• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • স্কুল শিক্ষকরা কেন করবেন প্রাইভেট টিউশন? দায়ের জনস্বার্থ মামলা

স্কুল শিক্ষকরা কেন করবেন প্রাইভেট টিউশন? দায়ের জনস্বার্থ মামলা

স্কুলশিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন নিষিদ্ধ করার পরও আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে স্কুল শিক্ষকদের গৃহশিক্ষকতা ৷

স্কুলশিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন নিষিদ্ধ করার পরও আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে স্কুল শিক্ষকদের গৃহশিক্ষকতা ৷

স্কুলশিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন নিষিদ্ধ করার পরও আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে স্কুল শিক্ষকদের গৃহশিক্ষকতা ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: আইন বলছে অন্য কথা ৷ কিন্তু আইনের পরোয়া না করেই রমরমিয়ে চলছে বেআইনি ‘ব্যবসা’ ৷ আগামীকে পথ দেখানো যাদের কাজ তারাই দিচ্ছেন আইন অমান্যের প্রাথমিক শিক্ষা ৷ স্কুলশিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন নিষিদ্ধ করার পরও আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে স্কুল শিক্ষকদের গৃহশিক্ষকতা ৷

    স্কুলশিক্ষকদের এমন প্রবণতা আদালতের নজরে আনতে শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করলেন কমল দে ৷ মামলা গ্রহণ করেছে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ ৷ শুনানি হবে আগামী ২১ এপ্রিল ৷

    ২০০৯ সালে পাশ হওয়া শিক্ষার অধিকার আইনের ২৮ নং ধারা অনুযায়ী, সরকারি, সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুল ও বেসরকারি স্কুলের শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশনি বা অন্য কোনও রকম প্রাইভেট প্র্যাক্টিস নিষিদ্ধ করা হয় ৷ ২০১১ সালে রাজ্য সরকার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে স্কুল শিক্ষকদের এই নির্দেশিকা সম্পর্কে জানালেও বদলায়নি ছবিটা ৷

    সকলের চোখের সামনেই স্কুলে পড়ানোর পাশাপাশি বাড়িতেও ব্যাচের পর ব্যাচ ছাত্র পড়িয়ে উপরি উপার্জন করছেন শিক্ষকেরা ৷ অথচ নিয়ম বলছে, কোনও শিক্ষক স্কুলের বাইরে প্রাইভেট টিউশনি করছেন একথা জানতে পারলেই প্রধানশিক্ষক তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা নেবেন এবং তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে ডিস্ট্রিক ইনস্পেকটর ঘটনার তদন্ত করে চুড়ান্ত পদক্ষেপ নেবেন ৷ বিজ্ঞপ্তির পর সাত বছর কেটে গেলেও স্কুল শিক্ষকদের বেআইনি এই কাজ বন্ধে আজ পর্যন্ত কোনও পদক্ষেপ নেওয়ার নজির নেই, এমনকি অভিযোগ দায়ের উদাহরণও মেলেনি ৷

    একইসঙ্গে শিক্ষার অধিকার আইনের অন্য একটি ধারা অমান্যেও কলকাতার প্রথম সারির বেশ কয়েকটি স্কুলের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে মামলা ৷ ২০০৯ শিক্ষার অধিকার আইন অনুযায়ী, প্রত্যেক স্কুলে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত মোট আসনের ২৫ শতাংশ সমাজের পিছিয়ে পড়া স্তর থেকে আসা পড়ুয়াদের জন্য সংরক্ষিত রাখতে হবে ৷ বেশিরভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেই মানা হচ্ছে না এই নিয়ম ৷ ডন বস্কো, লা মার্টিনিয়ার, সাউথ পয়েন্ট বয়েজ অ্যান্ড গার্লসের মতো বেশ কিছু স্কুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ৷

    First published: