ঞা পল্লবী বার্নওয়ালের পরামর্শ চেয়েছেন সেই রকম এক পাঠক, যাঁর সম্পর্ক কিছু দিন হল ভেঙে গিয়েছে। তিনি লিখেছেন যে এখনই নতুন কোনও সম্পর্কে যাওয়ার মতো সাহস তাঁর নেই, তিনি এখনই কাউকে মন দেওয়ার জন্য প্রস্তুত নন। পাঠকের জিজ্ঞাসা- এটা কি সঠিক সিদ্ধান্ত? বিষয়টাকে কি স্বাভাবিক বলা চলে?

এর মধ্যে যে ভুল কিছু নেই, তা স্পষ্টাস্পষ্টি জানাচ্ছেন পল্লবী। তাঁরও দাবি- একটা সম্পর্ক ভাঙার পরেই আরেকটা ঝাঁপ দেওয়া উচিৎ নয়। তা না হলে আগের সম্পর্কের তিক্ততা মন থেকে পুরোপুরি যায় না, নতুন সম্পর্কেও অবিশ্বাস কাজ করতে থাকে।

কিন্তু ঠিক কত দিন সময় নেওয়া উচিৎ, সে ব্যাপারে কোনও টাইমলাইন সেট করতে চাইছেন না পল্লবী। কেন না, এটা ব্যক্তিবিশেষের উপরে নির্ভর করে। যিনি যত তাড়াতাড়ি আগের সম্পর্কের তিক্ততা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন, সেটা তাঁর পক্ষে ভালো! কিন্তু নতুন সম্পর্ক গড়ে তোলা নিয়ে যে মনে কোনও সন্দেহ থাকা উচিৎ নয়, সেই কথাটা বেশ জোর দিয়েই বলছেন বিশেষজ্ঞা।

আসলে লোকজনের সঙ্গে ক্রমাগত মেলামেশা আমাদের একটা আত্মশ্লাঘার জায়গাও তৈরি করে দেয়। তাই পল্লবীর বক্তব্য- নিজেকে সামলানোর জন্য কিছু দিন নেওয়া যেতে পারে ঠিকই, কিন্তু তার পর ডেটিং বন্ধ করা উচিৎ হবে না। উল্টো দিকের মানুষটির সঙ্গে মেলামেশা যদি গাঢ় হয়, তখন নিজে থেকেই বোঝা যাবে যে সম্পর্কে যাওয়ার সময় হয়ে এসেছে। না হলে যেমন চলছে, তেমন চলতে দেওয়া ঠিক হবে বলেই জানাচ্ছেন তিনি!

Pallavi Barnwal

Published by:Ananya Chakraborty
First published: