কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন– News18 Bengali

কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ শুক্রবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 20, 2017 09:31 AM IST
কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 20, 2017 09:31 AM IST

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ শুক্রবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

anandabazar11

নাকের ডগায় নকশাল দাপট, ভাঙড়ে দল কী করছিল? প্রশ্ন তৃণমূলে

ভাঙড়ে গত কয়েক মাস ধরে নকশালরা যে তলে তলে জমি তৈরি করছিল, সে খবর না রাখার জন্য ঘরোয়া আলোচনায় পুলিশ-প্রশাসনকেই দুষছেন শাসক দলের নেতারা। কিন্তু তাঁরাই বা কেন হাল ধরতে পারলেন না, কেন পরিস্থিতি পুরোপুরি হাতের বাইরে চলে গেল, সেই প্রশ্নও এ বার উঠতে শুরু করেছে তৃণমূলের অন্দরে।

সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের ভিডিওই হাতিয়ার, চেনা কায়দায় ‘মুক্তাঞ্চল’ ভাঙড়

এক দশক আগে রাস্তা কেটে, গাছের গুঁড়ি ফেলে, পুলিশ খেদিয়ে ‘মুক্তাঞ্চল’ গড়েছিল নন্দীগ্রাম। টানা অবরোধ চালিয়ে আন্দোলনের আর এক চেহারা দেখিয়েছিল সিঙ্গুর। কলকাতার উপকণ্ঠে ভাঙড়ও গত দু’দিন ধরে কার্যত ‘মুক্তাঞ্চল’। এবং ঠিক সেই চেনা কায়দায়। ভাঙড়ে জমি আন্দোলন হয়নি ঠিকই, কিন্তু সেখানেও একই ভাবে ঢুকতে পারছেন না পুলিশ এবং শাসক দলের কোনও নেতা। পাওয়ার গ্রিডের নির্মীয়মাণ সাব-স্টেশন সংলগ্ন খামারআইট, গাজিপুর উড়িয়াপাড়া, টোনা, শ্যামপুকুরের মতো গ্রামগুলিতে ধিকি ধিকি জ্বলছে শাসক-বিরোধী অসন্তোষের আগুন।

Loading...

উপহার দরকার নেই, ভারত এনএসজির যোগ্য: বেজিংকে পাল্টা দিল্লির

এনএসজি সদস্যপদ নিয়ে চিনের কটাক্ষের কড়া জবাব দিল ভারত। পরমাণু সরবরাহকারী গোষ্ঠীতে (এনএসজি) ভারতের অন্তর্ভুক্তি নিশ্চিত করতে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রশাসন যে ভাবে সক্রিয় হয়েছিল, তাকে কটাক্ষ করে চিনা বিদেশ মন্ত্রক সম্প্রতি মন্তব্য করেছে, ‘‘প্রেসিডেন্ট ওবামা তাঁর তরফ থেকে বিদায়ী উপহার হিসেবে ভারতকে এনএসজি সদস্যপদ দিয়ে যেতে পারছেন না।’’ এই কটাক্ষ যে একেবারেই পছন্দ হয়নি ভারতের, তা বৃহস্পতিবার স্পষ্ট করেই নয়াদিল্লি বুঝিয়ে দিল বেজিংকে। ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক সাংবাদিক বৈঠক ডেকে বলল, ‘‘উপহার হিসেবে এনএসজি সদস্যপদ পেতে চাইছে না ভারত, পরমাণু অস্ত্রের প্রসার রোধে ভারতের যে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা, তার ভিত্তিতেই ভারত এনএসজি সদস্যপদের দাবিদার।’’

‘কম বয়সের’ যুক্তিতে ফাঁসি নয়, মাকে খুনে যাবজ্জীবন ‘ভাল’ ছেলের

‘তোমাকে ফাঁসিতে ঝোলানো উচিত। বয়স কম বলে তোমাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় শোনালাম।’ কোনও দিন ক্লাসে সেকেন্ড হয়নি ছেলেটি। কলকাতা ফুটবলের ‘এ ডিভিশনে’ ময়দানও কাঁপাত। কিন্তু কুসঙ্গে পড়ে হেরোইন, ব্রাউন সুগারের মতো মাদকের নেশায় আছন্ন হয়ে পড়ে সে। বড়লোক বাবার একমাত্র ছেলে নেশার টাকার জন্য বাবা-মাকে মারধর শুরু করে। এমনকী, এক দিন হাতুড়ি দিয়ে মাথায় বাড়ি মেরে মাকেই মেরে ফেলে। মায়ের রক্ত মাখামাখি করে জানায়, ‘হোলি খেলছিলাম’!

bartaman_big11

বাজেটে আয়করের ছাড় বাড়াতে চলেছেন মোদি

নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের পর নগদ টাকার অভাবে সংকটে পড়া মধ্যবিত্তকে এবার কিছুটা স্বস্তি দিতে চাইছে কেন্দ্র। আর সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখেই আসন্ন বাজেটে আয়কর কাঠামোর বেশকিছুটা পরিবর্তন করা হতে পারে বলে সরকারি সূত্রের খবর। এ নিয়ে উচ্চপর্যায়ের আলোচনা, বৈঠক সবই চলছে পুরোদমে। বাজেটের আর বেশি দেরি নেই।  এবছরই পুরানো রীতি ভেঙে ফেব্রুয়ারির প্রথম দিনেই বাজেট পেশ হওয়ার কথা। ব্যক্তিগত আয়করে এবার একগুচ্ছ ছাড় দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। উল্লেখ্য, পাঁচ রাজ্যের ভোটের দামামা বাজার ঠিক প্রাক্কালে আগামী ১ ফেব্রুয়ারি পেশ হতে চলেছে সাধারণ বাজেট। জানা যাচ্ছে, দীর্ঘদিনের দাবি মেনে আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা এবার বাজেটে বাড়ানো হতে পারে। পাশাপাশি তা তিনটি বয়ঃসীমায় ধার্য হবে। ৬০ বছরের নীচে, ৬০ থেকে ৮০ এবং ৮০ বছরের ঊর্ধ্বে। ৬০ বছরের নীচে বয়সিদের ক্ষেত্রে শোনা যাচ্ছে এবার আয়কর ছাড়ের ঊর্ধ্বসীমা তিন থেকে চার লক্ষ টাকা পর্যন্ত করা হতে পারে। এরপর আয় অনুযায়ী তিনটি ধাপে আয়কর ধার্য করা হবে। ১০ শতাংশ, ২০ শতাংশ ও ৩০ শতাংশ হারে।

ভাঙড় সংঘর্ষে পুলিশের উধাও হওয়া ৪টি রাইফেল কার হাতে

মঙ্গলবার পদ্মপুকুর ও খামারআইট মোড়ে জনতা ও পুলিশের মধ্যে গোলমালের সময় চারটি রাইফেল উধাও হয়ে গিয়েছে। গুলি ভরতি পুলিশের রাইফেলগুলি এখন কাদের হাতে, তা নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজ্য পুলিশের কর্তারা। কাশীপুর থানায় এ নিয়ে নির্দিষ্ট  ধারায় কেস রুজু হয়েছে। যদিও বিষয়টি এখনই ফাঁস করতে চাইছেন না পুলিশ আধিকারিকরা। প্রাথমিকভাবে পুলিশের সন্দেহ, ওই রাইফেল ভাঙড়ে কোনও গোষ্ঠীর হাতে চলে যেতে পারে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অবশ্য রাইফেলের কোনও হদিশ পাওয়া যায়নি। কাশীপুর থানার এক পুলিশ কর্মী বলেন, গোলমালের জায়গাগুলিতে এখনও ঢোকা যাচ্ছে না। কারণ, গোটা তল্লাট অবরুদ্ধ করে রেখেছে সেখানকার লোকজন। স্বাভাবিকভাবে এ নিয়ে তল্লাশি চালাতে অসুবিধা হচ্ছে। রাজ্য গোয়েন্দা পুলিশের এক কর্তা বলেন, পদ্মপুকুর ও খামারআইট মোড়ে রাস্তার ধারে পুলিশের অনেকগুলি গাড়ি ছিল। সেই গাড়িতে বেশ কয়েকজন রাইফেলধারী পুলিশ কর্মী ছিলেন। এছাড়া অধিকাংশ পুলিশ অফিসার ও কর্মী পাওয়ার গ্রিড ঘিরে পাহারায় ছিলেন।

মায়ের বকুনি, ফেসবুকে গুড বাই লিখে ছাত্র আত্মঘাতী

স্কুলের ষাণ্মাষিক পরীক্ষায় খারাপ ফল করেছিল। তাই মা বুধবার সন্ধ্যায় বকাবকি করেন। তা সহ্য করতে পারেনি একাদশ শ্রেণির ছাত্র সম্প্রীত। অভিমানী হয়ে পড়েছিল সে। বৃহস্পতিবার সকালে সম্প্রীতের গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হল। তবে আত্মঘাতী হওয়ার আগে সম্প্রীত সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুকে ‘গুড বাই’ লিখে গিয়েছে। বুধবার রাত ১১টা ১ মিনিটে ‘গুড বাই’ লেখে সে। এদিন সকালে এই ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়াল পশ্চিম পুঁটিয়ারির ব্যানার্জি পাড়া রোডে। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম সম্প্রীত বন্দ্যোপাধ্যায় (১৭)। সে টালিগঞ্জের করণাময়ীর একটি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে একাদশ শ্রেণিতে পড়ত। হরিদেবপুর থানার পুলিশ গিয়ে ওই ছাত্রের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। একমাত্র সন্তানকে হারিয়ে ভেঙে পড়েছেন সুব্রত ও অপর্ণা বন্দ্যোপাধ্যায়। এলাকার বাসিন্দাদের কথায়, সাদাসিধে হওয়ায় সম্প্রীতকে প্রত্যেকেই ভালোবাসতেন। বন্ধুদের মধ্যেও সম্প্রীতের যথেষ্ট সুখ্যাতি ছিল।

আধার কার্ড ছাড়া রেশন নয়, মানতে নারাজ রাজ্য সরকার

আধার কার্ড না থাকলে আর সস্তার রেশন নয়। এমনই ব্যবস্থা চালু করতে চলেছে মোদি সরকার। কেবল তাই নয়, নগদ টাকায় রেশনের খাদ্যপণ্য কেনাকাটাও বন্ধ করে দিতে চাইছে মোদি সরকার। রাজ্যগুলিকে কেন্দ্রের ‘ফতোয়া’ আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে গণবণ্টন ব্যবস্থার যাবতীয় লেনদেন ক্যাশলেস অর্থাৎ নগদহীন করতে হবে। কেন্দ্রের এই ফতোয়া মানতে নারাজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। আধার না থাকলে রেশন বন্ধ, এরও প্রতিবাদে আজ এখানে কেন্দ্র-রাজ্য বৈঠকে জোরদার সওয়াল করেছে পশ্চিমবঙ্গ। কেবল পশ্চিমবঙ্গই নয়, বিজেপি-শাসিত রাজ্যও সম্পূর্ণ ক্যাশলেস ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। ক্যাশলেস করার জন্যও একটা খরচ হয়। সেটা কে দেবে? কেন্দ্র দেবে কি? জানতে চায় তারা। যদিও কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী তার কোনও ইতিবাচক উত্তর দিতে পারেননি।

ei samay

প্রচুর আশা জাগিয়ে আজ শুরু বাণিজ্য সম্মেলন

শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে দু’দিনের বেঙ্গল গ্লোবাল বাণিজ্য সম্মেলন ৷ বাণিজ্য সম্মেলনের তৃতীয় অধ্যায়ের মূল লক্ষ্য হল রাজ্যকে স্টার্ট-আপ সংস্থা গড়ে তোলার উর্বর জমি হিসাবে তুলে ধরা ৷

রাতে গোরস্থানেই ঠাঁই মহিলাদের

খোনা গলায় বৃদ্ধার ছুড়ে দেওয়া প্রশ্নটাই বলে দেয়, এর কোনও উত্তর হয় না- ‘সাবধানে কোথায় থাকব বাবা ? সাবধানে ঘরে থাকব, নাকি বাইরে, মাঠের মধ্যে ?’ রাবেয়া বিবি ৷ পরিবারের দাবি, বয়স ১০০ ছাড়িয়েছে অনেক দিন আগেই ৷ সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারেন না ৷ চলাফেরা তো দূরের কথা ৷

আরাবুলের ঠ্যাঙাড়েদের ভয়ে রাত কাটছে আতঙ্কে

এ যেন ‘শোলে’র রামগড় গ্রাম ! দিনের আলো নিভলেই সুনসান রাস্তাঘাট ৷ দোকানপাট বন্ধ ৷ পরোদস্ত্তর সন্নাটা ! অন্ধকার নামার আগেই ঘরমুখো গ্রামবাসীরা ৷ গ্রামের পর গ্রাম পুরুষশূন্য ৷ কনকনে ঠান্ডায় তাঁরা রাত কাটাচ্ছেন খেতের আলে ৷

জমি-কাণ্ডের আগেই চাষিদের ‘মিথ্যে’ মামলায় জড়িয়েছিল রাজ্য, অভিযোগ

ভাঙড়ে বুধবার থেকে রক্কক্ষয়ী আন্দোলন শুরু হলেও, তার অনেক আগেই জমি আন্দোলনে জড়িত চাষিদের মামলার ফাঁসে জড়িয়ে দিয়েছিল রাজ্য সরকার ৷ আরও অভিযোগ, বাড়ির ছেলে-বৌও এই মামলার হাত থেকে রেহাই পায়নি ৷

First published: 09:31:57 AM Jan 20, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर