কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফি কমাচ্ছে বেসরকারি স্কুলগুলি, একে একে নির্দেশিকা জারি স্কুলগুলির

ফি কমাচ্ছে বেসরকারি স্কুলগুলি, একে একে নির্দেশিকা জারি স্কুলগুলির

সেই কমিটির রিপোর্ট জমা করার পরিপ্রেক্ষিতে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ রায় দেয় বেসরকারি স্কুল গুলি কে টিউশন ফি ২০ শতাংশ মকুব করতে হবে।

  • Share this:

#‌কলকাতা:‌ সুপ্রিমকোর্টে ধাক্কা খাওয়ায় এবার বেসরকারি স্কুল গুলি কার্যত হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে টিউশন ফি মকুব করে পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচারের নির্দেশিকা বের করতে শুরু করল। শুক্রবার থেকেই কলকাতা ও শহরতলীর বেসরকারি স্কুলগুলি পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার এর নোটিশ দিতে শুরু করেছে তাদের ওয়েবসাইটে এবং অভিভাবক অভিভাবিকাদের উদ্দেশ্যে। হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে কুড়ি শতাংশ টিউশন ফি মকুব এবং non-academic ফি না নিয়েই পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার দিচ্ছে বেসরকারি স্কুলগুলি। প্রসঙ্গত কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে রায় দিয়েছিল করোনা পরিস্থিতিতে বেসরকারি স্কুলগুলিকে কুড়ি শতাংশ টিউশন ফি মকুব করতে হবে এবং তার সঙ্গে non-academic ফি নেওয়া যাবে না। ডিভিশন বেঞ্চের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিমকোর্টে গিয়েছিল একাধিক বেসরকারি স্কুল। সুপ্রিম কোর্ট অবশ্য জানিয়ে দেয় হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছে ফি সংক্রান্ত বিষয়ে সেই বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট কোন হস্তক্ষেপ করবে না। তারপরপরই শুক্রবার থেকেই স্কুলগুলি পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার দিতে শুরু করেছে তাদের নিজেদের ওয়েবসাইটে।

টিউশন ফি কমানো সহ অন্যান্য ফি নেওয়া যাবে না তা নিয়ে লকডাউনের শুরু থেকেই অভিভাবকদের একাংশ বিক্ষোভ শুরু করে কলকাতা সহ একাধিক জেলার বেসরকারি স্কুলগুলিতে। কলকাতার বেশিরভাগ স্কুলে অভিভাবক অভিভাবিকা বিক্ষোভ দেখান। কখনও রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ আবার কখনো শান্তিপূর্ণভাবে স্কুলের বাইরে প্ল্যাকার্ড ব্যানার নিয়ে অভিভাবকদের বিক্ষোভে থাকতে দেখা যায়। এমনকী ফি না দেওয়ার জেরে অনলাইন ক্লাস থেকে পড়ুয়াদের বাদ দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটে। তার জেরে বিতর্ক হয়। যদিও রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তরের নির্দেশ মেনে বেসরকারি স্কুল গুলি চলতি বছরে টিউশন ফি সহ অন্যান্য ফি এ–বছর বৃদ্ধি করে নি। শেষমেষ ফি কমানোর দাবি নিয়ে মামলা যায় কলকাতা হাইকোর্ট পর্যন্ত। হাইকোর্টের তরফে একটি কমিটিও করে দেওয়া হয় ফি কমানোর বিষয় নিয়ে।

সেই কমিটির রিপোর্ট জমা করার পরিপ্রেক্ষিতে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ রায় দেয় বেসরকারি স্কুল গুলি কে টিউশন ফি ২০ শতাংশ মকুব করতে হবে। শুধু তাই নয় করোনা পরিস্থিতিতে কোনো রকম non-academic ফি নেওয়া যাবে না। যদিও এই মামলার রায় নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ করে গেলেও সুপ্রিম কোর্টের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় ফি সংক্রান্ত মামলায় সুপ্রিম কোর্ট কোন হস্তক্ষেপ করবে না। তারপরই কলকাতার লরেটো হাউস, লা মার্টিনিয়ার–সহ একাধিক বেসরকারি স্কুল পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার তাদের ওয়েবসাইটে দিচ্ছে। এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে সেন্ট্রাল মডার্ন স্কুলের প্রিন্সিপাল নবারুণ দে বলেন " সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মানতে আমরা বাধ্য। ছুটির পরই আমরা পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার দিয়ে দেবো ওয়েবসাইটে। যদিও ইতিমধ্যেই আমরা অভিভাবকদের জানিয়ে দিয়েছি ওয়েবসাইট মারফত ছুটির পরই পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার দেওয়া হবে। শুধু আমরা নয় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মানতে সব স্কুল বাধ্য। আশা করব অভিভাবকরাও হাইকোর্টের নির্দেশ মানবেন।" লা মার্টিনিয়েরে সেক্রেটারি সুপ্রিয় ধর বলেন " আমরা শনিবারই ওয়েবসাইটে পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার দিয়ে দিচ্ছি। আশা করি অভিভাবকরা হাইকোর্টের রায় কে মানবেন।" অন্যদিকে স্কুলগুলি পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার ওয়েবসাইটে দেওয়াতে স্বভাবতই খুশি অভিভাবকদের সংগঠন। এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ইউনাইটেড গার্জেন ফোরামের আহ্বায়ক সুপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন " হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে স্কুলগুলির পরিবর্তিত ফি স্ট্রাকচার ওয়েবসাইটে যেটা দিচ্ছে তাতে আমরা স্বাগত জানাই।"

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: October 31, 2020, 6:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर