ধর্মঘটে তাক লাগানো হাজিরা নবান্নে, ১০০% উপস্থিতি স্বরাষ্ট্র দফতরে

ধর্মঘটে তাক লাগানো হাজিরা নবান্নে, ১০০% উপস্থিতি স্বরাষ্ট্র দফতরে

নবান্ন জানিয়েছে, অনুপস্থিত থাকা সরকারি কর্মীদের অধিকাংশই নিয়ম মেনে ছুটি নিয়েছে, এই ছুটি গুলি মঞ্জুর করবে রাজ্য।

  • Share this:

ARNAB HAZRA

#কলকাতা: ধর্মঘটে তাক লাগানো হাজিরা ফল নবান্নের। ১০০% উপস্থিত থেকে প্রথম স্বরাষ্ট্র দফতর। সারা রাজ্যে সরকারি কর্মচারীদের উপস্থিতি ৯৫% বেশি। বাকি অনুপস্থিতি নিয়ম মেনে নেওয়া ছুটি, জানাল নবান্ন।

বাম-কংগ্রেসের ২৪ ঘন্টার ধর্মঘট। সিএএ, জেএনইউ উত্তর পরিস্থিতিতে যা অন্য মাত্রা পায় রাজ্যে। ধর্মঘট সফল করতে যেমন কোমর বাঁধে বামপন্থী ও কংগ্রেস কর্মীরা। একইরকমভাবে কর্মনাশা ধর্মঘট-কে ব্যর্থ করতে বার্তা দেয় নবান্নও। ৬ জানুয়ারি বিজ্ঞপ্তি জারি করে রাজ্যের অর্থ দফতর জানিয়ে দেয়, ৭,৮,৯ জানুয়ারি কোন ছুটি দেওয়া হবে না রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের। কেউ ধর্মঘটের দিন অনুপস্থিত থাকলে তাঁর কর্মজীবন থেকে বাদ যাবে একটি দিন। কাটা হবে বেতন। ধর্মঘটের দিন প্রথমার্ধ বা দ্বিতীয়ার্ধে কোন ক্যাসুয়াল লিভ মঞ্জুর হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধর্মঘটের নামে ছুটি একেবারে না-পসন্দ। গত আট বছরে কড়া অবস্থানে একটু একটু করে বদলাচ্ছিল রাজ্যের বনধ সংস্কৃতি। ৮ জানুয়ারি ধর্মঘটে সরকারি কর্মচারীরা হাজিরা দিয়ে আরও একবার বনধ সংস্কৃতিকে পিছনে ফেলে দিল। এদিন নবান্ন জানিয়েছে, সারা রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের উপস্থিতির হার ৯৫ শতাংশের বেশি। অনুপস্থিত থাকা সরকারি কর্মীদের অধিকাংশই নিয়ম মেনে ছুটি নিয়েছে, এই ছুটি গুলি মঞ্জুর করবে রাজ্য।

রাজ্যের মূল সচিবালয় নবান্নের উপস্থিতির হার ধর্মঘটের দিন ছিল ৯৮%। স্বরাষ্ট্র দফতর এবং অর্থ দফতরের উপস্থিতির হার প্রায় ১০০%। মহাকরণ, নব মহাকরণে ৯৬% বেশি। একটু দূর থেকে আসা সরকারি কর্মীরা ধর্মঘটের আগের সন্ধ্যাতেই অফিসে চলে আসেন। নিজেরাই খাওয়া-দাওয়ার বন্দোবস্ত করেন। নবান্নের তিনতলা ও এগারো তলায় যথাক্রমে স্বরাষ্ট্র ও অর্থ দফতর। দুই দফতরেই আগেভাগেই সরকারি কর্মচারীরা পৌঁছে যান। নবান্নের ২ নম্বর গেট ধর্মঘটের কারণে সকাল ৯টার পরিবর্তে ৩ ঘণ্টা আগেই খুলে দেওয়া হয়।

2811_IMG_20200108_170123

বাগনান থেকে আসা সরকারি কর্মচারী উৎপল বন্দোপাধ্যায়ের কথায়,  "নবান্ন আসতে সেভাবে সমস্যা হয়নি। পথে কিছু জায়গায় ধর্মঘটীরা বাধাদানের চেষ্টা করেছে। তবে মানুষ পথে বেরিয়েছে আজ।" ধর্মঘট সফল না ব্যর্থ, তার জুতসই ব্যাখ্যা রাজনৈতিক দলগুলি দেবেন হয়তো। তবে বিপাকে পড়ার সম্ভাবনা জেনেও মানুষ পথে বেরিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছে বাংলার বনধ সংস্কৃতি বাই-বাই।

First published: 08:13:49 PM Jan 08, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर