• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ‘ওঁর মৃত্যুতে আমি শোকাহত, জননেতাকে হারাল পশ্চিমবঙ্গ’, প্রয়াত সোমেন মিত্রের স্ত্রী শিখা মিত্রকে চিঠি মনমোহন সিংয়ের

‘ওঁর মৃত্যুতে আমি শোকাহত, জননেতাকে হারাল পশ্চিমবঙ্গ’, প্রয়াত সোমেন মিত্রের স্ত্রী শিখা মিত্রকে চিঠি মনমোহন সিংয়ের

সোমেন মিত্রের প্রয়াণে শোকার্ত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ৷ কংগ্রেস নেতার প্রয়াণে তাঁর স্ত্রী শিখা মিত্রকে চিঠিতে শোকবার্তা মনমোহন সিংয়ের ৷

সোমেন মিত্রের প্রয়াণে শোকার্ত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ৷ কংগ্রেস নেতার প্রয়াণে তাঁর স্ত্রী শিখা মিত্রকে চিঠিতে শোকবার্তা মনমোহন সিংয়ের ৷

সোমেন মিত্রের প্রয়াণে শোকার্ত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ৷ কংগ্রেস নেতার প্রয়াণে তাঁর স্ত্রী শিখা মিত্রকে চিঠিতে শোকবার্তা মনমোহন সিংয়ের ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: অভিভাবক হারাল রাজ্যের কংগ্রেস শিবির ৷ রাজ্য রাজনীতির ছোড়দা। তিনি আমহার্স্ট স্ট্রিটের ম্যাজিসিয়ান। অনেকের কাছেই তিনি প্রদেশ কংগ্রেসের সুভাষ চক্রবর্তী। যিনি কার্যত সবকিছু করতে পারেন। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রের প্রয়াণে রাজ্য রাজনীতিই শুধু নয়, জাতীয় রাজনৈতিক মহলেও শোকের ছায়া ৷ সোমেন মিত্রের প্রয়াণে শোকার্ত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং ৷ কংগ্রেস নেতার প্রয়াণে তাঁর স্ত্রী শিখা মিত্রকে চিঠিতে শোকবার্তা মনমোহন সিংয়ের ৷

    প্রয়াত সোমেন মিত্রের স্ত্রীকে চিঠিতে মনমোহন সিং লিখেছেন, ‘ওঁর মৃত্যুতে আমি শোকাহত ৷ উঁচু মাপের রাজনৈতিক নেতা ছিলেন ৷ জননেতাকে হারাল পশ্চিমবঙ্গ ৷ এ ক্ষতি অপূরণীয় ৷’

    বুধবার গভীর রাতে দক্ষিণ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রের ৷ রাত ১টা ৫০ নাগাদ বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন৷

    সোমেন মিত্রের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন রাহুল গান্ধিও ৷ ‘ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার সঙ্গে উনি মনে থাকবেন,’ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রকে এ ভাবেই শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধি৷ বৃহস্পতিবার সকালে রাহুল গান্ধি ট্যুইটারে লেখেন, 'সোমেন মিত্র মনে থাকবেন ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার সঙ্গে ৷ সোমেন মিত্রের পরিবার ও পরিজনের পাশে আছি এই কঠিন সময়ে ৷'

    দীর্ঘদিন ধরে হার্টের অসুখে ভুগছিলেন সোমেন মিত্র৷ সঙ্গে কিডনির সমস্যাও ছিল৷ এর আগেও দিল্লির এইমসে (AIIMS) ভর্তি হয়েছিলেন৷ গত ২১ জুলাই শ্বাসকষ্টের সমস্যা দেখা দেয়৷ দক্ষিণ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়৷ ডাক্তাররা জানান, শরীরে ক্রিয়েটিনিনের মাত্রা বেড়ে গিয়েছে৷ ডায়ালিসিস শুরু হয়৷ করোনা পরীক্ষায় অবশ্য রিপোর্ট নেগেটিভ আসে৷

    কয়েক দিন ধরে চিকিত্‍সায় সাড়াও দিচ্ছিলেন এই বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা৷ শনিবার থেকে কিডনির সমস্যা বাড়তে শুরু করে৷ মঙ্গলবারও ডাক্তাররা জানান, চিকিত্‍সায় ভাল সাড়া দিচ্ছেন তিনি৷ বুধবার রাতে হঠাত্‍ অবস্থা খারাপ হতে শুরু করে৷ রাত ১টা ৫০ নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি৷ কংগ্রেসের তরফে রাতেই ট্যুইট করে সোমেন মিত্রকে শ্রদ্ধা জানানো হয়৷

    Published by:Elina Datta
    First published: