Home /News /kolkata /
Sujit Adhikary Suicide case: সুজিত অধিকারীর মৃত্যুতে উঠছে অনেক প্রশ্ন! হাসপাতাল, দমকলের গাফিলতি ছিল?

Sujit Adhikary Suicide case: সুজিত অধিকারীর মৃত্যুতে উঠছে অনেক প্রশ্ন! হাসপাতাল, দমকলের গাফিলতি ছিল?

Sujit Adhikary Suicide case: সুজিত অধিকারীকে কি বাঁচানো যেত?

  • Share this:

#কলকাতা:  মল্লিকবাজার নিউরো সায়েন্সের কার্নিশ থেকে পড়ে রোগীর মৃত্যু নিয়ে রীতিমতো প্রশ্ন উঠছে চারিদিক থেকে। সবাই হাসপাতালের গাফিলতি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন।

প্রশ্ন, একটি হাইরাইজ বিল্ডিংয়ে জানালায় গ্রিল থাকবে না কেন?  এই বিষয়ে ডাঃ সুশান্ত ব্যানার্জি বলেন, 'এখন হসপিটাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন নিয়ে খুব জোর দিচ্ছে সরকার। আগের দিনে যারা ওয়ার্ড মাস্টার ছিলেন, সেই পদ অবলুপ্ত করে, অ্যাসিস্টেন্ট সুপার পদ তৈরি হয়েছে।

আরও পড়ুন- স্ত্রী বিয়োগ, মানসিক যন্ত্রণা! এটাই কি ছিল আটতলা থেকে মরণঝাঁপের কারণ?

প্রশ্ন, সেই অ্যাসিস্টেন্ট সুপার কি ছিল না?'  শনিবার সারা দেশ দেখল, কীভাবে কলকাতায় একজন মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষের কার্নিশ থেকে পড়ে ভয়ঙ্কর পরিণতি হল।

পশ্চিম বঙ্গ সরকারের অগ্নি নির্বাপন দপ্তরের কর্মীরা ও ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের কর্মীরা শুধু তাকিয়ে দেখলেন। সাধারণ মানুষ হা হুতাশ করল। তার বাইরে আর কিছু হয়নি।

হাসপাতালের নিচে ও উপরের দিকে যে ম্যাট্রেসগুলি দেওয়া হয়েছি, প্যাডিং করার জন্য, সেগুলি যে একেবারে গুরুত্ব হীনভাবে দেওয়া হয়েছিল, তারর সমালোচনা চলছে।

প্রাক্তন সেনা কর্মীরা ওই এলাকায় বেশ কয়েকটি জায়গায় নিরাপত্তা রক্ষীর কাজ করেন। তাঁদের দাবী, হাসপাতালের কার্নিশে রোগী উঠে পড়া এবং রোগী আত্মহত্যা করা নতুন কিছু নয়। তার জন্য হাসপাতালের কোনো ব্যবস্থা ছিল না।

আড়াই ঘণ্টা সময় পেল অগ্নি নির্বাপন দপ্তর। কিন্তু ওই রোগী সুজিত অধিকারীকে কোনোভাবে মোটিভেট করতে পারেনি হাসপাতাল কিংবা ফায়ারের কর্মীরা। এটা কি পারদর্শিতার অভাব!

আট তলার কার্নিশে যখন রোগী উঠল, তখন কেন কেউ দেখতে পেল না?যখন উপর থেকে হাত ছেড়ে পড়ে যাচ্ছিল রোগী, তখন যে জায়গা গুলোতে লেগে তিনি আঘাত পেয়েছিলেন, সেগুলোতে যদি ম্যাট্রেসের প্যাডিং ঠিক করে করা থাকত, তা হলে হালকা আঘাত পেয়ে নিচে পড়ত বলে ,প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবী।

আরও পড়ুন- হাসপাতালের গাফিলতিতেই মৃত্যু, দায় কার?

সুজিত অধিকারী যখন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন, সেই সময় তিনি নাকি নার্সদের কামড়াতে যাচ্ছিলেন। এটা হাসপাতালের দাবী। এখন প্রশ্ন, তাঁর মধ্যে কি আত্মহত্যা কিংবা পালিয়ে যাওয়ার প্রবণতা দেখা গিয়েছিল!

তাঁকে কেন অন্য ভাবে, অন্য ঘরে রাখা হল না? এই প্রশ্নও উঠছে। হাসপাতালের গাফিলতি ও ফায়ার ব্রিগেডের অপারদর্শিতা নিয়ে সাধারণ মানুষও বিস্ময় প্রকাশ করছে।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Suicide case

পরবর্তী খবর