• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MAMATA BANERJEE THANKED NARENDRA MODI FOR WISHES AFTER HER OATH AS CM OF WEST BENGAL SB

Mamata Thanks Modi: 'কেন্দ্র-রাজ্য সম্পর্কে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করব', মোদিকে ধন্যবাদ কুশলী মমতার

শপথ নিয়ে কৌশলী মমতা

মমতাকে উল্লেখ করে মোদি লেখেন, 'পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করার জন্য মমতা দিদিকে শুভেচ্ছা। কেন্দ্রীয় সরকার পশ্চিমবঙ্গের মানুষের উন্নয়ন ও কোভিড মহামারী কাটিয়ে উঠতে সর্বত সাহায্য করবে।'

  • Share this:

    #কলকাতা: বিধানচন্দ্র রায়, জ্যোতি বসুর পর তৃতীয় বারের জন্য বাংলার মুখ্যমন্ত্রী পদে অভিষিক্ত হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। মাত্র তিন মিনিটের, ছিমছাম শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান সেরে নবান্নে পৌঁছে যান মমতা। সেখানে পুলিশের তরফে গার্ড অব অনার দেওয়া হয় তাঁকে। সেই অনুষ্ঠান সেরেই ১৪ তলার দফতরে পৌঁছলেন তিনি। আর ঠিক সেই সময়েই ট্যুইটে এল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শুভেচ্ছা বার্তা। ফল প্রকাশের পর প্রধানমন্ত্রীর তরফে শুভেচ্ছাবার্তা না আসা নিয়ে 'আক্ষেপ' ব্যক্ত করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেছিলেন, 'এই প্রথম প্রধানমন্ত্রীর তরফে কোনও বার্তা এল না। উনি ব্যস্ত হয় না। তবে,আমি কিছু মনে করিনি।' মমতার সেই বার্তার পরই এদিন শপথ গ্রহণের পর ট্যুইটে মমতাকে উল্লেখ করে মোদি লেখেন, 'পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করার জন্য মমতা দিদিকে শুভেচ্ছা। কেন্দ্রীয় সরকার পশ্চিমবঙ্গের মানুষের উন্নয়ন ও কোভিড মহামারী কাটিয়ে উঠতে সর্বত সাহায্য করবে।' আর মোদির সেই শুভেচ্ছার পাল্টা ট্যুইটে কৌশলী চাল দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

    প্রসঙ্গত, বাংলার ভোট প্রচারে মমতাকে 'দিদি, ও দিদি' ডাকে আক্রমণ শানিয়েছিলেন মোদি। যা নিয়ে সমালোচনার ঝড়ও উঠেছিল। এরপর ফল প্রকাশের অপ্রত্যাশিত ভরাডুবির পর মমতাকে কোনও শুভেচ্ছা জানাননি মোদি। যা নিয়ে কটাক্ষও করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী। এদিন অবশ্য শপথগ্রহণের পরই মমতাকে ট্যুইট করেন মোদি। সেখানে তিনি অবশ্য 'মমতা দিদি' বলে সম্বোধন করেন তিনি।

    আর পাল্টা ট্যুইটে মমতা লেখেন, 'ধন্যবাদ নরেন্দ্র মোদিজি আপনার শুভেচ্ছার জন্য। পশ্চিমবঙ্গের জন্য কেন্দ্রের সর্বত সাহায্যের দিকে আমি তাকিয়ে আছি। আমি আমার তরফে সমস্ত সহযোগিতা বাড়িয়ে দেব এই মহামারী রুখতে এবং কেন্দ্র-রাজ্য সুসম্পর্কের নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে।'

    রাজনৈতিক মহলের মতে, এবারের নির্বাচনে মমতার বিরুদ্ধে কেন্দ্রের সঙ্গে অসহযোগিতা, কেন্দ্রীয় প্রকল্প চালু না করা সহ একাধিক অভিযোগ তুলে ভোট প্রচারে গিয়েছিল বিজেপি। মমতারও পাল্টা অভিযোগ ছিল, রাজ্যের প্রাপ্য টাকা না দেওয়ার বিষয়ে। ফলে অবশ্য বোঝা যাচ্ছে, বিজেপির অভিযোগ ধোপে টেকেনি। এই পরিস্থিতিতে ক্ষমতায় এসে মমতার কেন্দ্র-রাজ্য সুসম্পর্কের বার্তা দেওয়া কৌশলী চাল বলেই মনে করছে ওয়াকিবহল মহল।

    Published by:Suman Biswas
    First published: