• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • MAMATA BANERJEE QUESTIONS RESIGNATION OF HARSH VARDHAN BLAMING NARENDRA MODI DMG

Mamata Banerjee: একা হর্ষ বর্ধনের ঘাড়ে কেন ব্যর্থতার দায়? সরাসরি মোদির দিকেই আঙুল মমতার

হর্ষ বর্ধনের ইস্তফা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মমতা৷

করোনা অতিমারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা সামাল দিতে ব্যর্থতার দায় নিয়েই সরে যেতে হল হর্ষ বর্ধনকে৷ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ইস্তফা নিয়েই এ দিন সরাসরি প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee)৷

  • Share this:

    #কলকাতা: করোনা অতিমারির ব্যর্থতার দায় কেন একা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর উপরে চাপানো হবে? কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার রদবদলের আগে এই প্রশ্ন তুলে সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দিকেই আঙুল তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

    কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার রদবদলের আগে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী ইস্তফা দিয়েছেন৷ তার মধ্যে সবথেকে উল্লেখযোগ্যা কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের পদত্যাগ৷ শুধু হর্ষ বর্ধনই নন, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী অশ্বিনী চৌবেকেও পদত্যাগ করতে হয়েছে৷ রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা, করোনা অতিমারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা সামাল দিতে ব্যর্থতার দায় নিয়েই সরে যেতে হল হর্ষ বর্ধন এবং তাঁর ডেপুটিকে৷

    কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ইস্তফা নিয়েই এ দিন সরাসরি প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, 'স্বাস্থ্যমন্ত্রী কেন পদত্যাগ করেছেন আমি বলতে পারব না৷ ওনাকে নিশ্চয়ই পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে তাই করেছেন৷ এটা বিজেপি-র অভ্যন্তরীণ বিষয়৷ তাদেরকেই প্রশ্ন করুন৷ শুধু স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে কী হবে? করোনা নিয়ে সব বৈঠক তো প্রধানমন্ত্রীই করেছেন৷ সবকিছুই তিনিই দেখেন৷ এটা ওদের দলের সিদ্ধান্ত কাকে রাখবে, কাকে রাখবে না৷'

    মুখ্যমন্ত্রীর আরও দাবি, আসলে করোনা অতিমারির সমস্যাকে গুরুত্বই দেয়নি বিজেপি৷ তাঁর অভিযোগ, 'বিজেপি কি করোনা অতিমারিকে আদৌ গুরুত্ব দিয়েছে? বা মানুষের অন্য কোনও সমস্যাকে গুরুত্ব দিয়েছে কোনওদিন? ওরা খালি নিজেদের দলের ভালোটা বোঝে৷ প্রতিদিন রাজনীতি করে৷ সরকারের কাজে ওদের মানায় না৷ দলের জন্য ওরা সবকিছু করতে পারে, কিন্তু মানুষের জন্য কিছু করতে পারে না৷ করোনাকে বিজেপি গুরুত্ব দিলে দ্বিতীয় ঢেউ আসত না৷ এতদিনে সবাইকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়ে যেত৷' করোনা অতিমারি নিয়ে লাগাতার কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ প্রধানমন্ত্রীর ডাকা বৈঠকেও এ নিয়ে সরব হয়েছেন তিনি৷ বিনামূল্যে সবাইকে ভ্যাকসিন দেওয়ার দাবিতেও ফেব্রুয়ারি মাসে প্রথমবার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের পরেও করোনা অতিমারির সামলানোর ব্যর্থতার জন্য সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর দিকেই আঙুল তুললেন মুখ্যমন্ত্রী৷

    করোনা অতিমারির দ্বিতীয় দফায় দেশের একটা বড় অংশে স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ভেঙে পড়েছিল৷ মেডিক্যাল অক্সিজ্যানের অভাবে প্রাণ গিয়েছে অসংখ্য রোগীর৷ খোদ রাজধানী দিল্লিতেই অক্সিজেনের সঙ্কট চরমে পৌঁছয়৷ যা কেন্দ্রীয় সরকার এবং বিজেপি-র কাছে প্রবল অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল৷ আর ব্যর্থতার দায় ঘাড়ে নিয়েই হর্ষ বর্ধনকে সরতে হল বলেই মনে করা হচ্ছে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: