• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • TMC MP JAWHAR SIRCAR ATTACKED NARENDRA MODI FOR POLICE LATHI CHARGE IN KARNAL ON FARMERS SB

Jawhar Sircar Attacks Modi: 'মন কি বাতে মিষ্টি কথা বলে কৃষকদের বেধড়ক মার!' মোদিকে তুলোধনা জহরের

যুযুধান

Jawhar Sircar Attacks Modi: ট্যুইটারে হরিয়ানায় কৃষকদের উপর পুলিশের লাঠিচার্জের ভিডিও শেয়ার করে জহর সরকার লিখেছেন, 'মোদি মন কি বাতে মিষ্টি মিষ্টি কথা বলেন, আর তাঁর পুলিশই হরিয়ানার করনালে কৃষকদের লাঠিপেটা করে।'

  • Share this:

    #কলকাতা: বিক্ষোভরত কৃষকদের ওপর লাঠিচার্জের ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে হরিয়ানায়। শনিবার হরিয়ানা পুলিশ করনালের ঘরাউন্ডা টোল প্লাজায় লাঠিচার্জ বেধড়ক মারধর করে কৃষকদের। লাঠিচার্জ চলে নাগাড়ে। স্বাভাবিক কারণেই পুলিশি লাঠিচার্জের প্রতিবাদে আরও বড় আন্দোলনের ডাক দিয়েছে কৃষক সংগঠনগুলি। কৃষক সংগঠনের সম্মিলিত কিষাণ মোর্চা হরিয়ানাজুড়ে সমস্ত মহাসড়ক এবং টোল প্লাজা অবরোধ করার ডাক দিয়েছে। রবিবার ডাকা হয়েছে মহাপঞ্চায়েতও। এই পরিস্থিতিতে নরেন্দ্র মোদিকে তীব্র আক্রমণ করলেন প্রসার ভারতীর প্রাক্তন সিইও তথা তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ জহর সরকার। ট্যুইটারে হরিয়ানায় কৃষকদের উপর পুলিশের লাঠিচার্জের ভিডিও শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, 'মোদি মন কি বাতে মিষ্টি মিষ্টি কথা বলেন, আর তাঁর পুলিশই হরিয়ানার করনালে কৃষকদের লাঠিপেটা করে।'

    কৃষক সংগঠনগুলির অভিযোগ, করনালে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করছিলেন কৃষকরা। কিন্তু তা সত্ত্বেও তাঁদের উপর নির্মমভাবে হামলা ও লাঠিচার্জ করা হয়েছে। শত শত কৃষককে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের হরিয়ানার প্রধান গুরনাম সিং চধুনি কৃষকদের কাছে আবেদন করেন, "যতক্ষণ পর্যন্ত গ্রেপ্তার হওয়া সবাইকে হরিয়ানা পুলিশ মুক্তি না দিচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত রাস্তা অবরোধ চালিয়ে যান।" আরও পড়ুন: ৩৬ ঘণ্টা পার, এখনও বিশ্বভারতীর উপাচার্যের বাড়ি ঘেরাও পড়ুয়াদের! কেন?

    এরই মধ্যে করনালের মহকুমা শাসক আয়ুষ সিনহার একটি ভিডিও ঘিরে তোলপাড় পড়েছে জাতীয় রাজনীতিতেও। ওই ভিডিওতে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেঙে এগোনোর চেষ্টা করলেই যেন মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয় কৃষকদের। হরিয়ানার কারনালে আন্দোলনকারী কৃষকদের উপর লাঠিচার্জ করার আগে এমনই নির্দেশ দিয়েছিলেন ওই মহকুমা শাসক। সম্মিলিত কিষাণ মোর্চা একটি বিবৃতি প্রকাশ করে করনালের মহকুমাশাসক ম্যাজিস্ট্রেট আয়ুশ সিনহাকে বরখাস্তের দাবি তুলেছে।

    কৃষকদের উপর লাঠিচার্জের নিন্দা করেছেন কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিংহ সুরজেওয়ালাও। তাঁর কথায়, “আপনি হরিয়ানভিদের হৃদয়ে আঘাত করছেন খট্টর সাহেব। কৃষকদের এই রক্ত কিন্তু বৃথা যাবে না। নতুন প্রজন্ম আপনাকে তার উত্তর দেবে।” আসলে শনিবার হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টরের তাঁর নিজের নির্বাচনী এলাকা করনালে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা ছিল। কৃষকরা তাঁর সফরের প্রতিবাদ করতেই ওই এলাকায় জমায়েত করেছিলেন। তখনই তাঁদের উপর নির্বিচারে লাঠিচার্জ করা হয়। এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন কৃষক আহত হয়েছেন।
    Published by:Suman Biswas
    First published: