• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • CONGRESS LEADER SEND BARNA PARICHAY TO DILIP GHOSH FOR HIS SPELLING MISTAKE SB

Dilip Ghosh: বর্ণপরিচয় উপহার পেলেন দিলীপ ঘোষ! অনুবাদের সাফাই বনাম বানান ভুলের কটাক্ষ

দিলীপের সাফাইয়েও বিতর্ক

Dilip Ghosh: বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের পোস্টারে কন্যাশ্রী বানান হয়ে গিয়েছিল কন্নাশ্রী! শুধু তায় নয়, ‘চাই’-এ ‘ই’-এর মাত্রাও উল্টে গিয়েছিল।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বানান ভুলের জন্য বর্ণপরিচয় উপহার পেলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর এই অভিনব 'উপহার' তাঁকে পাঠালেন কংগ্রেস নেতা কৌস্তব বাগচী। কিন্তু কেন এমন অভিনব উপহার? হাওড়ার বাগনানে বিজেপি কর্মীর স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগকে কেন্দ্র করে দিল্লিতে সংসদের বাইরে প্রতিবাদ দেখিয়েছিলেন বাংলার বিজেপি সাংসদরা। প্রত্যেকের হাতেই ছিল রাজ্য সরকার বিরোধী পোস্টার। সেখানেই দিলীপের পোস্টারে কন্য়াশ্রী শব্দের বানান ভুল নিয়ে চর্চা শুরু হয় নেটমাধ্যমে। বিজেপি রাজ্য সভাপতির পোস্টারে কন্যাশ্রী বানান হয়ে গিয়েছিল কন্নাশ্রী! শুধু তায় নয়, ‘চাই’-এ ‘ই’-এর মাত্রাও উল্টে গিয়েছিল। যা নিয়ে রীতিমতো সমালোচনা, কটাক্ষের মুখে পড়েছিলেন দিলীপ। এবার তাঁকে বর্ণপরিচয়ই উপহার হিসেবে পাঠিয়ে দিল কংগ্রেস।

    যদিও দিলীপের এ প্রসঙ্গে সাফাই, 'অনুবাদ করতে গেলে এমন একটু হয়। দিল্লিতে তো আর বাংলা নেই। ওরা হিন্দি থেকে বাংলা অনুবাদ করে।' এখানেই থামেননি বিজেপির রাজ্য সভাপতি। সমালোচকদের জবাব দিয়ে বলেছেন, 'আমি সুযোগ দিয়েছি অনেককে খবর ছাপানোর জন্য। মন্তব্য করার জন্য।' এরপরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রসঙ্গ এনে দিলীপ বলেন, 'আমি জ্যাকেট পড়ে নৌকায় চেপে বন্যাত্রাণ বিলি করতে গেলে যা ছবি হয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাস্তায় জলে দাঁড়িয়ে ছবি তুললে সেটা বেশি প্রচায় হয়। এটাই আজকাল নিয়ম। যারা এ নিয়ে মন্তব্য করেছেন, তাঁদের ধন্যবাদ।'

    বাংলায় নারীদের সুরক্ষা নিয়ে তৃণমূল সরকারকে আক্রমণ নতুন কিছু নয়। বাগনানের ঘটনার প্রেক্ষিতে সাংসদরা হাতে তুলে নিয়েছিলেন পোস্টার। কিন্তু সেই পোস্টারেই বানান বিভ্রাট নিয়ে কটাক্ষের মুখে পড়েন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। এ প্রসঙ্গে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ কটাক্ষ করে বলেছিলেন, 'দিলীপ বাবুকে বলব, যাদের নিয়ে ব্যানার লেখাবেন তাদের আগে বানান শেখান। কন্যা কখনও কন্না হয় না। গান্ধি মূর্তির পাদদেশে বসেছিলেন দিলীপ বাবুরা। আর গান্ধিজিকে মেরেছিলেন নাথুরাম গডসে। দিলীপ বাবু, আগে ইউপি দেখুন। সেখানে যান। সেখানে তো মানবাধিকার কমিশন তো যায় না। এখানে মহিলারা সুরক্ষিত। মানুষ থেকে বিচ্ছিন্ন আপনারা।'

    দিলীপ ঘোষ অবশ্য বানান ভুলেও নিজের অবস্থানেই অনড় রয়েছে। এর আগেও অবশ্য এ ধরনের নানা ঘটনা ঘটিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। এবারও ভুল স্বীকার তো দূর, নিজের যুক্তিতেই অনড় থাকলেন তিনি।

    Published by:Suman Biswas
    First published: