বিদেশ ঘুরে এবার কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে ‘ডি মেজর’

এবছরের চলচ্চিত্র উৎসবে শমীক হলেন একমাত্র ভারতীয় পরিচালক ৷ যাঁর ফিচার (Bengali Panorama) এবং শর্ট -দুই বিভাগেই ছবি বাছাই হয়েছে ৷

Siddhartha Sarkar
Updated:Nov 17, 2016 10:04 AM IST
বিদেশ ঘুরে এবার কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে ‘ডি মেজর’
Siddhartha Sarkar
Updated:Nov 17, 2016 10:04 AM IST

#কলকাতা: জিরো বাজেটের ছবি শুনতে ‘শূন্য’ লাগলেও কোনও ছবিই যে বিনা খরচে তৈরি করা সম্ভব নয়, তা ফিল্মের সঙ্গে যাঁরা যুক্ত, তাঁরা সেটা ভালমতোই জানেন ৷ বিশেষ করে যে ফিল্মগুলি শুধুমাত্র ফেস্টিভ্যালের উদ্দেশ্যেই তৈরি হয়, সেগুলি তৈরিতে অনেক নতুন পরিচালকরাই নিজের প্রায় সর্বস্ব দিয়ে থাকেন ৷ তবে এত কিছুর পরও আসল উদ্দেশ্য তো একটাই, ফিল্মটা ভালভাবে তৈরি করা ৷ এবং সেই ছবি দর্শকদের ভাল লাগানো ৷ কারণ সিনেমায় দর্শকরাই যে শেষ কথা ৷ ২২তম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে এবার এমন এক বাঙালি পরিচালকের দু’টো ছবি প্রদর্শিত হয়েছে ৷ যার সিনেমা তৈরির গল্পও অনেকটা এ রকমই ৷ নিজের ‘নো বাজেট’ ছবি তৈরিতে ব্যাঙ্কের ফিক্সড ডিপোজিট থেকে গাড়ি সবই বেচে দিয়েছিলেন পরিচালক শমীক রায় চৌধুরি !

এবছরের চলচ্চিত্র উৎসবে শমীক হলেন একমাত্র ভারতীয় পরিচালক ৷ যাঁর ফিচার (Bengali Panorama) এবং শর্ট -দুই বিভাগেই ছবি বাছাই হয়েছে ৷ যে কোনও পরিচালকের কাছেই তা অত্যন্ত গর্বের বিষয় ৷ একজন ইন্ডেপেন্ডেন্ট ফিল্ম-মেকার হিসেবে শমীকের কাছে এটা যথেষ্ট বড় পাওনা ৷ একটা ছোট শহরের মেয়ের বড় শহরে এসে পড়াশোনার পাশাপাশি গিটার শিখতে গিয়ে ভুল পথে চালনা হওয়ার কাহিনী নিয়েই ছবি ‘ডি মেজর’ ৷

কলেজ বা স্কুল জীবন থেকেই গিটার শেখার বা ব্যান্ডের লিড ভোকালিস্ট হওয়ার ইচ্ছে অনেক ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যেই থাকে ৷ কারণ গলায় সুর থাকুক বা না থাকুক ৷ মাইক হাতে স্টেজে ওঠার ইচ্ছেটা অনেকের মদ্যেই থাকে ৷ এর পাশাপাশি যদি একটু আধটু গিটার জানা থাকে, তাহলে তো আপনাকে কলেজের ‘কুলেস্ট’ বয় বা গার্ল হওয়ার থেকে কারোর আটকানোরই সাধ্যি নেই ৷ পশ্চিম মেদিনীপুরের ছোট শহর ঝাড়গ্রামের মেয়ে দিয়া বাংলা ভাষায় ব্যাচেলার্স ডিগ্রির জন্য ভর্তি হয়েছিল কলকাতার একটি কলেজে ৷ গিটার শেখার ইচ্ছেটা তার ভিতর ভিতর অনেক আগের থেকেই ছিল ৷ কলকাতায় পা দিয়েই সেই শখ পূরণের সুযোগও এসে যায় দিয়ার সামনে ৷ কলেজের দুই বন্ধু সুচী ও মানিকের মাধ্যমে দিয়ার এক গিটারের শিক্ষকও জুটে যায় ৷ কিন্তু সেই শিক্ষকই প্রথম তাকে ভুল পথে চালনা করেন ৷ ড্রাগ ছাড়া মিউজিক অসম্ভব ৷ এই বিষয়টাই দিয়ার মাথায় ঢুকিয়ে দেওয়া হয় ৷ এরপর থেকে মেয়েটির জীবন বিপথে চালিত হতে থাকে ৷ এই অবস্থা থেকে শেষপর্যন্ত দিয়ার জীবনে কী ঘটে ? তা জানতে ছবিটা অবশ্যই দেখতে হবে আপনাকে ৷

অনেক কাঠখোড় পুড়িয়েই এই ছবি তৈরি করেছেন পরিচালক শমীক রায়চৌধুরি ৷ নিজের গাড়ি বিক্রির পরেও টাকা একসময় কম পড়ে তাঁর৷ তখনও ছবির কালার সংশোধন এবং ফাইনাল পোস্ট প্রডাকশনের কাজ বাকি ৷ এই অবস্থায় শমীককে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন সহ-প্রযোজক শিবাঙ্গি চৌধুরি ৷ ছবির থিম যেহেতু মিউজিক ৷ তাই ছবির প্রতিটি গানই ছবির অন্যতম ইউএসপি ৷ ভিএফএক্স আর্টিস্ট থেকে ধীরে ধীরে ফিল্ম পরিচালনায় হাতে খড়ি শমীকের ৷ হলিউডের অন্তত ১০টি ছবিতে ভিএফএক্স টেকনিক্যাল ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন এই বাঙালি তরুণ পরিচালকের ‘ডি মেজর’ ছাড়াও স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবি ‘ইয়েস্টরডে’-ও এবারের চলচ্চিত্র উৎসবে জায়গা করে নিতে সফল ৷ এবছর বস্টনের ক্যালাইডোস্কোপ এবং স্যান ফ্রান্সিস্কোতে অনুষ্ঠিত ফগ আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালেও এর আগে প্রদর্শিত হয়েছিল ডি মেজর ৷

First published: 09:15:52 AM Nov 16, 2016
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर