Saayoni Ghosh: 'আমি এসে গেছি তো!' যে সব কারণে যুব সভাপতির পদে সায়নীকেই বাছলেন মমতা...

মমতার পছন্দ সায়নী

Saayoni Ghosh: আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে বিজেপির তারকা প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পালের কাছে হেরে যাওয়া সত্বেও সায়নীকেই দলের যুব সংগঠনের সভাপতি পদে বসালেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Share this:

    কলকাতা: ভোটের ঠিক আগেআগেই তাঁর তৃণমূলে যোগদান অনেককেই অবাক করেছিল। এমনিতে টালীগ‍ঞ্জ ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা-অভিনেত্রীদের অনেকের জন্য এবারের ভোট ছিল রাজনীতি পরখ করার। বিশেষত বিজেপিতে একঝাঁক টালীগঞ্জের নবীন মুখ এবার নিজেদের ভোটভাগ্যও পরখ করেছেন। কিন্তু তাঁদের সিংহভাগেরই ভাগ্যে শিঁকে ছেড়েনি। ভোটে হেরে গিয়েছেন তৃণমূলেরও অনেক তারকা মুখ। আর তাঁদের মধ্যে অন্যতম সায়নী ঘোষ (Sayani Ghosh)। আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে বিজেপির তারকা প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পালের কাছে হেরে যাওয়া সত্বেও সেই সায়নীকেই দলের যুব সংগঠনের সভাপতি পদে বসালেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

    যে পদে এতদিন ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো মুখ, সেই পদে সায়নীর মতো রাজনীতিতে প্রায় নতুন পা রাখা মুখ? রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, এখানেই মমতার মাস্টারস্ট্রোক। তাঁরা বলছেন, যিনি মাটির থেকে লড়াই করে উপরে উঠে এসেছেন, সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভোট প্রচারে সায়নীর স্টাইল, মানুষের সঙ্গে মিশে যাওয়ার প্রবণতায় মুগ্ধ হয়েছেন। এমনকী ভোটে হেরে গেলেও সায়নীকে আসানসোলের কোনও সরকারি দায়িত্বে আনার জন্য পথে পর্যন্ত নেমেছিল তৃণমূলের নবীন প্রজন্মের বহু মুখ। তাই সায়নীর মতো দাপুটে মেয়েকে দিয়ে দলের যুব সংগঠনের কাজ সফলভাবে চালানো সম্ভব বলেই মনে করেছেন তৃণমূল নেত্রী।

    তৃণমূল সূত্রে খবর, এতদিন দলের যুব সংগঠনের দায়িত্বে অভিষেক থাকলেও নীচু স্তরের অনেক যুব নেতা-কর্মীই তাঁর কাছে পৌঁছে নিজেদের বক্তব্য রাখতে কিছুটা সংকোচবোধ করতেন। অভিষেকের রাজনৈতিক 'উচ্চতা' ও 'সিনিয়রিটি' কিছুটা হলেও আটকে দিত যুব শাখার কর্মীদের। আর সেখানে সায়নীকে এনে সেই বাঁধ ভেঙে দিলেন মমতা। সেইসঙ্গে দলের যুব সংগঠনের সভাপতির মতো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে একজন মহিলাকে এনেও বিশেষ বার্তা দিলেন তৃণমূল নেত্রী।

    সেইসঙ্গে রয়েছে নবীন প্রজন্মের প্রতিও বিশেষ বার্তা। সায়নীর মতো অল্পবয়সী নেতৃত্বকে দেখে নতুন প্রজন্মকেও দলে টানতে তৎপর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল শিবিরের আশা, সায়নীকে দেখে বহু যুবক–যুবতী রাজনীতিতে আসতে চাইবেন। আর দলের ভবিষ্যতের কথা বলতে গিয়ে বারবার তৃণমূল নেত্রীর মুখে উঠে এসেছে নবীন প্রজন্মের কথা। দায়িত্ব নিয়েই অবশ্য সায়নী কাজ শুরু করে দিতে চান শীঘ্রই। সংগঠনের অন্দরে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা অসন্তোষ থেকে সংগঠনের আরও বিস্তার, সায়নী বলেছেন, 'আমি এসে গেছি তো...'

    Published by:Suman Biswas
    First published: