TMC Social Media Volunteer: বিজেপি আইটি সেল মোকাবিলার অমোঘ ওষুধ, ছাত্র সংগঠনে নতুন স্ট্র্যাটেজি তৃণমূলের

বিজেপিকে রুখতে নতুন অস্ত্র তৃণমূলের।

TMC Social Media Volunteer: সোশ্যাল মিডিয়ায় আজ থেকে শুরু ব্যাপক প্রচার। নেওয়া হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া স্বেচ্ছাসেবক। 

  • Share this:

#কলকাতা: সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয়তা বাড়াচ্ছে তৃণমূল। নেওয়া হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া যোদ্ধা। বিজেপির আইটি সেলের মোকাবিলায় চলছে এই প্রস্তুতি। জেলা ভিত্তিক তৈরি করা হচ্ছে এই টিম। ছাত্র সংগঠনের তরফে সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয়তা বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি তৃণাঙ্কুর ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, "যে সব বন্ধুরা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় ভাবে কাজ করতে চায় তাদের জন্যে একটা আবেদনপত্র তৈরি হয়েছে। এছাড়া wbtmcp@gmail.com মেল করতে পারে৷ সেখানে তাদের হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার, জেলা, ফেসবুক ও ট্যুইটার আইডি সহ অন্যান্য তথ্য দিতে হবে।" আগামী ২০ আগস্ট অবধি এই আবেদন গ্রহণ করা হবে৷ দল থেকেই প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে তাদের।

২০২৪-এর আগে রাজনৈতিক লড়াইয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় জোর দিচ্ছে ঘাস ফুল শিবির। ২০১৯ এর লোকসভা ভোটের পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় হয়ে উঠেছিল জোড়া ফুল শিবির। বিভিন্ন ইস্যুতে মানুষের পাশে থাকার বার্তা দেওয়া হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। ফেসবুক, ট্যুইটার, ইন্সটাগ্রাম, ইউটিউবে চলেছিল প্রচার।

২০২৪- এর আগে গঠনমূলক প্রচার চালাতে চায় তৃণমূল। ইতিমধ্যেই ২৮ আগস্ট উপলক্ষে চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক প্রচার৷ দলের মুখপাত্র সুদীপ রাহা জানিয়েছেন, "আমাদের বিজেপির মতো পেড সোশ্যাল মিডিয়া ওয়ার্কার নেই। আমাদের সকলেই দিদিকে ভালোবেসে এই কাজ করেন। সেই কাজ আরও বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে আমরা সক্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া সৈনিক তৈরি করছি।" দলের যুবদের মধ্যে পরিচিত মুখ সুদীপের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারেই প্রায় ১৫০০ আবেদন গত ২৪ ঘন্টায় জমা পড়েছে। দল চাইছে জেলায় জেলায় সোশ্যাল মিডিয়া সেনাপতি বাড়াতে। তাদের যাবতীয় প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। রাজনৈতিক মহলের মতে আগামী কয়েক বছরে সোশ্যাল মিডিয়ায় লড়াই বৃদ্ধি পাবে গোটা দেশ জুড়ে। বাংলার বিধানসভা ভোটে ব্যাপক ফলের পরে তৃণমূলের নজরে ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচন। তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয়তা বাড়িয়ে নিচ্ছে রাজ্যের শাসক দল।

Published by:Arka Deb
First published: