আগামিকাল তৃণমূলের সাংগঠনিক বৈঠক করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

আগামিকাল বেলা তিনটের সময় ভারচুয়ালি নয় মুখোমুখি বৈঠক করবেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংগঠন ঢেলে সাজাতে ডাকা হয়েছে এই বৈঠক।

আগামিকাল বেলা তিনটের সময় ভারচুয়ালি নয় মুখোমুখি বৈঠক করবেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংগঠন ঢেলে সাজাতে ডাকা হয়েছে এই বৈঠক।

  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্যে তৃতীয়বার সরকার গঠন করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। নয়া সরকারে দলের ভূমিকা কি হবে তা স্থির করতেই আগামিকাল সাংগঠনিক বৈঠক ডাকলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিধানসভা ভোটে তৃণমূলের ব্যাপক ফলের পর,  নজরে রাজ্যের একাধিক পুরসভার ভোট। কলকাতা সহ রাজ্যের ১১০টি পুরসভার মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। করোনা সংক্রমণের জেরে আপাতত স্থগিত আছে ভোট গ্রহণ পর্ব। এছাড়া রাজ্যের বেশ কয়েকটি বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন হবে। যার মধ্যে মুখ্যমন্ত্রীর নিজের আসন ভবানীপুর আছে। তাই সংগঠন ঢেলে সাজাতে দলনেত্রী আগামিকাল নিজেই বৈঠক করবেন। সেই বৈঠকে দলের সব সাংসদ, বিধায়ক ও জেলা সভাপতিদের হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

আগামিকাল বেলা তিনটের সময় ভারচুয়ালি নয় মুখোমুখি বৈঠক করবেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংগঠন ঢেলে সাজাতে ডাকা হয়েছে এই বৈঠক। দুটো ভাগে হবে এই বৈঠক। প্রথমে দুপুর ২'টো নাগাদ দলের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক। তার পরে সমস্ত সাংসদ, বিধায়ক, জেলা সভাপতিদের নিয়ে বৈঠক করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে হাজির থাকার কথা রয়েছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও প্রশান্ত কিশোরের।

বিধানসভা ভোটে ব্যাপক ফল করার পরেও উত্তর ও দক্ষিণের বেশ কিছু জেলায় খারাপ ফল করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। বিশেষ করে শিলিগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারের ফল চিন্তায় রেখেছে তৃণমূলকে। কেন এই খারাপ ফল হল তা নিয়ে চিন্তিত দল। কোথায় কোথায় সাংগঠনিকভাবে দল পিছিয়ে পড়ছে বা পড়েছে সেটা নিয়েই মুখ্যত আলোচনা হবে। সূত্রের খবর সংগঠন ঢেলে সাজাতে এক পদ, এক ব্যক্তি নীতি গ্রহণ করা হতে পারে। সেক্ষেত্রে ব্যাপক রদবদল হতে পারে সংগঠনে। বিশেষ করে বেশ কয়েকটি জেলায় সাংগঠনিক পদে বড়সড় বদল আসতে চলেছে বলে সূত্রের খবর। এমনকি বেশ কিছু জেলায় নতুন মুখেদের দায়িত্ব বাড়তে পারে। করোনা অধ্যায় ও ঘূর্ণি ঝড় ইয়াসের পরে দলের সাংগঠনিক নেতৃত্ব পুরোপুরি ভাবে রাস্তায় নেমেছে। একাধিক জায়গায় সফর করছেন খোদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। মানুষের পাশে থাকার বার্তা দিচ্ছেন তিনি। এমতাবস্থায় পুর ভোটের আগে বিভিন্ন এলাকায় কর্মীদের এভাবেই কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তৃণমূলের আসল লক্ষ্য এখন ২০২৪ সালের লোকসভা ভোট। তার আগাম প্রস্তুতি এখন থেকেই সংগঠন মজবুত করে শুরু করে দিতে চাইছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস। কি কি ইস্যুতে দল লড়াই করবে সেটাও আলোচিত হবে এই বৈঠকে। দারুণ ফল হলেও তৃণমূল কংগ্রেস  কোনও বিজয় মিছিল করেনি। ২১শে জুলাইয়ের সমাবেশ থেকে রা পালিত হতে পারে। সেই সংক্রান্ত বিষয়েও আলোচনা হতে পারে আগামিকাল।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: