Home /News /kolkata /

Arpita Ghosh: রাজ্যসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা অর্পিতা ঘোষের, কারণ হিসেবে তৃণমূল সূত্র বলছে...

Arpita Ghosh: রাজ্যসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা অর্পিতা ঘোষের, কারণ হিসেবে তৃণমূল সূত্র বলছে...

অর্পিতা ঘোষের ইস্তফা

অর্পিতা ঘোষের ইস্তফা

Arpita Ghosh: তৃণমূলের একটি সূত্র বলছে, সংগঠনের কাজে আরও বেশি সময় দেওয়ার কারণেই রাজ্যসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন অর্পিতা ঘোষ।

  • Share this:

    #কলকাতা: রাজ্যসভার সাংসদ (Rajya Sabha Mp) পদ থেকে ইস্তফা দিলেন তৃণমূলের অর্পিতা ঘোষ (Arpita Ghosh)। গতকালই সুস্মিতা দেবের নাম রাজ্যসভার সাংসদ পদের জন্য ঘোষণা করেছে তৃণমূল। তার মাত্র একদিনের মাথায় অর্পিতা ঘোষের ইস্তফা নতুন করে শোরগোল ফেলল বঙ্গ রাজনীতিতে। তবে, তৃণমূল সূত্রে খবর, দলের তরফ থেকে ইস্তফা দেওয়ার কোনও নির্দেশ দেওয়া হয়নি অর্পিতাকে। ব্যক্তিগত কারণেই ইস্তফা দিয়েছেন তিনি। তবে, তৃণমূলের একটি সূত্র বলছে, সংগঠনের কাজে আরও বেশি সময় দেওয়ার কারণেই রাজ্যসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন অর্পিতা ঘোষ। দলের ওই অংশের মতে, অর্পিতাকে আসলে তৃণমূলের 'পূবে তাকাও' নীতিতে কাজে লাগানো হবে। তাই সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর অর্পিতাকে আরও বেশি করে কাজে লাগানো হবে সংগঠনের কাজে।

    তবে, ইস্তফার কারণ নিয়ে এখনও মুখ খোলেননি অর্পিতা। সংসদের বাদল অধিবেশনে 'সংসদ ভবনের দরজার কাঁচ ভাঙা' নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন অর্পিতা। তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ অর্পিতা ঘোষের বিরুদ্ধে হাঙ্গামার অভিযোগ তুলেছিলেন সংসদ ভবনের এক নিরাপত্তাকর্মী। দাবি করলেন, কাঁচ ভেঙে চোট লেগেছে তাঁর। পেগাসাস কাণ্ড নিয়ে বাদল অধিবেশনের শুরু থেকেই লোকসভা এবং রাজ্যসভায় সরব হয়েছিলেন অর্পিতা। জাতীয় স্তরে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথাও বলতেন দলের বিষয়ে।

    আরও পড়ুন: ভবানীপুরের জন্য অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুনিপুণ ছক! নজরে বাকি ২ কেন্দ্রও

    বালুরঘাট থেকে জিতে সাংসদ হয়েছিলেন অর্পিতা। কিন্তু ২০১৯ সালে লোকসভা ভোটে বালুরঘাট আসন থেকে হেরে যান তিনি। কিন্তু তারপরই তাঁর উপরে আস্থা দেখিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০২০ সালে রাজ্যসভার সাংসদ পদে অর্পিতা ঘোষ (Arpita Ghosh)-কে ফের বেছে নেন তৃণমূল নেত্রী। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা সংগঠনেও তাঁকে অনেকটাই দায়িত্ব দিয়েছিল তৃণমূল।

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    পরবর্তী খবর