Home /News /kolkata /

মৃত্যুতেও ঘুচলো না বহিষ্কারের ক্ষত, শেষযাত্রাতেও আলিমুদ্দিনে গেলেন না সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়

মৃত্যুতেও ঘুচলো না বহিষ্কারের ক্ষত, শেষযাত্রাতেও আলিমুদ্দিনে গেলেন না সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়

Photo : News 18 Bangla Creative

Photo : News 18 Bangla Creative

  • Share this:

    #কলকাতা: দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে যে দলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল ৷ সেই দলই দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে বহিষ্কার করে প্রকাশ কারাতের নেতৃত্বাধীন সিপিআইএম ৷ এই ঘটনার পর এক দশক পেরিয়ে গিয়েছে ঠিকই ৷ কিন্তু দলের সঙ্গে সোমনাথের সম্পর্কের যে চিড় ধরেছিল ৷ তা মেরামত হয়নি ৷ কারণ সোমবার মিন্টোপার্কের কাছে বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যুর পর সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের দেহ আলিমুদ্দিনে নয় ৷ সরাসরি নিয়ে আসা হয় কলকাতা হাইকোর্টে ৷ পর্যবেক্ষকদের মত, পারিবারিক আপত্তির জেরেই আলিমুদ্দিনে নিয়ে আসা হয়নি তাঁর দেহ ৷

    পরমাণু চুক্তির অন্তর্গত বেশ কিছু বিষয় নিয়ে বিরোধের জেরে ইউপিএ সরকার থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করে সিপিআইএম ৷ এরপরই সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে তাঁর দল ভোটাভুটিতে সরকারের বিপক্ষে ভোট দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেয় ৷ সেই নির্দেশেরই বিরোধিতা করেন তিনি ৷ পাশাপাশি ইউপিএ সরকার থেকে সিপিএমের সমর্থন প্রত্যাহারেরও বিরোধিতা করেন সোমনাথবাবু ৷ যার জেরে দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে সিপিআইএম দল থেকে বহিষ্কার করা হয় তাঁকে ৷

    সেই ঘটনার পর থেকেই মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন সোমনাথ চট্টোপাধ্যায় ৷ মাঝে মধ্যেই সোমনাথবাবুর গলায় অভিমানের সুর নজরে আসত পরিবারের সদস্যদের ৷ সম্ভবত সেই কারণেই পারিবারিক আপত্তির জেরেই মৃত্যুর পরও তাঁর দেহ নিয়ে যাওয়া হয়নি আলিমুদ্দিনে ৷

    প্রয়াত নেতার পরিবার সূত্রে খবর, বিধানসভা থেকে বার করে দেহ নিয়ে যাওয়া হবে রাজা বসন্ত রায় রোডে, সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের বাসভবনে ৷ সন্ধে ৬টা পর্যন্ত সেখানেই রাখা থাকবে প্রাক্তন সিপিআইএম সাংসদের মরদেহ ৷ সেখানে সাধারণ মানুষেরা প্রয়াত রাজনীতিবিদকে শ্রদ্ধা জানাতে পারবেন ৷ সন্ধে ৬টার পর সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়ের শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী তাঁর দেহ দান করা হবে এসএসকেএম হাসপাতালে।

    First published:

    Tags: Alimuddin, Somnath Chatterjee

    পরবর্তী খবর