Home /News /kolkata /
Exclusive: 'আমব্রেলা'  নিয়ে হইচই? কলকাতার বুকে ইংরেজি বানানের 'দফারফা'! খবর প্রকাশ্যে আসতেই যা হল

Exclusive: 'আমব্রেলা'  নিয়ে হইচই? কলকাতার বুকে ইংরেজি বানানের 'দফারফা'! খবর প্রকাশ্যে আসতেই যা হল

কলকাতায় সাইনবোর্ড বিতর্ক

কলকাতায় সাইনবোর্ড বিতর্ক

Exclusive: ভুলে ভরা বানানের 'হ য ব র ল'  সামনে আসতেই তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি হয়। 

  • Share this:
ভেঙ্কটেশ্বর লাহিড়ি

#কলকাতা : নিউজ ১৮ বাংলার খবরের জের। সরকারি পথ নির্দেশিকা বোর্ড হোক বা মাইল ফলক। ভুলে ভরা বানানের 'হ য ব র ল'  সামনে আসতেই তুমুল বিতর্ক (Spelling Controversy) শুরু। অবশেষে  নড়েচড়ে বসল প্রশাসন। সম্প্রতি কলকাতা শহর লাগোয়া রাজপুর-সোনারপুর পুরসভা এলাকার বিস্তীর্ণ এলাকায় পূর্ত দফতরের তরফ থেকে পথ নির্দেশিকা বোর্ড এবং মাইলফলক লাগানো হয়। আর তাতেই ভুলে ভরা ইংরেজি বানানের ছবি সামনে আনে নিউজ এইট্টিন বাংলা। অবশেষে টনক নড়ল প্রশাসনের। সমস্ত ভুল বানান সংশোধন করে সঠিক বানান লেখা হল।

'গড়িয়া' থেকে 'বাইপাস'। অথবা 'গেট'। সব বানানই ভুল। খাস ইএম বাইপাসের ধারে ভুলে ভরা এই সব পথ পথনির্দেশিকা বোর্ড, মাইলফলক ইংরেজিতে লেখা বাইপাসের বানান 'BAIPAS',  গড়িয়া বানান GORIA , রামকৃষ্ণ মিশন 'গেট' এর বানান 'GET' , এরকম অসংখ্য ভুলে ভরা বানান। পূর্ত দফতরের ভুলে ভরা বোর্ড ও ফলক দেখে চোখ কপালে উঠেছিল পথচারীদের।

আরও পড়ুন : রান্নার তেলে মেগা-পতন! MRP -তে ১০ টাকা করে কমবে দাম? মোদি সরকারের মাস্টার স্ট্রোক

কলকাতা শহরের লাইফ লাইন বাইপাসে KMDA এর পথনির্দেশিকা বোর্ডে গড়িয়া, বাইপাস বানান ঠিকঠাক থাকলেও রাজপুর সোনারপুর পুর এলাকার বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে কোথাও বাইপাস বানান ‘বি এ আই পি এ এস’। কোথাও গড়িয়ার বানান ছিল ‘জি ও আর আই এ’। দক্ষিণ কলকাতার গড়িয়া এলাকায় ঢালাই ব্রিজ পেরলেই শেষ কলকাতা পুরসভার এলাকা। শুরু রাজপুর-সোনারপুর পুরসভা। সেখানেই পূর্ত দফতরের তরফে দিকনির্দেশ দেওয়ার জন্য লাগানো একের পর এক বোর্ড। মাইলফলক। তাতেই ভুল ইংরেজি বানানের ছড়াছড়ি।

গড়িয়া মেনরোড, প্রতাপগড়, তেঁতুলতলা নরেন্দ্রপুর, কামালগাজি সর্বত্রই একই ছবি। সম্প্রতি, এক ছাত্রী টেলিভিশন ক্যামেরার সামনে ‘আমব্রেলা’ বানান ভুল বলায় তুমুল শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। ঠাট্টা, মস্করার ঠেলায় কার্যত একঘরে অবস্থা হয়েছিল তাঁর। একটা বানান ভুল  (Spelling Controversy) বলাকে  ঘিরে যখন এমন শোরগোল, তখন খোদ সরকারি উদ্যোগে লেখা রাস্তায় ভুল বানানের ছড়াছড়ি থাকায় নানা মহলের নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। এর দায় কার?

আরও পড়ুন : ১২৯৩ কোটি টাকা খরচ হয়েছে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডে! 'বাংলার মেধার' গর্বে উচ্ছ্বসিত মমতা!

যে পুরসভা এলাকায় এই ঘটনা সেই রাজপুর সোনারপুর পুরসভার পূর্ত দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল নজরুল আলি মণ্ডল বলেন, 'সত্যিই এটা হওয়া উচিত হয়নি। আরও সতর্ক হওয়া উচিত ছিল। নিউজ 18 বাংলার মাধ্যমে আমাদের  বিষয়টি নজরে আসতেই সংশ্লিষ্ট দফতরের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে'।

খবর প্রকাশ্যে আসতেই তড়িঘড়ি খবর প্রকাশ্যে আসতেই তড়িঘড়ি...

পথ নির্দেশিকা বোর্ড এবং মাইলফলকে ভুল বানান  (Spelling Controversy) বদলে সঠিক বানান স্থান পাওয়ায় খুশি নাগরিক সমাজ। বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ পবিত্র সরকারের কথায়, ' খবর সম্প্রচার হওয়ার পর প্রশাসনের উদ্যোগের পরিবর্তে আগে থেকেই এ ব্যাপারে সরকারের  যত্নশীল হওয়া উচিত ছিল"।

Published by:Sanjukta Sarkar
First published:

Tags: Kolkata News, Umbrella

পরবর্তী খবর