• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MAN TRYING TO SMUGGLE GOLD OF 72 LAKH RUPEES CAPTURED IN KOLKATA AIRPORT AKD

Gold Smuggler arrested in Kolkata Airport| পাচারকারীর গোপনাঙ্গে লুকনো ৭২ লক্ষ টাকার সোনা! কলকাতা বিমানবন্দরের ঘটনায় সিনেমাও হার মানবে

ধৃত মহম্মদ আলি। ইনসেটে সোনাভরা প্যাকেট।

Gold Smuggler arrested in Kolkata Airport| পুলিশের দাবি, ব্যক্তির কাছে ১ কেজি ৭৪০ গ্রাম সোনা ছিল।

  • Share this:

    অনুপ চক্রবর্তী, কলকাতা: গোপনাঙ্গের লুকোনো ৭২ লক্ষ টাকার সোনা। ঘুণাক্ষরেও কেউ টের পাবে না এই আশায় তিনি কলকাতা থেকে দিল্লি রওনা হওয়ার ছক সাজিয়ে ফেলেছিলেন এক ব্যক্তি। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। কলকাতা বিমানবন্দরে সিকিওরিটি চেকিংয়ে ধরা পড়ে গেল ওই ব্যক্তি। তাঁর নাম আলি মহাম্মদ।  পুলিশের দাবি, ব্যক্তির কাছে ১ কেজি ৭৪০ গ্রাম সোনা ছিল।

    সূত্রের খবর  এই যাত্রী দিল্লিযাত্রার সিকিউরিটি চেকিংয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। এই সময় স্ক্যানিং মেশিনে ধরা পড়ে তার কুচকির মধ্যে দুটি প্লাস্টিকের প্যাকেট। সন্দেহ হওয়ায় নিরাপত্তারক্ষীরা ওই হলুদ প্যাকেটগুলি দেখতে চায়। সেই প্যাকেট সামনে আসতে থ তাঁরাও।  পরবর্তী সময় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে জানায়,  সে যে সোনা নিয়ে যাচ্ছে যার বাজারমূল্য অন্তত ৭২ লক্ষ টাকা। পরবর্তী সময়ে তাকে শুল্ক দফতরের হাতে তুলে দেয়া হয়েছেসূত্রের খবর  ধৃত মহম্মদ আলির Go Air-এর বিমানে যাওয়ার কথা ছিল। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে শুল্ক দফতর। কোথায় এই সোনা পাচার করা হচ্ছিল, ধৃত মহাম্মদ আলি কোনও বড় পাচারচক্রের সঙ্গে যুক্ত কিনা, কতদিন ধরে তিনি সোনা পাচারের ব্যবসা চালাচ্ছেন, এই সোনা কোথা থেকে সংগ্রহ করল সে, এই সব প্রশ্নের উত্তর মহাম্মদ আলির থেকেই পেতে চায় শুল্ক দফতরের আধিকারিকরা।

    প্রসঙ্গত দিন কয়েক আগেই কলকাতা বিমানবন্দর থেকে কয়েকটি পাথর উদ্ধারের ঘটনায় হইচই পড়ে গিয়েছিল। অনেকেই মনে করছিলেন ওই পাথর আসলে ক্যালিফোর্নিয়াম স্টোন নামক এক বহুমূল্য জিনিস যার বাজার দর চার কোটি টাকার বেশি। সিআইডির আধিকারিকরা ওই পাথর উদ্ধার করে নিয়ে যায়। মনে করা হচ্ছিল পরমানু বোমা তৈরিতে ব্যবহৃত ওই পাথরটি রাখা হয়েছে নাশকতার কোন ছক কষতেই। পরে অবশ্য দেখা যায় ওই পাথর আদৌ ক্যালিফোর্নিয়াম নয় বরং সাধারণ মামুলি পাথর। অনুমান করা হয় মানুষকে বোকা বানিয়ে অর্থ উপার্জনের জন্য কেউ ওই চারটি পাথর রেখে গিয়েছিল।

    Published by:Arka Deb
    First published: