Alapan Bandopadhyay: আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে ছাড়বে না রাজ্য, আজই দিল্লিকে জানাতে পারে নবান্ন

মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। chief Secretary discussed covid situation in Bengal file photo

শুক্রবারই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Alapan Banerjee) দিল্লিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে কাজে যোগ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷

  • Share this:

#কলকাতা: যা আন্দাজ করা হয়েছিল তেমনটাই হতে চলেছে৷ রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে ছাড়ছে না রাজ্য সরকার৷ সূত্রের খবর, আজই চিঠি দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে নিজেদের অবস্থান জানিয়ে দিতে পারে নবান্ন৷ এ দিনই দুপুর ৩টের সময় সাংবাদিক বৈঠক করার কথা রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তখনই মুখ্যসচিবকে নিয়ে রাজ্যের অবস্থান স্পষ্ট করতে পারেন তিনি৷ ফলে, মুখ্যসচিবকে নিয়ে ফের একবার কেন্দ্র রাজ্য সংঘাতের আশঙ্কা তীব্র হচ্ছে৷

প্রসঙ্গত, শুক্রবারই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিল্লিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে কাজে যোগ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ আগামী ৩১ মে সকাল ১০টায় তাঁকে কেন্দ্রীয় কর্মিবর্গ এবং প্রশিক্ষণ দফতরে যোগ দিতে বলা হয়েছে৷

গত সপ্তাহেই মুখ্যসচিব পদে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেয়াদ তিন মাস বাড়ানোর অনুমোদন দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকারই৷ কারণ ৬০ বছর পূর্ণ করায় এ মাসেই তাঁর অবসর নেওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু রাজ্য সরকার চেয়েছিল, বর্তমান করোনার অতিমারির পরিস্থিতিতে অভিজ্ঞ এই আমলাই  মুখ্যসচিব পদে কাজ চালিয়ে যান৷ এর পর রাজ্যের আবেদনের ভিত্তিতেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে আরও তিন মাস মুখ্যসচিব পদে কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেয় কেন্দ্রীয় কর্মিবর্গ দফতর৷  তার পরেও অভিজ্ঞ এই আইএএস অফিসারকে ডেকে পাঠানোয় কেন্দ্রের ভূমিকা ঘিরে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বদলির নির্দেশকে কেন্দ্র করে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে বিজেপি নেতাদের বাকযুদ্ধ শুরু হয়েছে৷ তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ, প্রতিহিংসা পরায়ণ মনোভাব থেকেই মুখ্যসচিবকে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয়েছে৷ পাল্টা বিজেপি নেতাদের দাবি, এর মধ্যে কোনও রাজনীতি নেই৷ পুরোটাই হয়েছে সরকারি নিয়ম মেনে৷

Tuhin Das Chandra
Published by:Debamoy Ghosh
First published: