Home /News /kolkata /
Sabyasachi Chakraborty: নতুন ভূমিকায় 'ফেলুদা', DYFI রাজ্য দফতরে কেন এসেছিলেন সব্যসাচী চক্রবর্তী জানেন?

Sabyasachi Chakraborty: নতুন ভূমিকায় 'ফেলুদা', DYFI রাজ্য দফতরে কেন এসেছিলেন সব্যসাচী চক্রবর্তী জানেন?

Sabyasachi Chakraborty

Sabyasachi Chakraborty

এই সম্মেলনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। চলবে ১৫ তারিখ পর্যন্ত। (Sabyasachi Chakraborty)

  • Share this:

#কলকাতা: এবার নতুন ভূমিকায় দেখা যাবে ফেলুদাকে। সোমবার ডিওয়াইএফআই দফতরে এসে সাংবাদিক বৈঠক করেন তিনি। আাগামি ১২ মে ইজেডসিসিতে শুরু হচ্ছে সংগঠনের সর্বভারতীয় সম্মেলন। সেই সম্মেলনের অভ্যর্থনা কমিটির সভাপতি সব্যসাচী চক্রবর্তী। প্রায় ২৭ বছর পর রাজ্যে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ভারতের গণতান্ত্রিক যুব ফেডারেশনের সম্মেলন। আর এই সম্মেলনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে। চলবে ১৫ তারিখ পর্যন্ত। (Sabyasachi Chakraborty)

১২ তারিখ কলকাতার রানি রাসমণি রোডে প্রকাশ্য সমাবেশের মাধ্যমে সম্মেলনের কাজ শুরু হবে। সেখানে বক্তব্য পেশ করবেন সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি, দলের রাজ্য সম্পাদক মহম্মদ সেলিম, সংগঠনের সর্বভারতীয় সম্পাদক অভয় মুখোপাধ্যায় এবং রাজ্যের সভানেত্রী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। এ ছাড়াও বাকি দিনগুলিতে একদিকে যেমন সম্মেলন চলবে অন্যদিকে সম্মেলনকে কেন্দ্র করে বেশকিছু অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছে। সম্মেলন চত্তর জুরে প্রদর্শনী হবে। এর মধ্যে থাকবে স্বাধীনতা আন্দোলনে বাংলার ভূমিকা, করোনা ও আমফান পরিস্থিতিতে রেড ভলান্টিয়ারদের ভূমিকা, বামফ্রন্ট সরকারের ৩৪ বছর এবং বামফ্রন্ট পরবর্তী সময়ে কীভাবে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে যুব ফেডারেশন। তাছাড়াও আরও বেশকিছু কর্মসূচি।

আরও পড়ুন: স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ায় অফিসার পদে নিয়োগ, আবেদনের শেষ দিন ১৭ মে

একই সঙ্গে সম্মেলনে আগত প্রতিনিধিদের সামলানো। এই গোটা প্রক্রিয়ার নেতৃত্বে থাকবেন সংগঠনের প্রাক্তন নেতা ও অভ্যর্থনা কমিটির সম্পাদক পলাশ দাস ও সভাপতি সব্যসাচী চক্রবর্তী। সব্যসাচী চক্রবর্তী বলেন, "যুব সম্নেলনের মুখ্য বার্তা ধর্মনিরপেক্ষ দেশ। ডিওয়াইএফআই কর্মীরা অক্লান্ত পরিশ্রম করেছে। করোনা ও ঝড়ের সময়। ১১ বছর ধরে অসহনীয় পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন। যতই আক্রান্ত হোক কাজ তাঁরা থামাবে না। আমার দায়িত্ব সকলকে ধন্যবাদ জানানো। পলাশ দাস জানিয়েছেন, "সম্মেলনের জন্য খুব কম সময় হাতে পেয়েছি। আমরা গর্বিত এটা আয়োজন করতে পেরে। একটা প্রতিকূল অবস্থায় কাজ করতে হচ্ছে। প্রচারের অভিনবত্ব রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। সব জেলায় সেমিনার হয়েছে। সাংস্কৃতিক ও ক্রিড়া প্রতিযোগীতা হচ্ছে। লিঙ্গসাম্য তুলে ধরতে ফুটবল প্রতিযোগিতা হয়েছে। পরিবেশ বান্ধব বার্তা তুলে ধরতে এক হাজার ম্যানগোভ চারা রোপন করা হয়েছে। জনবহুল স্থানে প্রচার হয়েছে। কুইজ প্রতিযোগিতায় হয়েেছে। ব্যান্ড ফেস্টের পারফর্মেন্স, ফিল্ম স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা হয়েছে। ছবি প্রতিযোগিতা কর্মসূচি আছে। ১২ তারিখ প্রকাশ্য সমাবেশ হবে।'

আরও পড়ুন: দারুণ খবর, সন্তানের নামের তালিকা তৈরি! দীপিকার সঙ্গে আলোচনা চলছে রণবীরের

সব্যসাচী চক্রবর্তীর কথায়, 'ইজেডসিসি চত্বর ঘিরে প্রদর্শনী হবে। ৬৭-৭০ দশকে আন্দোলন হোক বা বর্তমান সময়। এই দুই সময়েই অনেক প্রতিকূলতার মধ্যেও কেউ ছেড়ে যায়নি সাদা পতাকা। এখন শিল্পের নামে উৎসব চলছে। এক সময় যুব আন্দোলন হয়েছে বক্রেশ্বরের দাবিতে। দেশ ও রাজ্যের অর্থনীতি নিয়ে সেমিনার হবে। আনিস খান থেকে শুরু করে হাসখালি হাতরাসের মতো ঘটনা নিয়ে গণ আদালত বসানো হবে। সেখানে কেরালার স্পিকার থাকবেন, হান্নান মোল্লা, বিকাশ ভট্টাচার্যরা উপস্থিত থাকবেন। ওয়াল গ্রাফিটি, কোলাজ নিয়ে প্রদর্শনী থাকছে। লকডাউনের সময়ে আমাদের দেখে সরকার মা ক্যান্টিন করেছে। সরকার পারেনি আমরা অক্সিজেন দিয়েছি। এত কিছুর জন্য অর্থের দরকার। যুবরা মানুষের কাছে গিয়েছে। মানুষ সারা দিয়েছে। ৫০০ প্রতিনিধি আসছেন। তাঁদের থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এর জন্য টাকার প্রয়োজন সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে ক্রাউড ফান্ডিং করা হচ্ছে। রান্নার সরঞ্জাম মানুষ দিচ্ছেন। আরো অনেক মানুষ সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন।'

সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত সংগঠনের রাজ্যের সভানেত্রী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায় বলেন, "২৭ বছর পর সম্নেলন হচ্ছে। ইজেটসিসিতে হবে যার নাম দিয়াগো মারাদোনা নগর রাখা হয়েছে। ধর্মনিরপেক্ষতা রক্ষা ও কর্মসংস্থানের দাবি থাকবে আমাদের। ১১ তারিখ মইদুল মিদ্দার বাড়ি থেকে জাঠা শুরু হবে। যেটা ১২ তারিখ রানি রাসমোনি রোডে আসবে।"

Published by:Raima Chakraborty
First published:

Tags: DYFI, Sabyasachi Chakraborty

পরবর্তী খবর