corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজ্যে ফের করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসক, NRS ও পার্ক সার্কাসে চিকিৎসকের সংক্রমণ

রাজ্যে ফের করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসক, NRS ও পার্ক সার্কাসে চিকিৎসকের সংক্রমণ

পার্কসার্কাস ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আরও ৩ চিকিৎসক কয়েকদিন আগে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন

  • Share this:

#কলকাতা: বিশ্বজুড়ে মারণ অতিমহামারী নভেল করোনা ভাইরাসের থাবা বেড়েই চলেছে। প্রতি মুহূর্তে চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে লড়াইয়ের ময়দানে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে চিকিৎসক-নার্সদের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে এমনকি মৃত্যুও হচ্ছে অনেকের। তবু লড়াই থেমে থাকেনি। ভারতবর্ষেও করোনা ভাইরাসের থাবায় ৮ হাজার ৪৯৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন গোটা দেশে ২ লক্ষ ৯৭ হাজার ৫৩৫ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যায় সারা বিশ্বে ভারত এখন ব্রিটেনকে পিছনে ফেলে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে। আমেরিকা, ব্রাজিল, রাশিয়ার পরই এখন ভারতের স্থান। এখনও পর্যন্ত ভারতে ২০ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে করোনা আক্রান্ত হয়ে। পশ্চিমবঙ্গেও করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পায়নি চিকিৎসক-নার্স স্বাস্থ্যকর্মীরা।

রাজ্যে প্রতিদিনই কোনও না কোনও হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি হাসপাতাল, নার্সিংহোমের চিকিৎসকদের করোনা আক্রান্ত হওয়া নতুন কোনও ঘটনা নয়। এবার শিয়ালদহ এনআরএস হাসপাতালের এক চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত হলেন। এনআরএস হাসপাতালে এর আগে বেশ কয়েকজন নার্স স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হলেও হলেও এই প্রথম কোনও সিনিয়র চিকিৎসক করোনা পজিটিভ হলেন। দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুভাষ গ্রামের বাসিন্দা ইউরোলজি বিভাগের মেডিকেল অফিসার এই চিকিৎসক। গত কয়েকদিন ধরে হালকা জ্বর, মাথা ব্যথা নিয়ে একাই গ্রামের থাকছিলেন, তবে শারীরিক সমস্যা বাড়তে থাকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার লালা রসের নমুনা পরীক্ষা করে দেখে যে করোনা পজিটিভ। দ্রুত তাকে বেলেঘাটা আইডি হসপিটালে ভর্তি করা হয়। তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা। সম্প্রতি এই হাসপাতালের ইউরোলজি বিভাগের এক নার্স করোনা আক্রান্ত হন, সম্ভবত তার থেকেই সংক্রমণ ছড়ায় বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

অন্যদিকে কলকাতার পার্কসার্কাস ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল বা চিত্তরঞ্জন হাসপাতালের এক চিকিৎসকও করোনা আক্রান্ত হয়ে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। স্ত্রীও প্রসূতি রোগ বিভাগের পোস্ট গ্রাজুয়েট ট্রেনি এই চিকিৎসকও জ্বর,গলা ব্যথা নিয়ে কাজ করছিলেন, তারপর উপসর্গ বেড়ে যাওয়ায় করোনা পরীক্ষা করে দেখা যায় কবিড ১৯ পজিটিভ। এই হাসপাতালের আরও ৩ চিকিৎসক কয়েকদিন আগে করোনা আক্রান্ত হন, তবে বর্তমানে তারা সুস্থ হয়ে কাজে যোগ দিয়েছেন। গত বেশ কিছুদিন ধরে কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ২৪ পরগনা সহ রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল, বেসরকারি হাসপাতাল, নার্সিং হোমের চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীরা একের পর এক করোনা আক্রান্ত হচ্ছে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ২ জন চিকিৎসক করনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তারসঙ্গে প্রায় ২০০ জন চিকিৎসক এবং ২৫০ জনের বেশি নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

ABHIJIT CHANDA

Published by: Ananya Chakraborty
First published: June 12, 2020, 1:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर