দুর্ঘটনা থেকে বাঁচতে অত‍্যাধুনিক প্রযুক্তি, তবুও কিভাবে মৃত্যু ফেরারির আরোহী শিবাজীর !

দুর্ঘটনা থেকে বাঁচতে অত‍্যাধুনিক প্রযুক্তি, তবুও  কিভাবে মৃত্যু ফেরারির আরোহী শিবাজীর !
নিজস্ব চিত্র

দুর্ঘটনা থেকে বাঁচতে অত‍্যাধুনিক প্রযুক্তি, তবুও কিভাবে মৃত্যু ফেরারির আরোহী শিবাজীর !

  • Share this:

#কলকাতা: দুর্ঘটনা ঘটলেও চালকের যাতে কোনও ক্ষতি না হয়, তার জন্য বেশ কিছু অত‍্যাধুনিক প্রযুক্তি থাকে ফেরারির মতো বিলাসবহুল গাড়িতে। কিন্তু, তা সত্ত্বেও, সেই ফেরারির সওয়ারিরই প্রাণ গেল হাওড়ার ডোমজুড়ে।

রবিবার সকাল। সিঙ্গুরের গোপালনগর থেকে ফেরার পথে ডোমজুড়ের পাকুড়িয়া সেতুর গার্ডওয়ালে তীব্র গতিতে ধাক্কা মারে প্রায় পাঁচ কোটি টাকা দামের ফেরারি।

মৃত্যু হয় গাড়ির মালিক, কলকাতার ব্যবসায়ী শিবাজি রায়ের। গাড়ির স্টিয়ারিং ছিল তাঁরই হাতে। কিন্তু, ফেরারির মতো বিলাসবহুল গাড়িতে তো নিরাপত্তার নানা রকম ব‍্যবস্থা থাকে। যাতে দুর্ঘটনা ঘটলেও চালক বা আরোহীর কোনও ক্ষতি না হয়। তারপরেও কীভাবে ফেরারি দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল?

খতিয়ে দেখছেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা বলছেন, ফেরারির মতো বিলাসবহুল গাড়িতে থাকে সেন্সর। বিপদ বুঝলেই সেই সেন্সর কাজ শুরু করে দেয়। সিট বেল্ট নিজে থেকে আরও শক্ত হয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে খুলে যায় চালক ও আরোহীর সামনের এয়ার ব‍্যাগ। চালকের সামনে যেমন এয়ার ব‍্যাগ থাকে, তেমন পাশেও থাকে একই ধরনের রক্ষাকবচ। দুর্ঘটনা ঘটলে পাশের এয়ার ব‍্যাগগুলিও সঙ্গে সঙ্গে খুলে যায়।

আরও পড়ুন,

Loading...

ভাড়াবৃদ্ধির দাবিতে ৭জুন থেকে ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত বাস মালিকদের

এই এয়ারব‍্যাগই বহু মানুষকে দুর্ঘটনার হাত থেকে বাঁচায়। কিন্তু ডোমজুড়ে কেন তা হল না? খতিয়ে দেখছেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা জানিয়েছেন, দুর্ঘটনাগ্রস্ত গাড়িটি থেকে তাঁরা বেশ কিছু অত‍্যাধুনিক ইলেকট্রনিক সরঞ্জাম পেয়েছেন। যেগুলি সবই চালক ও আরোহীর সুরক্ষায় ব‍্যবহার করা হয়। যেমন- ইভেন্ট ডেটা রেকর্ডার। বিমানে যেমন ব্ল‍্যাক বক্স। তেমনই ফেরারিতে থাকে ইভেন্ট ডেটা রেকর্ডার। গাড়ি একবার চালু করলেই এই যন্ত্রটিতে সব কিছু রেকর্ড হতে থাকে। স্পিড থেকে শুরু করে অটোমেটিক ব্রেক সিস্টেম ব‍্যবহার হয়েছে কি না সমস্ত তথ‍্য জমা হতে থাকে এই ইভেন্ট ডেটা রেকর্ডারে। এমনকি চালক ও আরোহী কী কথা বলছেন, তাও রেকর্ড হয়।

দুর্ঘটনাগ্রস্ত ফেরারিতে ছিল ইলেকট্রনিক স্টেবিলিটি কন্ট্রোল। গাড়ির চাকা কোনও কারণে পিছলে গেলে এই অত‍্যাধুনিক প্রযুক্তি, গাড়ির গতি কমিয়ে দেয়। এ ছাড়াও ছিল ব্লাইন্ড স্পট ওয়ার্নিং। যা সামনে বিপদ দেখলেই চালককে সতর্ক করে দেয়।

ফেরারির চালকের নিরাপত্তা জন্য এত ব‍্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও কলকাতার ব্যবসায়ী শিবাজি রায়ের প্রাণ কিন্তু বাঁচানো গেল না।

First published: 11:01:13 AM Jun 05, 2018
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर