টেট ২০১৪ ঘিরে জটিলতার আশঙ্কা, সঠিক উত্তরের জন্য রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের

টেট ২০১৪ ঘিরে জটিলতার আশঙ্কা, সঠিক উত্তরের জন্য রিপোর্ট তলব হাইকোর্টের

TET and Teacher

  • Share this:

     #কলকাতা: ফের আইনি ফাঁসে প্রাথমিক টেট ৷ প্রাথমিক টেট ২০১৪ কে ঘিরে তৈরি হয়েছে জটিলতার আশঙ্কা ৷ ২০১৫ সালে হওয়া প্রাথমিকের টেট পরীক্ষায়, পর্ষদের বেশ কিছু উত্তরে ঘিরে যে বিভ্রান্তি রয়েছে তাতে মান্যতা দিল কলকাতা হাইকোর্ট। সঠিক উত্তরের জন্য রিপোর্ট তলব আদালতের শুক্রবার শুনানিতে বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ‍্যায়, বিশ্বভারতীর উপাচার্যকে কমিটি গড়ে, কোনটা ঠিক উত্তর, আর কোনটি ভুল, তা রিপোর্ট আকারে জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন। মুখ বন্ধ খামে ১৯ সেপ্টেম্বরের মধ‍্যে রিপোর্ট জমা দিতে হবে কমিটিকে।

    আরও পড়ুন 

    প্রাথমিক টেট পরীক্ষায় অনিয়ম হয়েছে, জানাল হাইকোর্ট

    পরীক্ষায় প্রশ্ন এবং পর্ষদের দেওয়া উত্তর সব মিলিয়ে ১১টি বিষয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে ৷ মামলাকারী প্রতিভা মন্ডল, গোবিন্দ বৈরাগী সহ ৫০০ জনের যুক্তি, পর্ষদ কোনও জায়গায় প্রশ্নের উত্তর ভুল দিয়েছে, কোথাও প্রশ্নটাই ভুল ৷ ১১টি প্রশ্নে বিভ্রান্তিকে মান্যতা দিল এদিন হাইকোর্টে সিঙ্গল বেঞ্চ ৷ বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের নির্দেশ, বিভ্রান্তি দূর করতে বিশেষজ্ঞদের নিয়ে কমিটি গড়ে মামলায় যে প্রশ্নগুলি নিয়ে বিভ্রান্তি তার পরিপ্রেক্ষিতে কোন বিকল্পগুলি সঠিক তা সিদ্ধান্ত নেবেন বিশ্বভারতী উপাচার্য সবুজকলি সেন ৷

    প্রাথমিকে নিয়োগের জন্য রাজ‍্যে দ্বিতীয় টেটের বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল ২০১৪ সালে। পরীক্ষা হয় ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর। এই টেট পরীক্ষাতে উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের মধ্যে থেকে প্রাথমিকে ১৮ থেকে ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগও করা হয়। কিন্তু, প্রায় ৫০০ পরীক্ষার্থী হাইকোর্টে মামলা করে অভিযোগ করেন, পর্ষদের বেশ কিছু উত্তরে ভুল রয়েছে। সেই মামলার শুনানিতেই এদিন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চ তার পর্যবেক্ষণে জানিয়েছে, মামলাকারীদের উত্তর সঠিক হলে তাঁদের নম্বর যদি বাড়ে, সেক্ষেত্রে তাঁদের মেধা তালিকায় জায়গা দেওয়ার নির্দেশও দিতে পারে কোর্ট। সেক্ষেত্রে ইতিমধ্যে নিযুক্ত প্রাথমিক শিক্ষকদের উপর কোনও প্রভাব পড়বে কিনা সেই আশঙ্কাও তৈরি হয়েছে ৷

    রিপোর্টার- অর্ণব হাজরা

    First published:

    লেটেস্ট খবর