• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • ABHISHEK BANERJEE WILL PRESENT ED OFFICE MONDAY IN DELHI ON COAL CASE OF WEST BENGAL SB

Abhishek Banerjee: 'ক্ষমতা থাকলে ১০ পয়সারও লেনদেন সামনে আনুন', ইডির কাছে যাচ্ছেন অনড় অভিষেক

অভিষেকের চ্যালেঞ্জ

Abhishek Banerjee: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'আমি নভেম্বর মাসে যা বলেছিলাম, ৭ মাস অতিক্রান্ত হয়েছে, আমি আজও আমার অবস্থানে অনড়। আমি প্রকাশ্য জনসভায় থেকে বলেছিলাম, আমার বিরুদ্ধে যদি কোন কেন্দ্রীয় সংস্থা প্রমাণ দিতে পারে, তাহলে আমার বিরুদ্ধে ইডি সিবিআই লাগানো দরকার নেই।'

  • Share this:

    #কলকাতা: দিল্লি উড়ে গেলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। আর কয়লা-কাণ্ডে (Coal Case) ED-র তলবে যে তিনি সাড়া দিচ্ছেন, তাও এদিন স্পষ্ট করে দিয়ে গেলেন অভিষেক। সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর অভিষেক ও তাঁর রুজিরাকে তলব করেছে ইডি। রুজিরা অবশ্য আগেই করোনা-আবহে কলকাতায় ইডির অফিসে হাজির হওয়ার কথা জানিয়ে ইডি-কে চিঠি দিয়েছেন। আর এদিন অভিষেকের দিল্লি-যাত্রা প্রমাণ করে দিল, 'লড়াই' থেকে পিছিয়ে আসছেন না তিনি। এদিন বিমানবন্দরে ইডি-র কাছে তিনি যাচ্ছেন কিনা, সেই প্রশ্নের জবাবে তিনি সাফ বলেন, 'আমি নভেম্বর মাসে যা বলেছিলাম, ৭ মাস অতিক্রান্ত হয়েছে, আমি আজও আমার অবস্থানে অনড়। আমি প্রকাশ্য জনসভায় থেকে বলেছিলাম, আমার বিরুদ্ধে যদি কোন কেন্দ্রীয় সংস্থা প্রমাণ দিতে পারে, তাহলে আমার বিরুদ্ধে ইডি সিবিআই লাগানো দরকার নেই। এত বড় দুর্নীতির কথা বলছে, ১০ পয়সার যদি কোন লেনদেন প্রমাণ করতে পারে বা জনসমক্ষে আনতে পারে, আমার পিছনে ইডি সিবিআই লাগাতে হবে না। আমাকে ফাঁসির মঞ্চ করে বলুন, আমি মৃত্যুবরণ করতে রাজি আছি। আজও একই কথা বলছি।'

    এর আগে কয়লা পাচারকাণ্ডে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কালীঘাটের বাড়ি শান্তিনিকেতনে গিয়ে রুজিরা নারুলাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল সিবিআই। এছাড়াও, জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় অভিষেকের শ্যালিকা মেনকা গম্ভীর, তাঁর স্বামী ও শ্বশুড়কেও। এবার একেবারে অভিষেককেই তলব করেছে ইডি। যা নিয়ে শোরগোল পড়েছে জাতীয় রাজনীতিতেও। এদিন অভিষেক বলেন, 'যে কোন তদন্তের সামনা-সামনি হতে প্রস্তুত আমি। কিন্তু জনসমক্ষে কেন কিছু আনছেন না। কেন কলকাতার ঘটনায় আমাকে দিল্লিতে ডেকে পাঠিয়েছে? তবে আমি যাব দিল্লিতে। আমি যাচ্ছি।'

    আরও পড়ুন: বিষ খাওয়া পাঁচ শিক্ষিকা গেলেন অভিষেকের সঙ্গে দেখা করতে! যা ঘটল, অভাবনীয়...

    এরপরই বিজেপিকে সরাসরি আক্রমণ করে অভিষেক সংযোজন করেন, 'হেরে গেছে বলে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা না করতে পেরে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে এখন প্রতিহিংসাপরায়ণ রাজনীতিতে নেমেছে এবং তদন্তকারী সংস্থাগুলোকে পিছনে রেখে রাজনৈতিক চরিতার্থ করা ছাড়া আর কোন কাজ নেই আমি বিজেপি নেতাদের। তাঁদের বলব আপনাদের যে কোনও নেতা আসুন না আমার সাথে যে কোন চ্যানেল ঠিক করুন, আমার সঙ্গে বসুন, কোন কেন্দ্রীয় সংস্থা পাঁচ বছরে কীভাবে কাজ করেছে, ভারতবর্ষের কী করুণ পরিণতি সাত বছরে আপনাদের শাসন কালে, আমি যদি তা প্রমাণ করতে না পারি রাজনীতির আঙিনায় পা রাখব না।'

    ফের একবার তাঁর বিরুদ্ধে থাকা প্রমাণ জনসমক্ষে আনার দাবি তুলেছেন অভিষেক। বলেন, 'আমার বিরুদ্ধে যদি কোন কিছু থাকে আপনারা জনসমক্ষে আনুন, যখন হাত পেতে টাকা নিতে দেখা গিয়েছে নির্লজ্জভাবে, তখন সিবিআইয়ের চোখে ছানি পড়ে যায়, টিভির পর্দায় যাদেরকে কাগজ মুড়ে টাকা নিতে দেখা গিয়েছে, সুদীপ্ত সেন যাদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ জানাচ্ছে, তারা বড়বড় কথা বলছেন।'

    চ্যালেঞ্জের সুরে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক সংযোজন করে দেন, 'তৃণমূলকে এইভাবে দমিয়ে রাখা যাবে না। ১ ইঞ্চি মাথানত করবে না তৃণমূল কংগ্রেস। আমি আপনাদের কথা দিয়ে যেতে পারি, আমরা আর যাই হোক শিরদাঁড়া বিক্রি করব না।'

    Published by:Suman Biswas
    First published: