শুরু হয়ে গেল অফলাইন ক্লাস,পথ দেখাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

শুরু হয়ে গেল অফলাইন ক্লাস,পথ দেখাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
ক্লাস শুরু হল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে

স্নাতকোত্তর স্তরের প্রথম বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের ভর্তি হওয়ার পর এদিন থেকেই প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় আসা শুরু করলেন।

  • Share this:

#কলকাতা: প্রায় দশ মাস বাদে ক্লাসরুমে ক্লাস শুরু করল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সোমবার থেকেই শুরু হল বিশ্ববিদ্যালয়ের জুওলজি বিভাগের প্রাক্টিক্যাল ক্লাস। স্নাতকোত্তর স্তরের প্রথম বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের ভর্তি হওয়ার পর এদিন থেকেই প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় আসা শুরু করলেন।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেল না খোলায় কেউ ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে আবার কেউ বন্ধু-বান্ধবদের বাড়ি থেকেই আপাতত ক্লাস করবেন ছাত্রছাত্রীরা। এদিন সকাল ১১ টা থেকে ক্লাস শুরু করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকরা জানাচ্ছেন প্রাক্টিক্যাল ক্লাস করানোর জন্যই আপাতত অনুমতি পাওয়া গেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের থেকে। পরবর্তী ক্ষেত্রে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত জানানোর ওপরই ক্লাস নেওয়ার বিষয়ে নির্ভর করছে।এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে জুওলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সাগরতীর্থ সরকার বলেন " ছাত্র-ছাত্রীদের তরফে অনেকদিন ধরেই আবেদন আসছিল ক্লাস করার। আমরা বিশ্ববিদ্যালয় উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলি। আপাতত প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস শুরু করার অনুমতি পেয়েছি। প্রাথমিকভাবে টানা ১০ দিন প্রাকটিক্যাল ক্লাস করানো হবে।"

গত মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহ থেকেই করোনার জেরে রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়,স্কুল-কলেজ বন্ধ রয়েছে। বন্ধ থাকলেও অনলাইনে ক্লাস করিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অধ্যাপিকারা । তবে অনলাইনে ক্লাস হলেও প্রাক্টিক্যাল ক্লাস কিভাবে করানো হবে তা নিয়ে রীতিমতো চিন্তিত ছিল বিশ্ববিদ্যালয়গুলি। বিশেষত স্নাতকোত্তর স্তরে ছাত্র ছাত্রীদের প্র্যাকটিক্যাল ক্লাস নিয়ে উদ্বেগে ছিলেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অধ্যাপিকারা। অনলাইনে ক্লাস হলেও সেই ক্লাসের সব ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করতে পারছিল না সেভাবে। বলতো সব মিলিয়ে অফলাইনে ক্লাস করানোর জন্য রীতিমতো ছাত্র-ছাত্রীদের তরফের দাবি আসছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে। বিশেষত জুওলজি,বোটানির মত প্রাক্টিক্যাল কেন্দ্রিক বিষয়গুলির ক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীদের তরফ এ প্রাক্টিক্যাল ক্লাস করানোর দাবি উঠে আসছিল। অবশেষে সোমবার থেকে শুরু হল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্টিক্যাল ক্লাস। যদিও মাত্র কয়েকটি বিভাগের ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে ক্লাসরুমে প্রাক্টিক্যাল ক্লাস করানোর প্রস্তুতি নিয়েছে। সোমবার থেকে দীর্ঘ দশ বছরের বেশি সময় বাদে ক্লাস শুরু হওয়ায় উচ্চসিত ছাত্রছাত্রীরা।


তবে হোস্টেল না খোলায় আপাতত বন্ধুদের বাড়ি, ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে ছাত্রছাত্রীরা ক্লাস করছেন। বহরমপুর থেকে আসা এক ছাত্রী বলেন " অনলাইনে ক্লাস করে সব সময় অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায় না। তাই সশরীরে এসে ক্লাসরুমে ক্লাস করানোর মধ্য দিয়েই আসল জিনিসটি জেনে নেওয়া যায়। আমাদের প্রাকটিক্যাল ক্লাস হচ্ছিল না তার জেরে আমরা সমস্যায় পড়েছিলাম।"একইভাবে বাঁকুড়া থেকে আসা এক ছাত্রী বলেন " আমরা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হবার পর আজ থেকেই প্রথম বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস করছি। এতদিন বাদে ক্লাস করতে আসায় আমরা খুশি।" অন্যদিকে একটি নির্দিষ্ট ঘরে নয়,একাধিক ঘরে ছাত্র ছাত্রীদের ক্লাস নেওয়া হচ্ছে যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে। ক্লাস চলাকালীন ছাত্র-ছাত্রীদের মাস্ক পড়া কার্যত বাধ্যতামূলক করেছে বিভাগ। অন্যদিকে আগামী বুধবার উপাচার্যদের নিয়ে বৈঠকে বসছেন শিক্ষা মন্ত্রী। সেই বৈঠকে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা নিয়ে আলোচনা হওয়ার সম্ভাবনা বলেই মনে করা হচ্ছে।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Arka Deb
First published: