মাত্র দেড় মিনিটেই সাদা দেওয়ালে তৈরি ‘নেতাজি’-র ছবি, চিনে নিন শিল্পী বিশ্বনাথকে

মাত্র দেড় মিনিটেই সাদা দেওয়ালে তৈরি ‘নেতাজি’-র ছবি, চিনে নিন শিল্পী বিশ্বনাথকে

একটি ৬ ফুট বাই ৭ ফুটের দেওয়ালে দেড় মিনিটে নেতাজি আঁকার কৃতিত্ব রয়েছে বিশ্বনাথের । তুলির আঁচড় শুরু হতে হতেই শেষ। একেবারে ম্যাজিক

  • Share this:

VENKATESWAR  LAHIRI

#কলকাতা: তিনি অনেকেরই আইকন। জাতীয়তাবোধ, মাথা উঁচু করে বাঁচতে শেখার প্রতীক। তিনি নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু ।আগামী ২৩ জানুয়ারি নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানাতে দেশজুড়ে নানা অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি। আর এই প্রস্তুতির মধ্যেই জানুয়ারি মাস এলেই ব্যস্ত হয়ে পড়েন বাংলার বিস্ময় শিল্পী বিশ্বনাথ। দেশ জুড়ে নানা আয়োজন। এসবের মধ্যে সুভাষচন্দ্র বসুকে নীরবে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন এক শিল্পী। মাত্র দেড় মিনিটেই নেতাজিকে দেওয়ালে আঁকতে তাঁর জুড়ি মেলা ভার। তিনি কুলটির বেজডিহি গ্রামের বিশ্বনাথ বাউরি।

নেতাজির পোশাক-টুপি আর চশমার পেটেন্ট ছবি যেন সবার চোখের সামনে ভেসে ওঠে। সেই চেনা ছবিটি তুলির টানে মুহূর্তের মধ্যে দেওয়াল থেকে দেওয়ালে ফুটিয়ে তুলতে পারেন বিশ্বনাথ। শুধু শখে নয়, ফরমায়েশি আঁকাও আঁকেন তিনি। নেতাজি আঁকার আবদার রাখতে মাঝেমধ্যে পাড়ি দেন ভিনরাজ্যেও। শুধু সুভাষ চন্দ্র বসুর ছবি আঁকতে আঁকতে নেতাজির অনুগামী হয়ে উঠেছেন অখ্যাত এই শিল্পী। বিশ্বনাথ শুধু নেতাজির ছবিই আঁকেন না,তাঁর একজন বড় অনুগামীও। নেতাজির জন্মদিনে পাড়ায় জাতীয় পতাকা তোলেন। পাড়ার কচিকাঁচাদের সামনে নেতাজি জীবনী নিয়ে বক্তব্যও রাখেন।

আরও পড়ুন - NRC -র ভয়ে বহু বছর আগে ছেড়ে আসা স্কুল -মাদ্রাসায় ভিড় জমাচ্ছেন মানুষ, মালদহে আতঙ্কের নয়া চেহারা

একটি ৬ ফুট বাই ৭ ফুটের দেওয়ালে দেড় মিনিটে নেতাজি আঁকার কৃতিত্ব রয়েছে বিশ্বনাথের হাতে। তুলির আঁচড় শুরু হতে হতেই শেষ। একেবারে ম্যাজিক। সাদা দেওয়াল থেকে চোখের নিমেষে হয়ে যায় সামরিক বেশে নেতাজির মুখের অবয়ব। ২৩ শে জানুয়ারির আগেই গোটা কুলটি, বাঁকুড়া ও পুরুলিয়া জুড়ে দেওয়ালে দেওয়ালে নেতাজি ও দেওয়াল লিখন সেরে ফেলার গুরুদায়িত্ব বিশ্বনাথের কাঁধে। বিগত প্রায় চল্লিশ বছর ধরে এই কাজ করে চলেছেন বিশ্বনাথ। নিজের শিল্পকর্মে শুধুই আজ নেতাজি প্রেম । তাই নতুন বছরের শুরু থেকেই চূড়ান্ত ব্যস্ত হয়ে পড়েন বিশ্বনাথ। বিভিন্ন জায়গা থেকে ডাক পড়ে তার। আর বিশ্বনাথও সেই সমস্ত এলাকায়  ছুটে যান স্রেফ ভালোবাসার টানে, বা বলা ভাল নেতাজির টানে।

আরও দেখুন

First published: 11:35:50 AM Jan 03, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर