• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • WEST BENGAL GOT 4 SKOCH AWARD INCLUDING PLATINUM AND GOLD MAMATA BANERJEE TWEETED SDG

SKOCH Award|| ব্যবসার জন্য আদর্শ বাংলাই, 'শিল্প সাথী'-তে প্ল্যাটিনাম-সহ ৪ 'স্কচ' সম্মান পেল রাজ্য

শিল্পসাথীতে প্ল্যাটিনাম-সহ ৪ 'স্কচ' সম্মান পেল রাজ্য ।

4 SKOCH Award for West Bengal: ফের বাংলার মুকুটে সেরার স্বীকৃতি। সরকারি ক্ষেত্রে ভাল কাজের জন্য জাতীয় স্তরের ৪টি পুরস্কার পেল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। মঙ্গলবার নিজেই ট্যুইট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjeee)।

  • Share this:

#কলকাতা: ফের বাংলার মুকুটে সেরার স্বীকৃতি। সরকারি ক্ষেত্রে ভাল কাজের জন্য জাতীয় স্তরের চারটি পুরস্কার পেল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। মঙ্গলবার এ খবর জানিয়ে নিজেই ট্যুইট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjeee)। দেশব্যাপী বিভিন্ন সরকারি কাজের মান বিশ্লেষণ করে প্রত্যেক বছরই কিছু সরকারি দপ্তর কে এই পুরস্কার দেয় 'স্কচ' নামে একটি বেসরকারি সংস্থা। এর আগেও বাংলার একাধিক সরকারি দফতর এই পুরস্কার পেয়েছে। মোট চারটি কাজের জন্য এই পুরস্কার পেয়েছে রাজ্য সরকার। এই পুরস্কার আগামী দিনের পথ চলতে আরও সাহায্য করবে বলেই মনে করছে প্রশাসনিক মহল।

শিল্প সাথী, ই নথিকরণ, গ্রামীণ এলাকায় অনলাইনে ট্রেড লাইসেন্স, শহরাঞ্চলে অনলাইনে নথিভুক্তকরণের ক্ষেত্রে auto-renewal সার্টিফিকেট প্রদান এই চারটি সরকারি কাজের স্বীকৃতি পেয়েছে রাজ্য। শিল্প সাথীর ক্ষেত্রে প্লাটিনাম, ই নথি করন ব্যবস্থা ও গ্রামীণ এলাকায় অনলাইনে ট্রেড লাইসেন্স ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সিলভার, শহরাঞ্চলে অনলাইনে নথিভুক্তকরণের ক্ষেত্রে auto-renewal সার্টিফিকেট প্রদানের ক্ষেত্রে গোল্ড পেয়েছে বাংলা। প্রসঙ্গত, শুধুমাত্র জাতীয় স্তরে নয়, এই পুরস্কারকে বিদেশেও মান্যতা দেওয়া হয়।

প্রশাসন মহলের একাংশের মতে সরকারি ক্ষেত্রে জাতীয় সফলতা বাংলাকে আরও একধাপ এগিয়ে দিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শিল্পসাথীর মত প্রকল্প মানুষের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এই উদ্যোগ শিল্পপতিদের আরও উৎসাহ যোগাচ্ছে বাংলায় শিল্প করার ক্ষেত্রে। বিশেষত অনলাইন ব্যবস্থার মাধ্যমে সহজেই মিলছে কারখানা তৈরির ছাড়পত্র। এ ছাড়াও গ্রামীণ শিল্পের ক্ষেত্রে এখন আর ছুটতে হয় না জেলা পরিষদ বা পঞ্চায়েত সমিতির কাছে। অনলাইনে যাবতীয় পরিষেবা পাওয়া যাচ্ছে। ঘরবাড়ি সংক্রান্ত কাগজপত্র তৈরির ক্ষেত্রেও একাধিক সরলীকরণ হয়েছে। বিশেষত একাধিক ক্ষেত্রে এখন অনলাইনের মাধ্যমে পরিষেবা পাওয়াতেই এক টেবিল থেকে অন্য টেবিলে যেতে হচ্ছে না। তার জেরেই পরিষেবা পাওয়া অনেকটাই সহজ হয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Shubhagata Dey
First published: