Soumitra Khan On Rajib : '৪২ হাজার ভোটে হেরে মনে পড়ল?' ট্যুইটারে রাজীবকে তুমুল আক্রমণে সৌমিত্র

রাজীব-সৌমিত্র ট্যুইট-যুদ্ধ Photo : File Photo

রাজীবের (Rajib Banerjee) এই বিস্ফোরক পোস্টের খবর চাউর হতেই ময়দানে নামলেন বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি তথা বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ (Saumitra Khan)।

  • Share this:

    #কলকাতা : ফের দলবদল কি সময়ের অপেক্ষা? মঙ্গলবার রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় (Rajib Banerjee) নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে একটি পোস্ট করে রাজ্য রাজনীতিতে নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছেন। আর তাতেই তাঁর পদ্মবন ত্যাগ করে ঘাসফুলে ফেরার বার্তাই যেন আরও জোরালো হয়েছে। এদিন ট্যুইটারে একটি ছবি পোস্ট করে রাজীব লেখেন, ‘ সমালোচনা তো অনেক হল। মানুষের বিপুল জনসমর্থন নিয়ে আসা নির্বাচিত সরকারের সমালোচনা ও  মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করতে গিয়ে কথায় কথায় দিল্লি আর ৩৫৬ ধারার জুজু দেখালে বাংলার মানুষ ভালোভাবে নেবে না।” রাজীবের এই বিস্ফোরক পোস্টের খবর চাউর হতেই ময়দানে নামলেন বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি তথা বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ (Saumitra Khan)।

    রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় লেখেন, ‘আমাদের সকলের উচিৎ রাজনীতির উর্দ্ধে কোভিড ও ইয়াস এই দুর্যোগে বিপর্যস্ত বাংলার মানুষের পাশে থাকা।” রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই পোস্টের পর রাজ্য রাজনীতিতে এতদিনের গুঞ্জন যেন নতুন করে জল্পনা বাড়িয়ে দিয়েছে। তাহলে সোনালী-সরলাদের মতো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্নেহতলে যেতে চাইছেন রাজীবও? সেটা নিয়েই উঠছে প্রশ্ন।

    রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ট্যুইটটি রিট্যুইট করে সৌমিত্র খাঁ লেখেন, ‘৪২হাজার ভোটে হারার পর মনে পড়লো? বিজেপির ৪২জনের বেশি কর্মীরা মারা গেছে,তখন চুপ থাকা মানে শাসক  দলকে সমর্থন করা।মোদি সরকার করোনার জন্য ফ্রি তে ভ্যাকসিন,অক্সিজেন ও সব রকম সাহায্য করছে।আর ইয়াস ঘূর্ণিঝড়ের  জন্য মোদি জি নিজে এসেছেন। ৪০০কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে রাজ্যেকে।”

    সৌমিত্র খাঁ আরও লেখেন, ‘আরও যা যা ক্ষতি হয়েছে তা কেন্দ্রীয় সরকার সাহায্য করবে। আমরা বিরোধী দল আমরা সরকারের গঠন মূলক কাজে সাহায্য করব। ভুল হলে পথে নামব৷ আপনি নীরব না থেকে বিজেপির কর্মীদের পাশে থাকলে ভালো হয়। না হলে গাড়ির পিছনে যে ছবিটা আছে সেটা আবার সামনের সিটে নিয়ে আসুন।” এরপর সৌমিত্র খাঁ আরও একটি ট্যুইট করে লেখেন, ‘এটা দলের বক্তব্য নয়, এটা সম্পূর্ণ নিজের মতামত আমার।”

    সৌমিত্র খাঁ কে নিয়েও বেশ কয়েকদিন ধরে রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা চলছিল। কিন্তু তিনি কদিন আগেই সেই জল্পনায় জল ঢেলে বলেন যে, ‘বিজেপি ছাড়ার কোনও প্রশ্নই নেই।” এরপর আজ হেস্টিংসে বিজেপির বৈঠকের আগে সৌমিত্র খাঁ বলেন, ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যেদিন বিজেপিতে যোগ দেবেন, আমি সেদিনই তৃণমূলে যাব।” সৌমিত্র খাঁয়ের এই মন্তব্যে এটা স্পষ্ট হয়েছে যে, তিনি বিজেপিতো ছাড়ছেনই না, পাশাপাশি তৃণমূলকে রেহাই দেবেন না।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: