• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • Subrata Mukherjee | Ekdalia Evergreen Club: প্রিয় মানুষটা আর নেই, বদলে যেতে চলেছে একডালিয়া এভারগ্রিনের ভবনের নাম!

Subrata Mukherjee | Ekdalia Evergreen Club: প্রিয় মানুষটা আর নেই, বদলে যেতে চলেছে একডালিয়া এভারগ্রিনের ভবনের নাম!

নাম বদলে ফেলবে একডালিয়া এভারগ্রিন?

নাম বদলে ফেলবে একডালিয়া এভারগ্রিন?

Subrata Mukherjee | Ekdalia Evergreen Club: একডালিয়া এভারগ্রিন ক্লাবের ভবনের নাম হতে পারে সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের নামে। 

  • Share this:

#কলকাতা: আচমকা তিনি ছেড়ে চলে গেলেও, সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে (Subrata Mukheree) ছাড়তে রাজি নয় তাঁর প্রিয় ক্লাব৷ গড়িয়াহাটের একডালিয়া এভারগ্রিন ক্লাবের দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে সভাপতি ছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, সেই একডালিয়া এভারগ্রিন ক্লাবের ভবনের নামকরণ করা হবে এভারগ্রিন সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের নামে। এর পাশাপাশি ক্লাবে তাঁর সতীর্থরা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, ক্লাব প্রাঙ্গণে সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের একটি মূর্তি বসানো হবে। ক্লাব সূত্রে খবর, আপাতত সদস্যদের মধ্যে আলোচনায় এটি ঠিক হয়েছে৷ তবে ক্লাব সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের সহধর্মিণী ছন্দবাণী মুখোপাধ্যায়ের সম্মতি নিয়েই ক্লাব ভবনের নাম বদলানো হবে৷

পুরসভার সঙ্গে কথা বলে বসানো হবে সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের মূর্তি। আর এভাবেই তাদের প্রিয় সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে কাছে টানতে চান ক্লাব সদস্যরা৷ চার দিন পেরিয়ে গেলেও সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে স্মৃতির ঝাঁপি উপুড় করে দিচ্ছেন সকলে৷ এখনও রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষ ক্রমাগত এসে চলেছেন ম্যান্ডেভিলা গার্ডেনসে যে আবাসনে সুব্রত মুখোপাধ্যায় বসবাস করতেন, সেখানে৷ অনেকেই পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে চাইছেন৷ অনেকেই আবার এসে দেখা করতে চাইছেন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে। অনেকে আবার একডালিয়া এভারগ্রিন ক্লাবে এসেই শ্রদ্ধা জানিয়ে যাচ্ছেন।

আরও পড়ুন: পেট্রোপণ্যে এবার পাল্টা পথে BJP, অনুমতি-হীন কর্মসূচিতে আজ কি রুদ্ধ হবে কলকাতা?

আরও পড়ুন: তাহলে কি দল ছাড়ছেন? দিলীপ ঘোষকে পাল্টা প্রত্যাঘাত তথাগত রায়ের! লিখলেন, 'যতক্ষণ না...'

আরও পড়ুন: বাংলায় ইতিহাস তৈরি করেছে BJP! আত্মসমীক্ষার বদলে মোদি-ম্যাজিকেই আস্থা নাড্ডাদের

১৯৭২ সাল থেকে এই ক্লাব ও পুজো কমিটির সভাপতি ছিলেন প্র‍য়াত পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী৷ যে পুজো নিয়ে সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলতেন, ''আমি থিম করি না, আমি পুজো করি৷'' ক্লাব সদস্যদের অনেকেই বিশ্বাস করতে পারছে না যে সুব্রত মুখোপাধ্যায় আর নেই৷ অনেকেই বলছেন, 'দাদা বাইরে কোথাও তিন-চারদিনের জন্যে ছুটি নিয়ে মিটিং করতে গেছেন। দাদা ঠিক ফিরে আসবেন।' ক্লাবে ঢুকতেই যে চেয়ার-টেবিলে বসে সময় কাটাতেন, আড্ডায়, গল্পে মশগুল হয়ে উঠতেন সুব্রত মুখোপাধ্যায় সেখানে এখনও জ্বলছে প্রদীপ। পরিপাটি করে সাজিয়ে রাখা আছে তার সব কিছু।ইতিমধ্যেই সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের আবাসনে গিয়ে তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে এসেছেন দুই মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও সস্ত্রীক ফিরহাদ হাকিম। রাজনৈতিক সতীর্থরা বলছেন "সব আছে শুধু সুব্রত দা আর নেই।" সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বিধানসভা কেন্দ্র বালিগঞ্জের সাতটি ওয়ার্ডেই হবে স্মরণ সভা। এছাড়া দক্ষিণ কলকাতা জেলা তৃণমূলের তরফ থেকেও আলাদা সভার আয়োজন করা হচ্ছে।

Published by:Suman Biswas
First published: