Home /News /kolkata /
Arpita Mukherjee Belghoria Flat : অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে টাকার পাহাড়ে এক বিশেষ বস্ত্র বিপণির প্যাকেটেও রাখা ছিল টাকা

Arpita Mukherjee Belghoria Flat : অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে টাকার পাহাড়ে এক বিশেষ বস্ত্র বিপণির প্যাকেটেও রাখা ছিল টাকা

রাতভর উদ্ধার হওয়া টাকার গণনাপর্ব চলেছে একাধিক যন্ত্রে

রাতভর উদ্ধার হওয়া টাকার গণনাপর্ব চলেছে একাধিক যন্ত্রে

Arpita Mukherjee Belghoria Flat : রাতভর উদ্ধার হওয়া টাকার গণনাপর্ব চলেছে একাধিক যন্ত্রে

  • Share this:

    কলকাতা : একে টালিগঞ্জে রক্ষা নেই, বেলঘরিয়া দোসর ৷ এ বার অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার করা হল বিপুল পরিমাণ টাকা, মূল্যবান অলঙ্কার এবং সোনার বিস্কুট ৷ বুধবার রাতভর তল্লাশির পর বেলঘরিার ফ্ল্যাট থেকে পাওয়া গিয়েছে প্রায় ২৮ কোটি টাকা ৷ ইডি সূত্রে জানানো হয়েছে মোট ২৭ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে৷ পাওয়া গিয়েছে ৪ কোটি ৩১ লক্ষ টাকা মূল্যের সোনা ৷ রাতভর উদ্ধার হওয়া টাকার গণনাপর্ব চলেছে একাধিক যন্ত্রে ৷

    গত ২২ জুলাই থেকে পর পর টাকা উদ্ধারের ঘটনায় ইতিমধ্যেই কাঠগড়ায় দাঁড়িয়েছে কিছু বস্ত্র বিপণি ৷ ইডি সূত্রে জানানো হয়েছিল সন্দেহের তালিকায় থাকা বিপণিগুলির উপর নজর রাখা হয়েছিল ৷ এ বার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাট থেকে যে টাকার পাহাড় পাওয়া গেল তার মধ্যে উঁকি দিল একটি কাপড়ের দোকানের প্যাকেট ৷ সেই দোকানের নাম পশ্চিম মেদিনীপুরের সবংয়ের ‘সাউ বস্ত্রালয়’৷ ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, এই বস্ত্র বিপণির প্যাকেট থেকেও টাকা উদ্ধার করা হয়েছে৷ টাকাকাণ্ডে ওই দোকান জড়িত? নাকি এমনিই ওই দোকানের প্যাকেটে টাকা রাখা হয়েছিল? অর্থাৎ ওই দোকান সরাসরি টাকার উৎস নাকি শুধুই টাকার আধার, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানা যায়নি৷ তবে সন্দেহের তির ঘুরেছে ওই দোকানের দিকেও৷

    আরও পড়ুন : উদ্ধার হওয়া প্রায় ৫০ কোটি টাকার উৎস কী? আর কোথায় টাকা? সকাল থেকে জেরা শুরু অর্পিতাকে

    আরও পড়ুন : রাতভর তল্লাশি, অর্পিতার বেলঘরিয়ায় ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার প্রায় ২৮ কোটি নগদ, ৫ কোটির সোনা!

    বেলঘরিয়ায় অর্পিতার ফ্ল্যাটে বিপুল টাকা গণনার পর্বে সাক্ষী ছিলেন আবাসন কমিটির সম্পাদকও৷ টাকা, মূল্যবান অলঙ্কার ও সোনার বাটের পাশাপাশি এই ফ্ল্যাট থেকে পাওয়া গিয়েছে একাধিক সম্পত্তির দলিল ও নথিপত্র৷ রাতভর উদ্ধার হওয়া সোনা ও টাকা ট্রাঙ্কে ভরে ট্রাকে করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে স্ট্র্যান্ড রোডের এসবিআই সদর দফতরে। সেখানেই বাজেয়াপ্ত টাকা ও সোনা রাখা হবে ব্যাঙ্কের ভল্টে।

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Arpita Mukherjee, ED, Partha Chatterjee

    পরবর্তী খবর