মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নয়া নিয়ম, কেন কম নম্বর পরীক্ষার্থীদের জানাতে হবে শিক্ষকদের

মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নয়া নিয়ম, কেন কম নম্বর পরীক্ষার্থীদের জানাতে হবে শিক্ষকদের

কোন প্রশ্নের উত্তরে পুরো নম্বর কেন দেওয়া হল না তা পরীক্ষার্থীদের উত্তরপত্রে লিখতে হবে শিক্ষকদের।

  • Share this:
#কলকাতা: শিক্ষকদের জন্য নয়া ফরমান জারি করল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। কোন প্রশ্নের উত্তরে পরীক্ষার্থীদের পুরো নম্বর না দেওয়ার কারণ জানাতে হবে মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের। পরীক্ষার্থীদের উত্তরপত্রেই লেখা উত্তর এর পাশেই এই কারণ জানিয়ে দিতে হবে শিক্ষকদের। অর্থাৎ কোন প্রশ্নের পূর্ণমান ৩ হলে সেখানে কোনও পরীক্ষার্থী যদি ২ নম্বর দেওয়া হয় সে ক্ষেত্রে কেন কম নম্বর দেওয়া হলো তারই কারণ জানাতে হবে শিক্ষকদের। ইতিমধ্যেই পর্ষদের তরফে সেই নির্দেশিকা জারি করে দেওয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে পর্ষদ সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছেন "নির্ভুল উত্তরপত্র মূল্যায়নের জন্যই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরীক্ষার্থীদের উত্তরপত্র মূল্যায়ন নিয়ে অনেক অভিযোগ আসে। বিশেষত নম্বর কেন কম দেওয়া হয়েছে তা জানতে চেয়ে। তার জন্যই পর্ষদের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ।" মাধ্যমিকের উত্তরপত্র মূল্যায়ন নিয়ে প্রত্যেক বছরই পরীক্ষার্থীদের মধ্য থেকে একাধিক অভিযোগ উঠে আসে । মূলত নম্বর কম পাওয়ার কারণ হিসেবে পরীক্ষার্থীরা আর টি আই করে থাকেন। অনেক ক্ষেত্রেই শিক্ষকদের মূল্যায়নে গাফিলতিও উঠে এসেছে। তার জেরে প্রত্যেক বছর এই বহু পরীক্ষার্থীর নম্বর বাড়ে। শুধু তাই নয় এই নম্বর বাড়ার জন্য মেধা তালিকারও পরিবর্তন হয়েছে। অনেক সময় উত্তরপত্র মূল্যায়নের ভুল আবার কখনও  নম্বর যোগ করতে ভুল। যার জেরে ও একাধিকবার পরীক্ষার্থীরা আদালতের দ্বারস্থ পর্যন্ত হয়েছে। এবার সেই ব্যবস্থারই পুনরাবৃত্তি চায় না মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। তাই নয়া নিয়মে মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের জানিয়ে দেওয়া় হয়েছে যদি কোন প্রশ্নের উত্তরে সন্তুষ্ট না হয়ে শিক্ষকরা পুরো নম্বর না দিতে পারেন, তাহলে তার কারণ ও জানিয়ে দিতে হবেে শিক্ষকদের। অর্থাৎ ঐ প্রশ্নের উত্তরের ক্ষেত্রে পরীক্ষার্থীদের আরও কি কি বিষয় লেখা উচিত ছিল তাই জানিয়ে় দিতে হবে শিক্ষকদের। মূলত এই ব্যবস্থার জেরে অনেকটাই পরীক্ষার্থীদের অভিযোগের সুরাহা হবে বলেই আশা মধ্যশিক্ষা পর্ষদের। তবে গতবারের তুলনায় উত্তরপত্র মূল্যায়নে কম সময় দেওয়া হয়েছে। তার উপরে এই নয়া নিয়ম সমস্যায় ফেলবে না তো শিক্ষকদের? যদিও পর্ষদ সভাপতির দাবি  এই নয়া নিয়মের জেরে নির্ভুল মূল্যায়ন করতে পারবেন শিক্ষকরাই।
SOMRAJ BANDOPADHYAY
First published: March 3, 2020, 1:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर