Home /News /kolkata /
CPIM Viral Parody Song|| ইসলামপুরে 'কমলা'র পর অশোকনগরে 'ও আন্তাভা', ভোট বৈতরণী পেরোতে ট্রেন্ডে ভাসছে বামেরা

CPIM Viral Parody Song|| ইসলামপুরে 'কমলা'র পর অশোকনগরে 'ও আন্তাভা', ভোট বৈতরণী পেরোতে ট্রেন্ডে ভাসছে বামেরা

CPIM remake parody on viral song-o-antava, goes Viral: 'কমলা-এর পর এ বারে 'পুষ্পা'। পুষ্পা সিনেমার জনপ্রিয় গানকে প্যারোডি বানিয়ে প্রচার শুরু করল বামেরা।

  • Share this:

#কলকাতা: 'কমলা-এর পর এ বারে 'পুষ্পা'। পুষ্পা সিনেমার জনপ্রিয় গানকে প্যারোডি বানিয়ে প্রচার শুরু করল বামেরা। ব্রিগেডে 'টুম্পা' থেকে শুরু হয়েছিল। সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ইসলামপুরে 'কমলা'য় এসে দাঁড়িয়েছিল প্রচার। কিন্তু ইসলামপুরের প্রচারের চাইতেও কার্যত আরও একধাপ এগিয়ে গেল অশোকনগর। তাঁরা প্যারোডি বানিয়ে ফেলেছে জনপ্রিয় সিনেমা পুষ্পার 'ও আন্তাভা' গানের।

ইসলামপুর পুরসভা নির্বাচনের প্রচারে সিপিএম সমর্থকেরা প্যারোডি বানিয়েছে 'কমলায় নৃত্য করে থমকিয়া থমকিয়া'। বৃহস্পতিবার এই গান প্রকাশ করার সঙ্গে সঙ্গে আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে ইসলামপুর জুড়ে। এ বার পুষ্পা সিনেমার গানও রীতিমত ভাইরাল হয়ে গিয়েছে অশোকনগরে।নির্বাচনে বামফ্রন্ট প্রার্থীদের সমর্থনে এই প্রচার চালানো হচ্ছে দলের পক্ষ থেকে। যেই গানের ভিডিও মূলত সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রচার করা হবে। একই সঙ্গে গানটির অডিও বিভিন্ন জায়গায় চালানোর পরিকল্পনা করে ফেলেছে দল। দলীয় নেতৃত্বের একাংশ মনে করছেন এই রকমের প্রচারে ভালো সাড়া পাওয়া যাবে। কমবয়সীদের মধ্যে সহজেই নিজেদের কথা নিয়ে যাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন: 'টুম্পা সোনা'র পর 'কমলা', CPIM-এর নয়া প্যারোডিতে বুঁদ নতুন প্রজন্ম, তুমুল ভাইরাল...

সিপিএমের ছাত্র সংগঠন এসএফআই-এর উত্তর ২৪ পরগণা জেলার সম্পাদক ও এই কর্মকাণ্ডের উদ্যোক্তা আকাশ কর জানিয়েছেন, "প্রচারে আমরা কোনও পথই বাদ রাখছিনা। আর পুষ্পা সিনেমার জনপ্রিয়তার সঙ্গে যদি আমাদের প্রচার মিশিয়ে দিই তাহলে দ্রুত তা অনেক মানুষের কাছে পৌঁছে যাবে। যাচ্ছেও তাই। আমরা পুরসভার ব্যার্থতার পাশাপাশি নিজেদের কথাগুলি বলছি এই প্যারোডির মাধ্যমে। অশোকনগর পুরসভার থিম সং এটা। আমাদের সংগঠনের সদস্যরাই এটা বানিয়েছে। বাইরে থেকে আমরা কারো সাহায্য নিইনি।"

যদিও সিপিএমের এই প্রচারকে খুব একটা গুরুত্ব দিতে নারাজ শাসক দল তৃণমূল। বিধানসভা নির্বাচনে ব্রিগেডের প্রচারে 'টুম্পা সোনা' গানের প্যারোডি করায় বেশ বিতর্ক হয়েছিলো রাজ্য রাজনীতিতে। বিরোধী রাজনৈতিক দল তো বটেই বামফ্রন্টের একাধিক শরিক দল এমনকি সিপিএমের অভ্যন্তরেও এই গান ব্যবহার করায় প্রশ্ন উঠেছিলো। তবে অনেকেই এই গানকে স্বাগত জানিয়ে বলেছিল একটা নতুন সংস্কৃতি আসা মানেই সেটা খারাপ ধরে নেওয়া ঠিক নয়। তবে শৃঙ্খলা পরায়ন সিপিএমের গণসঙ্গীতের মিথ ভেঙে এই রকম প্যারোডি ঢোকা যে অনেক কঠিন সেটাও মেনে নিয়েছেন রাজনীতির কারবারিদের একাংশ।

আরও পড়ুন; আড়াই বছরের মেয়ের সামনেই ঝগড়া চলছিল স্বামী-স্ত্রীর! আচমকা যে ভয়াবহ কাণ্ড ঘটে গেল!

ব্রিগেডের পরে ভোটের প্রচারেও বেশ কয়েকটি প্রচারে প্যারোডি ব্যবহার করা হয়েছে। 'টুম্পা সোনা'র পরে 'টুনির মা', 'উরি উরি বাবা'র প্যারোডি করে বামেদের পক্ষে প্রচার চালানো হয়েছে। কান্তি গাঙ্গুলির প্রচারেও প্যারোডি বানিয়েছে রাহুল, রিয়া নীলাব্জরা। পরবর্তী সময়ে বেশকিছু আন্দোলন কর্মসূচীতেও এঁরা গান বেঁধেছেন। একই সঙ্গে ওই রাস্তায় হেঁটেছে রাজ্যের আরো বেশকিছু জেলার ছাত্রযুব সংগঠনের সদস্যরা।

তবে বিধানসভা নির্বাচনে একটিও আসন না পাওয়ায় এই গান নিয়ে সমালোচকদের কটাক্ষও হজম করতে হয়েছে বামেদের। তবে সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে না থেকে ফের প্যারোডিকেই লড়াইয়ের হাতিয়ার করতে ইসলামপুর পুরসভার প্রচারে যেরকম 'কমলা'র উপর ভরসা রাখছে সিপিএম। একই রকম ভাবে অশোকনগরেও 'পুষ্পা'র উপর আস্থা দল।

Ujjal Roy

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Cpim, Viral, West Bengal Municipal Election 2022

পরবর্তী খবর