ডোনার সরস্বতী পুজোয় কেন নেই মহারাজ? পর্দা ফাঁস সৌরভ-জায়ার

ডোনার সরস্বতী পুজোয় কেন নেই মহারাজ? পর্দা ফাঁস সৌরভ-জায়ার
File Photo
  • Share this:
#কলকাতা: অন্যবারের মতো করেই রমরমিয়ে সরস্বতী পুজো হল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের স্ত্রী ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়ের বাড়িতে। সকালে অঞ্জলি, দুপুরে পাত পেরে খাওয়া-দাওয়া, সন্ধ্যায় দীক্ষামঞ্জরীর জমজমাট সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, রাতে জমকালো আরতি। সব হলেও কোথায় যেন একটা ফাঁক রয়ে গেল। অন্যবার সকাল থেকেই চোস্তা পাঞ্জাবিতে মহারাজের আবির্ভাব অন্য মাত্রা দেয় দীক্ষামঞ্জরীর সরস্বতী পুজোকে। এবার সব থাকলেও দীক্ষামঞ্জরীর বাণী বন্দনায় ছিলেন না সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।
২৯ ও ৩০ জানুয়ারি। সরস্বতী পুজো এবার দু'দিন। পঞ্জিকা মতে ২৯ জানুয়ারি। বিশুদ্ধ মতে পুজো আবার ৩০ জানুয়ারি। দুদিনের বাণী বন্দনায় ছুটির আমেজ বেড়েছে বাঙালির। কিন্তু দাদার হয়েছে মুশকিল। রাতে সৌরভজায়া ডোনা জানালেন, "ভুলবশত ২৯ এর পরিবর্তে ৩০ জানুয়ারি পুজো ধরেই মহারাজের সব সূচি ওলট-পালট হয়ে গিয়েছে।" ৩০ জানুয়ারি পুজো ভেবে বহু আগেই ২৯ জানুয়ারি বিজ্ঞাপনের জন্য ছেড়ে দিয়েছিলেন মহারাজ। ভুল ভেঙেছে যখন, ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে। ইচ্ছে থাকলেও বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ের সূচি বদলের উপায় ছিল না দাদার। পুজোর দিন সাত-সকালেই বিজ্ঞাপনের কাজে বেরিয়ে যেতে হয় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে। শুটিং সেরে যখন ফিরলেন, ততক্ষনে বেলা ঢলে গিয়েছে। পুজো, অঞ্জলির পর্ব শেষ। গাড়ি থেকে নেমে শুটিংয়ের জামাকাপড়েই নিজের বাড়িতে না ফিরে চলে এসেছিলেন শ্বশুরবাড়িতে।
ডোনার বাড়িতে তখন গিজগিজ করছে থিকথিকে ভিড়। ডোনা  গঙ্গোপাধ্যায়ের  নাচের  স্কুল দীক্ষামঞ্জরীর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান তখন মধ্যগগনে। মহারাজের আবির্ভাব ঘটতেই হুলুস্থূলুস কান্ড। খ্যাতির বিড়ম্বনা আর কী! সবাই চায় প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক ও বর্তমান বিসিসিআই সভাপতিকে একবার কাছ থেকে দেখতে। সঙ্গে সেলফির আবদার তো রয়েইছে। কয়েক মুহূর্ত সেখান থেকেই সৌরভ বুঝে যান তিনি থাকলে দীক্ষামঞ্জরীর অমন সুন্দর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের ছন্দ কাটতে সময় লাগবে না। পরিস্থিতি বেগতিক।
উপচে পড়া ভিড় আর ভক্তদের ভালোবাসার অত্যাচারে অনুষ্ঠান মঞ্চে স্ত্রী ডোনার কাছাকাছি পৌঁছানোর উপায় পর্যন্ত নেই! দূর থেকেই ডোনাকে ইশারা করতে শুরু করেন মহারাজ। হাত তুলে, আঙুল নেড়ে আকারে-ইঙ্গিতে, ইশারায় বুঝিয়ে দেন তিনি এসেছেন। তবে এবার বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন। স্ত্রী ডোনা স্বামী সৌরভের অসহায় পরিস্থিতি বুঝে দূর থেকেই ঘাড় নেড়ে সম্মতি দেন। ডোনার সম্মতি মিলতেই আর দাঁড়াননি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। দুই বাড়ির মধ্যবর্তী প্যাসেজের দরজা দিয়ে ফিরে যান নিজের বাড়িতে।
First published: January 29, 2020, 11:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर