Home Decor Tips: ঘরের মেঝে ফেলনা নয়, তাকে সাজিয়ে রাখতে নজর দিতে হবে এই বিষয়গুলোয়!

Home Decor Tips: ঘরের মেঝে ফেলনা নয়, তাকে সাজিয়ে রাখতে নজর দিতে হবে এই বিষয়গুলোয়!

ঘরের মেঝে মানে ফেলনা নয়, তাকে সাজিয়ে রাখতে নজর দিতে হবে এই বিষয়গুলোয়!

Home Decor Tips: বাড়ির অন্যান্য বিষয়ের মতো মেঝে সঠিক ভাবে সাজিয়ে তোলাও একটা বড় কাজ।

  • Share this:

আপনার বাড়ির মেঝের নকশা কেমন হবে সেটা চূড়ান্ত করার আগে, টেক্সচার, কী কী উপাদান ব্যবহার করা হচ্ছে এবং ফিনিশিং কেমন হল সেই সব বিষয়ে মনোযোগ দিতে হবে। বাড়ির অন্যান্য বিষয়ের মতো মেঝে সঠিক ভাবে সাজিয়ে তোলাও একটা বড় কাজ।

ঘরের মেঝের স্টাইল কেমন হওয়া উচিত, সেই বিষয়ে টিপস দিলেন গ্রেউইভ ডটকমের সিইও বিকাশ গুপ্ত।

বেছে নিন কাঠের ফ্লোর

কাঠের ফ্লোর এখন খুব জনপ্রিয় হয়েছে। মেপল উড থেকে শুরু করে সলিড ওকের যে কোনও রেঞ্জ বেছে নেওয়া যেতে পারে।

টেক্সচার যোগ করতে পারেন

বাড়ির ভিতর যদি চমকে দেওয়ার মতো করতে হয়, তাহলে বুদ্ধি করে টেক্সচার বেছে নিতে হবে। বিভিন রকম টেক্সচারের সঙ্গে বিভিন্ন জিনিস মিলিয়ে মিশিয়ে দেখতে পারেন সেটা কেমন লাগছে। টেক্সচার যদি সঠিক হয় তাহলে সেটা ঘরে অন্য মাত্রা যোগ করে এবং নাটকীয়তা তৈরি করে।

কার্পেট ট্রাই করে দেখতে পারেন

কাঠের মেঝে টাইল বসানো মেঝের মতো শক্তপোক্ত না হলেও এই রকম মেঝেতে খুব একটা আরাম নেই। তাই কাঠের মেঝের উপর যদি গালিচা বা কার্পেট ছড়িয়ে দেন, তাহলে সেটা দেখতেও ভালো লাগবে, আবার আরামদায়কও হবে।

বুদ্ধি করে রঙ বেছে নিতে হবে

প্রথম প্রথম যখন কাঠের মেঝে ফ্যাশনে এল তখন তার সঙ্গে খুব চড়া দাগের রঙ বেছে নেওয়ার চল ছিল। পরে সেই ট্রেন্ড পাল্টে যায়। এখন কাঠের মেঝের সঙ্গে নিউট্রাল রঙ বেছে নেওয়া হয়।

বাহারি ফিনিশিং

কাঠের মেঝে তৈরি করার কাজ যখন শেষ হচ্ছে তখন বাড়তি নজর দেওয়া দরকার। ম্যাট ফ্লোর গোটা ঘরের চিত্র পাল্টে দেয় সেই বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু এর সঙ্গে অয়েল ফিনিশ বা ডিফেন্সিভ লেয়ার যোগ হলে আরও ভালো লাগবে। তাছাড়া কাঠের মেঝে যাতে ড্যাম্প না হয়ে যায় বা তাতে কোনও দাগ না লাগে সেটাও দেখতে হবে।

সেরামিক টাইলের ব্যবহার

কাঠের মেঝে পছন্দ না হলে টাইল বেছে নিতে পারেন। এটা নানা আকারে নানা রঙে পাওয়া যায়।

মেঝেতে গাছপালা রাখতে পারেন

লাকি ব্যাম্বু, স্নেক প্লান্ট এর মতো ইনডোর গাছ গাছালি দিয়েও মেঝে সাজিয়ে রাখতে পারেন। এতে বাতাস শুদ্ধ হবে এবং দেখতেও ভালো লাগবে।

সর্বদা নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনার ফ্লোর যে কোনও রকমের পরিবর্তন মানিয়ে নেওয়ার যোগ্য কি না। দেখে নিতে হবে যে আপনি যা যা বেছে নেবেন তাতে রুমের বাকি সাজসজ্জার সঙ্গে যেন সেটা মানানসই হয়!

Published by:Piya Banerjee
First published: