• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • GOOD NEWS FOR THOSE WHO LOST THEIR FUND IN MONEY LAUNDERING CASE CALCUTTA HIGH COURT EXTEND TIME SPAN OF TALUKDAR COMMITTEE ED

চিটফান্ডে প্রতারিতদের জন্য আশার আলো, তালুকদার কমিটির মেয়াদ আরও বাড়াল হাইকোর্ট

কলকাতা হাইকোর্ট

২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এমপিএস চিটফান্ডের টাকা আমানতকারীদের ফিরিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে হাইকোর্ট তৈরি করে দেয় বিশেষ কমিটি।

  • Share this:

    Arnab Hazra

    #কলকাতা: চিটফান্ডের সম্পত্তি কেনায় অরুচি। টাকা ফেরত আর কতদিনে? আশা জিইয়ে রেখে তালুকদার কমিটির মেয়াদ আরও এক বছর বাড়াল হাইকোর্ট। শুরুটা হয়েছিল এমপিএস-কে  দিয়ে। ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এমপিএস চিটফান্ডের টাকা আমানতকারীদের ফিরিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে হাইকোর্ট তৈরি করে দেয় বিশেষ কমিটি।

    অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি শৈলেন্দ্র প্রকাশ তালুকদার নেতৃত্বে গঠিত হয় কমিটি। ১ থেকে ৪৮ টি চিটফান্ডের দায়িত্ব জয় তালুকদার কমিটির কাছে। চলতি বছরের ডিসেম্বরে মেয়াদ শেষ কমিটির। এম পি এস, রোজভেলি, অ্যালকেমিস্ট, প্রয়াগ সহ ৪৮ চিটফান্ডের আমানতকারীদের টাকা ফেরানোর প্রক্রিয়া চালু রাখতে ২০২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত এস পি তালুকদার কমিটির মেয়াদ বাড়ানোর নির্দেশ বিচারপতি জয়মাল্য বাগচীর ডিভিশন বেঞ্চের। সর্বশেষ সেবির রিপোর্ট অনুযায়ী, সারাদেশে ৩৫০ চিটফান্ডের অস্তিত্ব ছিল। যদিও পশ্চিমবঙ্গে আড়াই লক্ষ আমানতকারীর সর্বস্বান্ত হওয়ার পিছনে রয়েছে ৪৮টি চিটফান্ড। কিছুদিন আগে কমিটি ছাড়তে চেয়ে চিঠি দেয় খোদ এস পি তালুকদার। টাকা ফেরতের গতি বাড়াতে না পারায়  হতাশায় কমিটি ছাড়তে চেয়েছিলেন বলে সূত্রের খবর। তবে হাইকোর্ট তালুকদার কমিটিকে আরও এক বছর রেখে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়ায় টিকে থাকল আমানতকারীদের টাকা ফেরত পাওয়ার আশা। তালুকদার কমিটি হাজারেরও বেশি অ্যালকেমিস্ট চিটফান্ড প্রতারিতদের টাকা ফিরিয়েছে। কমিটির হাতে এসেছে অ্যালকেমিস্ট এর আরো ২৬ কোটি টাকা। পৈলান চিটফান্ডের ১কোটি এবং এম পি এস-এর ১৬ কোটি  টাকা। প্রয়াগ চিটফান্ডের সিবিআইয়ের বাজেয়াপ্ত করা ৩৬ কোটি টাকা খুব শীঘ্রই কমিটির হাতে যাবে। সেক্ষেত্রে আগামী এক বছরে আরও অনেক আমানতকারী টাকা ফেরত পেতে পারেন। তবে চিন্তা বাড়িয়েছে চিটফান্ড এর সম্পত্তি কেনায় অরুচি। চিটফান্ডের নাম শুনলেই তাদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি কেনায় আগ্রহ দেখাচ্ছে না কোন সংস্থা। আমানতকারীদের আইনজীবী অরিন্দম দাস জানান  ‘এমপিএস ঝাড়গ্রাম-এর একলপ্তে সম্পত্তি অনেকটা। চিটফান্ড বলে সেই সম্পত্তি কিনতে কেউই আগ্রহী হচ্ছে না।’ সম্পত্তি বিক্রি না হওয়ায় টাকা ফেরতের প্রক্রিয়াটি আরও শ্লথ হয়ে পড়ছে। তবে কমিটির মেয়াদ আরো এক বছর হাইকোর্ট বাড়িয়ে দেওয়ায় টাকা ফেরতের আশা ছাড়ছেন না লক্ষ লক্ষ আমানতকারী।
    First published: