রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত রাজ্যের একাধিক জায়গা, ইলামবাজারে গুলি,বোমাবাজি

রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত রাজ্যের একাধিক জায়গা, ইলামবাজারে গুলি,বোমাবাজি

বীরভূমের ইলামবাজারে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে গুলি, বোমাবাজির অভিযোগ। আতঙ্কের জেরে বন্ধ স্কুল।

  • Share this:

#কলকাতা: রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত রাজ্যের একাধিক জায়গা। বীরভূমের ইলামবাজারে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে গুলি, বোমাবাজির অভিযোগ। আতঙ্কের জেরে বন্ধ স্কুল। উত্তর চব্বিশ পরগনা ও উত্তর দিনাজপুরে CAA সমর্থনে প্রচারে গিয়ে আক্রান্ত বিজেপি কর্মীরা।

সোমবারও থমথমে বীরভূমের ইলামবাজারের জগদলপুর। গ্রামে টহল পুলিশের। বন্ধ স্কুল।তৃণমূলের বুথ সভাপতি কে হবেন। এই নিয়ে গণ্ডগোলের শুরু। শনিবার বুথ কমিটি গঠন নিয়ে তৃণমূলের দুই নেতা মানওয়ারা শেখ ও নাজির শেখের গোষ্ঠীর মধ্য়ে সংঘর্ষ বাধে। আহত হন দু'পক্ষের বেশ কয়েকজন। সেই বিবাদের জেরেই রবিবার রাতে ফের উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। রাতভর জগদলপুর গ্রামে চলে বোমাবাজি। ভাঙচুর করা হয় তৃণমূল কর্মীদের বাড়ি। গুলি চলার অভিযোগও ওঠে। যদিও স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে ৷

আতঙ্কের জেরে পড়ুয়াদের স্কুলে পাঠাতে ভয় পাচ্ছেন অভিভাবকরা। বন্ধ স্কুল। উত্তর চব্বিশ পরগনার বিলকান্দায় CAA সমর্থনে লিফলেট বিলি করতে গিয়ে আক্রান্ত বিজেপির বুথ সভাপতি। স্থানীয় উপপ্রধান মলিনা মল্লিকের স্বামী ও তার দলবল বিজেপির বুথ সভাপতি সুজয় ঢালির উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ। যদিও, বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে হামলা বলে পালটা অভিযোগ করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

উত্তর দিনাজপুরের চোপড়াতেও caa সমর্থনে প্রচারে গিয়ে বিজেপির দুই কর্মী আক্রান্ত হন বলে অভিযোগ। মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

First published: January 27, 2020, 7:22 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर