আমফান ত্রাণের জন্য নতুন করে প্রায় ৬ লক্ষ আবেদন, সবচেয়ে বেশি পূর্ব মেদিনীপুরে

Nabanna

আমফানের ক্ষতিপূরণের জন্য জন্য নতুন করে আবেদনপত্র জমা দিতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ নয়া আবেদনপত্র জমা পড়ল প্রায় ৬ লক্ষ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: আমফান ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ দেওয়া নিয়ে চরম দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে৷ এমনকী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও স্বীকার করেন, কিছু জায়গায় দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে৷ সেই জন্য আমফানের ক্ষতিপূরণের জন্য জন্য নতুন করে আবেদনপত্র জমা দিতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ নয়া আবেদনপত্র জমা পড়ল প্রায় ৬ লক্ষ৷

    আমফান ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণের নতুন করে ৫ লক্ষ ৭০ হাজার আবেদনপত্র জমা পড়র রাজ্যের কাছে৷ ৬ থেকে ৭ অগাস্ট আবেদনপত্র জমা পড়েছে৷ সবচেয়ে বেশি ত্রাণের আবেদন জমা পড়েছে পূর্ব মেদিনীপুর থেকে৷

    গত ২০ মে আমফান ঘূর্ণিঝড়ে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হয় কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, হুগলি, হাওড়া, নদিয়া এবং কিছুটা পূর্ব বর্ধমান। এই সব জেলায় ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণের দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, পুরো বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হলে ২০ হাজার টাকা পাবেন আবেদনকারী আর আংশিক ক্ষতি হলে মিলবে পাঁচ হাজার টাকা। আবেদন করেছিলেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

    এরপরেই শুরু হয় দুর্নীতি৷ আত্মীয়দের ক্ষতিপূরণ পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে। একের পর এক দুর্নীতির অভিযোগ আসতে থাকে পঞ্চায়েত স্তর থেকে৷ শুধু শাসকদল নয়, বিজেপি শাসিতও বেশ কিছু পঞ্চায়েত থেকে দুর্নীতির অভিযোগ আসে। কিছু ক্ষেত্রে প্রশাসন আর দলের চাপে ক্ষতিপূরণের টাকা ফেরত দিয়েছেন ভুয়ো ক্ষতিগ্রস্তরা।

    জুলাই আর অগাস্টের ক্ষতিপূরণের আবেদন খতিয়ে দেখার কাজ ১২ অগাস্টের মধ্যে শেষ করতে হবে। আগামী ১৯ অগাস্ট 'এগিয়ে বাংলা' ওয়েবসাইটে ক্ষতিপূরণের তালিকা প্রকাশ পাবে বলে রাজ্য সরকার সূত্রে জানা গিয়েছে৷

    Published by:Arindam Gupta
    First published: