• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • KMC Election Results 2021: নিজেদের ছাপিয়ে যাওয়ার লড়াই তৃণমূলের, কঠিন পরীক্ষায় পাস মার্কস পাবে বিরোধীরা?

KMC Election Results 2021: নিজেদের ছাপিয়ে যাওয়ার লড়াই তৃণমূলের, কঠিন পরীক্ষায় পাস মার্কস পাবে বিরোধীরা?

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

বিরোধীদের অভিযোগ উড়িয়ে উন্নয়নের নিরিখেই ভাল ফলের আশাবাদী তৃণমূল নেতাদের দাবি, ১৩০-এর বেশি ওয়ার্ড দখল করবে তারা (KMC Election Results 2021)৷

  • Share this:

    #কলকাতা: ছোট লাল বাড়ি কার দখলে থাকবে? এই প্রশ্নের উত্তরের থেকেও একটা বিষয় নিয়েই যেন কলকাতা সহ রাজ্যবাসীর কৌতূহল বেশি (KMC Election Results 2021)৷ তা হল, ২০১৫-র পুরভোটের ফলকেও কি ছাপিয়ে যেতে পারবে রাজ্যের শাসক দল?

    ছ' বছর আগে ২০১৫ সালে কলকাতা পুরসভা নির্বাচনে ১১৪টি আসনে জয়ী হয়েছিল তৃণমূল৷ পরবর্তী সময়ে অন্যান্য দলের আরও বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর শাসক দলে যোগ দিয়েছিলেন৷ নির্দল তিন কাউন্সিলরকেও দলে টেনে নিয়েছিল তৃণমূল৷ সবমিলিয়ে কলকাতা পুরসভার ১৪৪টি ওয়ার্ডের মধ্যে ১২০-র বেশি ওয়ার্ডে দাপট ছিল শাসক শিবিরের৷

    আরও পড়ুন: কলকাতা পুরসভা নির্বাচনের ফলাফল, জানুন লাইভ আপডেট

    সময়ে ভোট হলে ২০২০ সালে কলকাতা পুরসভা নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু বিধানসভা নির্বাচন এবং তার পরে উপনির্বাচনেও তৃণমূলের একচ্ছত্র আধিপত্যের পর পুরভোটের ফল নিয়ে গণনার আগেই খুব বেশি আশাবাদী নয় বিরোধীরা৷ কারণ ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফলের নিরিখে কলকাতায় ১৩১টি ওয়ার্ডে এগিয়ে ছিল তৃণমূল৷ ১২টি ওয়ার্ডে এগিয়ে ছিল বিজেপি৷ বরং ২০১৫-র প্রাপ্ত ওয়ার্ড সংখ্যার নীচে তৃণমূলকে আটকে রাখতে পারলেই যেন তা বিরোধীদের কাছে নৈতিক জয়ের সামিল৷

    হাতে গোণা যে কয়েকটি ওয়ার্ড তাদের দখলে রয়েছে, তা ধরে রাখাই বিরোধী দলগুলির কাছে কঠিন পরীক্ষায় পাস করার মতো৷ ভোটের দিন ব্যাপক সন্ত্রাসের অভিযোগে সরব হয়ে ইতিমধ্যেই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে বিরোধীরা৷

    আরও পড়ুন: দু'হাজার পুলিশকর্মী, উপস্থিত উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিকরা, কড়া নিরাপত্তায় মোড়া গণনা কেন্দ্র

    তাদের লড়াইটা যে নিজেদের সঙ্গেই, তা ভাল করে জানে তৃণমূল নেতৃত্ব৷ বিরোধীদের অভিযোগ উড়িয়ে উন্নয়নের নিরিখেই ভাল ফলের আশাবাদী তৃণমূল নেতাদের দাবি, ১৩০-এর বেশি ওয়ার্ড দখল করবে তারা৷

    কলকাতা পুরসভার ১৫টি বরোর ১৪৪টি ওয়ার্ডের ভোট গণনা হবে দশটি গণনাকেন্দ্রে৷ আটটা থেকে ভোট গণনা শুরু হওয়ার পর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ছবিটা স্পষ্ট হয়ে যাবে বলে রাজ্য নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর৷

    ভোটের দিনের মতো বিক্ষিপ্ত অশান্তি, গন্ডগোল এড়াতে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে প্রতিটি গণনাকেন্দ্রে৷ ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে প্রতিটি গণনাকেন্দ্রে৷ নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকছে প্রায় তিন হাজার পুলিশকর্মী৷ প্রত্যেক গণনাকেন্দ্রে নিরাপত্তা ব্যবস্থা তদারকি করার জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে একজন ডিসি পদমর্যাদার অফিসারকে৷ গোটা গণনা পর্বের ভিডিও রেকর্ডিং করা হবে৷ ভোটের দিনের মতোই আজও বড় পরীক্ষার সামনে কলকাতা পুলিশ৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: