দিল্লি থেকে এসে বাংলার বদনাম করে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা বিজেপির :মমতা

বাংলায় শান্তির পরিবেশ রয়েছে কিন্তু বিজেপি বদনাম করে অপপ্রচার করে ধর্মের নামে ভেদাভেদের রাজনীতি করছে বলেই মমতার মত

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Mar 19, 2019 07:29 PM IST
দিল্লি থেকে এসে বাংলার বদনাম করে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা বিজেপির :মমতা
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Mar 19, 2019 07:29 PM IST

#কলকাতা: হোলি নিয়ে মারোয়াড়ি সম্প্রদায়ের অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বারবার নিশানা করলেন মোদি সরকারকে। মন জেতার চেষ্টা করলেন, বিজেপির ভোটব্যাঙ্ক বলে পরিচিত মারোয়াড়ি ব্যবসায়ীদের। দেশ জুড়ে ভোটের হাওয়া। তার মাঝেই হোলি। হোলির গায়েও তাই ভোটের রং। হোলির শুভেচ্ছা জানাতে, মঙ্গলবার, মারোয়াড়ি সম্প্রদায়ের একটি অনুষ্ঠানে যান মুখ্যমন্ত্রী। নিশানা করেন বিজেপিকে।

নাম না করে বিজেপিকে নিশানা মমতার ৷ তিনি বলেছেন যে তিনি ও তাঁর দল মানবিকতার ধর্মে বিশ্বাসী ৷ আমরা রক্তের হোলি খেলি না বলেছেন মমতা বন্দ্যপাধ্যায় ৷ তিনি আরও বলেন যে ‘কাজ করলে কেউ না কেউ বদনাম করবেই’ ৷ তবে তার জন্য তো কাজ থেমে থাকবে না ৷

বাংলায় শান্তির পরিবেশ রয়েছে কিন্তু বিজেপি বদনাম করে অপপ্রচার করে  ধর্মের নামে ভেদাভেদের রাজনীতি করছে বলেই মমতার মত ৷ ’তিনি প্রশ্ন তোলেন যে বিজেপি কি আমাদের ধর্ম শেখাবে? বাংলায় সব ধর্মের উৎসব পালন হয় এবং সকলকে নিয়ে চলে তাঁর দল ৷ ‘সরব হলেই সিবিআই-ইডির ভয় দেখায় বিজেপি তাই দেশে গণতন্ত্র নেই বলেই দাবি করেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ৷

বিজেপির বিরুদ্ধে বরাবরই ধর্মের নামে ভেদাভেদের রাজনীতিতে সরব তৃণমূল। পালটা তৃণমূলের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু তোষামোদের রাজনীতির অভিযোগকে অস্ত্র করে বিজেপি। যা মানতে নারাজ রাজ্যের শাসক দল। এ দিন মারোয়াড়ি সম্প্রদায়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে গেরুয়া শিবিরের দিকে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নানা ইস্যুকে হাতিয়ার করে বারবার মোদি সরকারকে আক্রমণ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন কেন্দ্রীয় বাহিনীর অতিসক্রিয়তার অভিযোগ তৃণমূলের, রিপোর্ট তলব করল কমিশন

Loading...

মারোয়াড়ি-ব্যবসায়ীদের বরাবরই বিজেপির ভোটব্যাঙ্ক হিসেবে মনে করা হয়। পর্যবেক্ষকদের একাংশের মতে, এ দিন নজরুলমঞ্চের অনুষ্ঠানে গিয়ে সেই মারোয়াড়ি সম্প্রদায়ের ভোটারদেরই পাশে পাওয়ার চেষ্টা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

First published: 07:16:56 PM Mar 19, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर